নেপালে উড়োজাহাজ বিধ্বস্ত, নিহত ৩

নেপালের লুকলা বিমানবন্দরে সামিট এয়ারের একটি উড়োজাহাজ উড্ডয়নের সময় রানওয়ে থেকে ছিটকে পড়লে একজন কো-পাইলট এবং দুজন পুলিশ সদস্য নিহত হয়েছেন। সেসময় উড়োজাহাজটি রানওয়ের পাশে দাঁড়িয়ে থাকা দুটি হেলিকপ্টারকে ধাক্কা দেয়।
Nepal air crash
১৪ এপ্রিল ২০১৯, নেপালের লুকলা বিমানবন্দরে সামিট এয়ারের একটি উড়োজাহাজ উড্ডয়নের সময় রানওয়ে থেকে ছিটকে পড়ে। ছবি: কাঠমান্ডু পোস্ট/ এশিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক

নেপালের লুকলা বিমানবন্দরে সামিট এয়ারের একটি উড়োজাহাজ উড্ডয়নের সময় রানওয়ে থেকে ছিটকে পড়লে একজন কো-পাইলট এবং দুজন পুলিশ সদস্য নিহত হয়েছেন। সেসময় উড়োজাহাজটি রানওয়ের পাশে দাঁড়িয়ে থাকা দুটি হেলিকপ্টারকে ধাক্কা দেয়।

কাঠমান্ডুর ত্রিভূবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের মুখপাত্র প্রতাপ বাবু তিওয়ারি জানান, আজ (১৪ এপ্রিল) নেপালের সময় সকালে লুকলা বিমানবন্দরে উড়োজাহাজটি বিধ্বস্ত হলে কো-পাইলট এস ধুনগানা এবং হেলিপ্যাডে দাঁড়িয়ে থাকা পুলিশের সহকারী উপ-পরিদর্শক রাম বাহাদুর খাদকা ঘটনাস্থলে নিহত হন।

এরপর, পুলিশের আহত অপর সহকারী উপ-পরিদর্শক রুদ্র বাহাদুর শ্রেষ্ঠকে কাঠমান্ডুর গ্রান্ডে হাসপাতালে নিয়ে এলে তিনি সেখানে মারা যান।

একটি ৯এন-এএমএইচ উড়োজাহাজ উড্ডয়নের সময় রানওয়ে থেকে ৩০-৫০ মিটার দূরে ছিটকে পড়লে এই দুর্ঘটনা ঘটে। সেসময় উড়োজাহাজটি ম্যানাং এয়ার এবং শ্রী এয়ারের দুটি হেলিকপ্টারকে ধাক্কা দেয়।

এ ঘটনায় উড়োজাহাজটির পাইলট ক্যাপ্টেন আর বি রোকায়া এবং হেলিকপ্টারটির ভেতরে থাকা ম্যানাং এয়ারের ক্যাপ্টেন চেত গুরুংও আহত হন। গ্রান্ডে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন তারা দুজনেই এখন বিপদমুক্ত অবস্থায় রয়েছেন।

লুকলা বিমানবন্দরটি তেনজিং-হিলারি বিমানবন্দর হিসেবেও পরিচিত। একে এভারেস্ট পর্বতশৃঙ্গের প্রবেশপথ হিসেবে গণ্য করা হয়। মাত্র ৫২৭ মিটার রানওয়ে সর্বস্ব এই বিমানবন্দরটি ভৌগোলিকভাবে বিপদজনক হওয়ায় প্রায়ই এখানে দুর্ঘটনা ঘটে থাকে।

Comments

The Daily Star  | English

Bangladesh yet to benefit from GI-certified products

Bangladesh is yet to derive any benefit from the products granted the status of geographical indication (GI) due to a lack of initiatives from stakeholders although the recognition enhances the reputation of goods, builds consumer confidence and brings in higher prices.

5h ago