শ্রীলঙ্কায় হামলার পেছনে ‘ন্যাশনাল তৌহিদ জামাত’

শ্রীলঙ্কায় সিরিজ বোমা হামলার জন্য স্থানীয় একটি ইসলামপন্থী সংগঠনকে দায়ী করেছে দেশটির সরকার। সরকারের মুখপাত্র বলেছেন, ন্যাশনাল তৌহিদ জামাত (এনটিজে) এসব আত্মঘাতী হামলার পেছনে কাজ করেছে।
বিস্ফোরণের পর সেন্ট সেবাস্টিয়ান চার্চের ভেতরে শ্রীলঙ্কার পুলিশ। ছবি: রয়টার্স

শ্রীলঙ্কায় সিরিজ বোমা হামলার জন্য স্থানীয় একটি ইসলামপন্থী সংগঠনকে দায়ী করেছে দেশটির সরকার। সরকারের মুখপাত্র বলেছেন, ন্যাশনাল তৌহিদ জামাত (এনটিজে) এসব আত্মঘাতী হামলার পেছনে কাজ করেছে।

মন্ত্রিপরিষদ সদস্য ও সরকারের মুখপাত্র রাজিতা সেনারত্ন আজ সোমবার এই কথা জানিয়ে বলেছেন, সংগঠনটির আন্তর্জাতিক সংযোগের সম্ভাব্য সকল দিক এখন খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

তিনি বলেন, আমরা বিশ্বাস করি না যে শুধুমাত্র দেশের সীমানার ভেতরে তৎপর কোনো গোষ্ঠী এই হামলা চালাতে পারে। আন্তর্জাতিক সংযোগ ছাড়া এমন হামলা সম্ভব ছিল না।

“আন্তর্জাতিক সংযোগ বা অন্য কোনো ধরনের যোগাযোগের পাশাপাশি কীভাবে তারা শ্রীলঙ্কায় আত্মঘাতী হামলাকারী তৈরি করল ও এমন বোমা বানাল তার সবকিছু নিয়ে এখন তদন্ত চলছে,” উল্লেখ করেন তিনি।

আর প্রেসিডেন্ট মাইথ্রিপালা সিরিসেনা বিবৃতি দিয়ে বলেছেন, হামলাকারীদের আন্তর্জাতিক সংযোগ খুঁজে বের করতে তার দেশ আন্তর্জাতিক সহযোগিতা চাইবে। এ ব্যাপারে মঙ্গলবার বিদেশি কূটনীতিকদের সঙ্গে তিনি আলোচনায় বসবেন।

এদিকে, চার্চে সম্ভাব্য হামলার ব্যাপারে শ্রীলঙ্কার পুলিশ প্রধান আগেই সরকারকে সতর্ক করেছিল। গত ১১ এপ্রিল তিনি এক প্রতিবেদনে বলেছিলেন, ইসলামপন্থী সংগঠনটি চার্চে ও ভারতীয় হাইকমিশনে হামলার প্রস্তুতি নিচ্ছে এমন খাবর বিদেশি একটি গোয়েন্দা সংস্থার কাছ থেকে তিনি পেয়েছেন। সরকারকে দেওয়া পুলিশ প্রধানের এই প্রতিবেদন এএফপি দেখেছে।

ন্যাশনাল তৌহিদ জামাত সম্পর্কে যা জানা যাচ্ছে

ইসলামি চরমপন্থী সংগঠন ন্যাশনাল তৌহিদ জামাত সম্পর্কে বিশেষ কোনো তথ্য জানা না গেলেও এই সংগঠনটির বিরুদ্ধে বৌদ্ধ মূর্তি ভাঙচুরের অভিযোগ ছিল। রাষ্ট্রপতি মাইথ্রিপালা সিরিসেনার কার্যালয় থেকে দেওয়া বিবৃতিতে বলা হয়েছে, স্থানীয় ইসলামপন্থী সংগঠনটির সঙ্গে আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসবাদীদের যোগাযোগের কথা তার দেশের গোয়েন্দা সংস্থাগুলোর প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছিল।

Comments

The Daily Star  | English

JS passes Speedy Trial Bill amid protest of opposition

With the passing of the bill, the law becomes permanent; JP MPs say it may become a tool to oppress the opposition

52m ago