শীর্ষ খবর

পুলিশের ওপর হামলার অভিযোগে ছাত্রলীগের নেতা-কর্মী আটক

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার উপজেলায় পুলিশের ওপর হামলার অভিযোগে ছাত্রলীগের দুই নেতা-কর্মীকে আটক করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় আহত হয়েছে পুলিশের তিন সদস্য।
narayanganj map

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার উপজেলায় পুলিশের ওপর হামলার অভিযোগে ছাত্রলীগের দুই নেতা-কর্মীকে আটক করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় আহত হয়েছে পুলিশের তিন সদস্য।

বুধবার দুপুরে উপজেলার গোপালদী পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে ওই ঘটনা ঘটে। আটককৃতরা হলেন, গোপালদী পৌরসভা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সুজয় সাহা ও ছাত্রলীগ কর্মী দিদার ইসলাম (১৮)।

আড়াইহাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আক্তার হোসেন দ্য ডেইলি স্টারকে জানান, বুধবার বেলা ১২টায় গোপালদী নজরুল ইসলাম বাবু কলেজের ছাত্রীদের উত্ত্যক্ত করার অভিযোগে দিদার ইসলামকে গোপালদী বাজার থেকে আটক করে পুলিশ। তার আটকের খবর জানতে পেরে সুজয় সাহা দিদারকে ছাড়িয়ে আনতে তদন্ত কেন্দ্রে যায়। ছাড়তে অস্বীকৃতি জানালে পুলিশ সদস্যদের অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করেন তিনি। এটিএসআই মামুন তার প্রতিবাদ করলে সুজয় ক্ষিপ্ত হয়ে তাকে মারধর শুরু করেন। পরে সুজয় তার সহযোগীদের ফোন করে তদন্ত কেন্দ্রে ডেকে এনে পুলিশের ওপর হামলা চালায়।

ওসি আরও জানান, এসব কিছু জানতে পেরে অতিরিক্ত পুলিশ নিয়ে তদন্ত কেন্দ্রে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন তিনি। এসময় সুজয় ও দিদারকে আটক করে আড়াইহাজার থানায় নিয়ে আসেন। আর এ ঘটনায় আহত এটিএসআই মামুন, কনস্টেবল আবুল বাশার ও ইমরানকে উদ্ধার করে আড়াইহাজার উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ভর্তি করা হয়েছে।

আক্তার হোসেন বলেন, পুলিশকে মারধরের ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

গোপালদী পৌরসভা ছাত্রলীগ সভাপতি ফয়সাল আহমেদ আপন দ্য ডেইলি স্টারকে জানান, দিদার এইচএসসি পরীক্ষার্থী। কোন কারণ ছাড়াই তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। সে যৌন হয়রানির সঙ্গে জড়িত নয়। তাকে ছাড়িয়ে আনতে তদন্ত কেন্দ্রে গেলে পুলিশ সুজয়ের সঙ্গে খারাপ আচরণ করেন।

Comments