এক কিকেই বাস্কেটবল ছেড়ে ফুটবলার দিবালা

বর্তমান সময়ের অন্যতম উদীয়মান খেলোয়াড়দের মধ্যে জুভেন্টাসের আর্জেন্টাইন তারকা পাওলো দিবালা অন্যতম। তবে এ খেলোয়াড়ের ফুটবলার হওয়ার কথা ছিল। শুরুতে বাস্কেটবল খেলোয়াড় হওয়ার চেষ্টা করেছিলেন। তবে বাস্কেটবল খেলতে গিয়ে একদিন বুঝতে পেরেছেন ফুটবলই আসলে তার খেলা। সম্প্রতি ইতালিয়ান গণমাধ্যম করিয়েরে ডেলা সেরাকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে এমনটাই বলেছেন এ তরুণ।
ছবি: এএফপি

বর্তমান সময়ের অন্যতম উদীয়মান খেলোয়াড়দের মধ্যে জুভেন্টাসের আর্জেন্টাইন তারকা পাওলো দিবালা অন্যতম। তবে এ খেলোয়াড়ের ফুটবলার হওয়ার কথা ছিল না। শুরুতে বাস্কেটবল খেলোয়াড় হওয়ার চেষ্টা করেছিলেন। আর বাস্কেটবল খেলতে গিয়ে একদিন বুঝতে পেরেছেন ফুটবলই আসলে তার খেলা। সম্প্রতি ইতালিয়ান গণমাধ্যম করিয়েরে ডেলা সেরাকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে এমনটাই বলেছেন এ তরুণ।

অন্যান্য দিনের মতোই বন্ধুদের সঙ্গে বাস্কেটবল খেলতে গিয়েছিলেন দিবালা। অনুশীলনের এক ফাঁকে একটি বল এলো বেশ নিচু হয়ে। মুহূর্তের সিদ্ধান্তে হাত দিয়ে না ধরে সেটাকে কিক দিলেন এ আর্জেন্টাইন। আর সে কিক গন্তব্যে বল পৌঁছানোর পর ভিন্ন উপলব্ধি হয় তার। এরপরই পুরোদুস্তর ফুটবলার হওয়ার জন্য নেমে যান এ পোস্টার বয়, ‘শৈশবে বাস্কেট বল চেষ্টা করেছিলাম। একদিন খেলছিলাম এবং বলটি অনেক নিচু হয়ে আসছিল। হাত দিয়ে ধরার বদলে আমি এটাকে কিক মেরেছিলাম। তখনই আমি বুঝতে পেরেছি আমার খেলাটা আসলে ফুটবল।’

সাম্প্রতিক সময়টা ভালো যাচ্ছে না দিবালার। গত মৌসুমে দুর্দান্ত পারফরম্যান্স করেছিলেন দলের প্রধান খেলোয়াড় হিসেবে। তবে চলতি মৌসুমে ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোর ছায়ায় যেন ঢাকা পড়েছেন। সিরিএ’তে ২৭টি ম্যাচ খেলে লক্ষ্যভেদ করতে পেরেছেন মাত্র পাঁচ বার। আর এর কারণ হিসেবে বেশ আবেগঘন কথাই বলেছেন এ তরুণ, ‘খেলোয়াড়দের জীবন অনেকটা রোলার কোস্টারের মতো। একদিন আপনি থাকবেন সেরা, পরের দিন আপনি ব্যবহারের অযোগ্য।  ভারসাম্য খুঁজে পাওয়া খুব কঠিন। এটা সবার ক্ষেত্রেই হয়। এমনকি মেসি ও রোনালদোর মতো চ্যাম্পিয়নদেরও হয়। তাদের ক্যারিয়ারে যা করেছে তার পরও তারা সমালোচিত হয়।’

মূল একাদশ থেকেই জায়গা হারিয়েছেন দিবালা। এমনকি তাকে বিক্রি করে দেওয়ার গুঞ্জনও উঠেছে বেশ জোরেশোরে। তার জায়গায় স্বদেশী মাউরো ইকার্দি পেতে চাইছে দলটি।আলোচনায় আছে মিসরীয় তারকা মোহাম্মদ সালাহর নামও। অথচ দলের ১০ নম্বর জার্সিধারী খেলোয়াড় দিবালা। আর নিজেকে প্রমাণ করে তা ধরে রাখতে চান এ তরুণ, ‘১০ নম্বর জার্সি, আমার জন্য সম্মান এবং দায়িত্বের। আমাকে এটা প্রমাণ করতে হবে আমি এটা প্রতিদিনই পড়ার যোগ্যতা রাখি।’

Comments

The Daily Star  | English
Bangladesh's economy is recovering

Inflation isn’t main concern of people: finance minister

Finance Minister Abul Hassan Mahmood Ali yesterday refused to accept that inflation is one of the main concerns of the people of the country

2h ago