অভিজিৎ হত্যা: তথ্যপ্রযুক্তি আইনের মামলায় ফারাবী খালাস

জঙ্গিদের হাতে নিহত লেখক ও ব্লগার অভিজিৎ রায়কে অনলাইনে হত্যা হুমকি দেওয়া উগ্রবাদী শফিউর রহমান ফারাবীকে তথ্য প্রযুক্তি আইনের একটি মামলায় খালাস দিয়েছেন আদালত।
র‍্যাবের হেফাজতে উগ্রবাদী শফিউর রহমান ফারাবী। স্টার ফাইল ছবি

জঙ্গিদের হাতে নিহত লেখক ও ব্লগার অভিজিৎ রায়কে অনলাইনে হত্যা হুমকি দেওয়া উগ্রবাদী শফিউর রহমান ফারাবীকে তথ্য প্রযুক্তি আইনের একটি মামলায় খালাস দিয়েছেন আদালত।

ঢাকা সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক মোহাম্মদ আস সামশ জগলুল হোসেন ফারাবীর উপস্থিতিতে আদেশ দেওয়ার সময় বলেছেন, রাষ্ট্রপক্ষ অভিযোগ প্রমাণ করতে ব্যর্থ হয়েছে।

তবে এই মামলায় খালাস পেলেও অভিজিৎ হত্যাসহ বিভিন্ন অভিযোগে সারাদেশে বেশ কয়েকটি মামলার আসামি ফারাবী সহসা কারাগার থেকে বের হতে পারবেন না।

রাষ্ট্রপক্ষ ও বিবাদীপক্ষের যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষে রায় ঘোষণার আগে মামলার বাদীসহ সাতজনের সাক্ষ্য রেকর্ড করেছেন আদালত।

লেখালেখির কারণে বিভিন্ন জনকে হত্যার হুমকি দেওয়ার অভিযোগে ২০১৫ সালের ২ মার্চ র‍্যাবের একটি দল ঢাকার যাত্রাবাড়ী বাস টার্মিনাল এলাকা থেকে ২৯ বছর বয়সী ফারাবীকে গ্রেপ্তার করে। সেবছরই ১৪ মার্চ গোয়েন্দা পুলিশের পরিদর্শক ফজলুর রহমান আইসিটি আইনে রমনা থানায় ফারাবীর বিরুদ্ধে মামলা করেন। ২০১৫ সালের ৩০ নভেম্বর ফারাবীর বিরুদ্ধে গোয়েন্দা পুলিশ অভিযোগপত্র দেয়। এর পর ২০১৬ সালের এপ্রিল মাসে ট্রাইব্যুনালে ফারাবীর বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করা হয়।

ফারাবী এর আগে ২০১০ সালে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ভাঙচুরের অভিযোগে আটক হয়েছিলেন। সন্দেহভাজন জঙ্গি হামলায় নিহত শাহবাগ আন্দোলনের সংগঠক ও ব্লগার রাজীব হায়দারের জানাজার ইমামকে হত্যা হুমকি দেওয়ায় ২০১৩ সালে আবার গ্রেপ্তার হয়েছিলেন ফারাবী। কিন্তু ছয় মাসের মধ্যে জামিনে মুক্তি পেয়ে ফের ব্লগার হত্যায় ইন্ধন দিতে শুরু করেন তিনি।

২০১৫ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি অমর একুশে গ্রন্থমেলা থেকে বের হওয়ার পথে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে অভিজিৎ রায় ও বন্যা আহমেদের ওপর হামলার ঘটনার পর ফারাবীকে আবার গ্রেপ্তার করা হয়।

Comments

The Daily Star  | English

Hefty power bill to weigh on consumers

The government has decided to increase electricity prices by Tk 0.34 and Tk 0.70 a unit from March, which according to experts will have a domino effect on the prices of essentials ahead of Ramadan.

6h ago