চ্যালেঞ্জ আছে তবে চাপ নেই বাংলাদেশের

ঘরের মাঠে প্রথমবারের মতো মেয়েদের আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্ট। তার উপর গত কয়েক বছর ধরে মেয়েদের টানা সাফল্য। সবমিলিয়ে বঙ্গমাতা অনূর্ধ্ব-১৯ আন্তর্জাতিক গোল্ড কাপের ফেবারিট বাংলাদেশই। তাই কিছুটা প্রত্যাশার চাপে থাকতেই পারে দলটি। কিন্তু কোচ গোলাম রাব্বানি ছোটন এমনটা ভাবছেন না। স্পষ্টই জানিয়েও দিলেন তা। তবে চ্যালেঞ্জটা ঠিকই দেখছেন এ কোচ।
ছবি: ফিরোজ আহমেদ

ঘরের মাঠে প্রথমবারের মতো মেয়েদের আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্ট। তার উপর গত কয়েক বছর ধরে মেয়েদের টানা সাফল্য। সবমিলিয়ে বঙ্গমাতা অনূর্ধ্ব-১৯ আন্তর্জাতিক গোল্ড কাপের ফেবারিট বাংলাদেশই। তাই কিছুটা প্রত্যাশার চাপে থাকতেই পারে দলটি। কিন্তু কোচ গোলাম রাব্বানি ছোটন এমনটা ভাবছেন না। স্পষ্টই জানিয়েও দিলেন তা। তবে চ্যালেঞ্জটা ঠিকই দেখছেন এ কোচ।

টুর্নামেন্টকে সামনে রেখে রোববার রাজধানীর একটি অভিজাত হোটেলে হয়ে গেল ছয়টি দলের পরিচিতি পর্ব। সেখানেই সংবাদ সম্মেলনে চ্যালেঞ্জের কথা জানালেন ছোটন, 'চ্যালেঞ্জ আছে কারণ সবাই অনেক ভালো দল। কিন্তু আমাদের কোন চাপ নেই। সাম্প্রতিক সময়ে আমরা অনেক গুলো টুর্নামেন্ট খেলেছি। মেয়েরা ম্যাচের মধ্যে আছে। প্রতিনিয়ত অনুশীলন করছে। প্রথমবারের মতো বঙ্গমাতা টুর্নামেন্ট, ঘরের মাঠে খেলা তাই মেয়েদের মাঝে একটা জিনিস কাজ করছে তারা সেরা ফুটবল খেলতে চায়।'

আগামীকাল সোমবার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে শুরু হচ্ছে মেয়েদের এ ফুটবল টুর্নামেন্ট। স্বাগতিক বাংলাদেশ ছাড়া টুর্নামেন্টে অংশ নিচ্ছে সংযুক্ত আরব আমিরাত, মঙ্গোলিয়া, তাজিকিস্তান, কিরগিজস্তান ও লাওস। প্রথম দিনেই মাঠে নামছে স্বাগতিকরা। প্রতিপক্ষ সংযুক্ত আরব আমিরাত। তাদের সঙ্গে এবারই প্রথম লড়াই মেয়েদের। যদিও এর আগে অনূর্ধ্ব-১৬ পর্যায়ে খেলেছে তারা। তাতে বাংলাদেশ জিতেছে সব ম্যাচই। শেষ লড়াইটি তো জিতেছে ৭-০ গোলের ব্যবধানে। তারপরও অবশ্য প্রতিপক্ষকে ছোট করে দেখছেন না ছোটন।

'প্রত্যেকটা দলই এখানে শক্তিশালী দল। সবাইকে সমান গুরুত্ব দিতে হবে। কাউকেই ছোট করে দেখার কিছু নাই। শতভাগ দিতে হবে। প্রথম ম্যাচটা বেশি গুরুত্বপূর্ণ। কারণ এটা জিতলে সেমিফাইনাল খেলা সহজ হবে।' - প্রতিপক্ষ সম্পর্কে এমনটাই বললেন ছোটন।

এছাড়া নিজেদের প্রস্তুতি সম্পর্কেও বলেন এ কোচ, 'বঙ্গমাতা টুর্নামেন্টকে লক্ষ্য রেখে আমরা প্রস্তুতি শুরু করেছি ২৮ মার্চ থেকে। নেপার থেকে আসার পর সাত দিন রিকোভারি অনুশীলনে ছিলাম। এর আগে আমরা দুটি টুর্নামেন্ট খেলেছি। সেখানে যে ভুলত্রুটি হয়েছে মূলত সে গুলো নিয়েই কাজ করেছি। মেয়েরা শতভাগ দিয়েই খেলবে। সব দলই সর্বোচ্চটা দিয়ে খেলবে। আশা করি ভালো টুর্নামেন্ট হবে।'

গত মার্চে সাফ ফুটবলে খুব একটা সুবিধা করতে পারেনি বাংলাদেশ। ভারতের কাছে খেয়েছিল ৪ গোল। সাবিনা খাতুন ছাড়া বাকি সবাই খেলবেন অনূর্ধ্ব-১৯ দলে। অবশ্য নতুন যোগ দিয়েছেন তিনজন- সামসুন্নাহার জুনিয়র, সাজেদা খাতুন ও মোসাম্মৎ সুলতানা। তারপরও এটিকে বলা চলে প্রায় জাতীয় দলই। তাই এ টুর্নামেন্ট মেয়েদের জন্য আত্মবিশ্বাস ফিরে পাওয়ার লড়াই। তাই কৌশলেও কিছু বদল আনছেন কোচ ছোটন। এবার আগ্রাসী মেজাজেই নামছেন তারা। এই আসরে বাংলাদেশকে তাই দেখা যাবে ৪-৩-৩ ছকে।

Comments

The Daily Star  | English

Hasina writes back to Biden

Prime Minister Sheikh Hasina has written back to US President Joe Biden

1h ago