শাজাহান খানের কমিটির প্রতিবেদনে ১১১ সুপারিশ

সড়ক দুর্ঘটনা প্রতিরোধে সরকারের গঠন করে দেওয়া কমিটি আজ তাদের প্রতিবেদন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে পেশ করেছে। কমিটির চেয়ারম্যান ও সাবেক নৌ পরিবহনমন্ত্রী শাজাহান খান দুপুরে গণভবনে প্রধানমন্ত্রীর হাতে প্রতিবেদন তুলে দেন। প্রতিবেদনে তারা মোট ১১১টি সুপারিশের কথা বলেছেন।

সড়ক দুর্ঘটনা প্রতিরোধে সরকারের গঠন করে দেওয়া কমিটি আজ তাদের প্রতিবেদন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে পেশ করেছে। কমিটির চেয়ারম্যান ও সাবেক নৌ পরিবহনমন্ত্রী শাজাহান খান দুপুরে গণভবনে প্রধানমন্ত্রীর হাতে প্রতিবেদন তুলে দেন। প্রতিবেদনে তারা মোট ১১১টি সুপারিশের কথা বলেছেন।

বাসসের খবরে জানানো হয়, জাতীয় সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির সভাপতি ও জাতীয় পার্টির মহাসচিব মশিউর রহমান রাঙা, লেখক ও গবেষক সৈয়দ আবুল মকসুদ, ও নিরাপদ সড়ক চাই (নিচসা) এর চেয়ারম্যান অভিনেতা ইলিয়াস কাঞ্চন এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

কমিটির সদস্য কাজী মো. সুফিয়ান নেওয়াজ আজ দ্য ডেইলি স্টারকে এসব তথ্য জানিয়েছেন।

সড়ক ও জনপথে শৃঙ্খলা ফেরাতে গত ১২ ফেব্রুয়ারি ১৫ সদস্য বিশিষ্ট এই কমিটি গঠন করেছিল সরকার। সরকারের অংশ হয়েও সড়ক দুর্ঘটনায় অভিযুক্ত পরিবহন শ্রমিকদের পক্ষে অবস্থান নেওয়ায় শাজাহাজ খানের বিরুদ্ধে সমালোচনা থাকার পরও তাকেই এই কমিটির প্রধান করা হয়।

কমিটির সদস্য বুয়েটের এক্সিডেন্ট রিসার্চ ইনস্টিটিউটের সহকারী অধ্যাপক কাজী মো. সুফিয়ান নেওয়াজ আজ দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, গণভবনে প্রতিবেদন দেওয়ার সময় প্রধানমন্ত্রী সড়ক নিরাপত্তার বিভিন্ন দিক নিয়ে কথা বলেন। তিনি চালকদের প্রশিক্ষণ ও জনগণের সচেতনতার ওপর জোর দেন।

সুপারিশগুলোর মধ্যে কোনটি কোন সংস্থা বাস্তবায়ন করবে তার ব্যাপারেও সুনির্দিষ্ট করে প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে। আর এসব সুপারিশ ঠিকমতো বাস্তবায়ন হচ্ছে কি না তা দেখার জন্য এক বা একাধিক টাস্কফোর্স গঠন করার জন্যও সুপারিশ করেছেন তারা।

এগুলোর মধ্যে ২০১৯ সালের ডিসেম্বরের মধ্যে জরুরিভিত্তিতে কিছু সুপারিশ বাস্তবায়ন করতে বলা হয়েছে। এর পর ২০২১ সালের মধ্যে মধ্যম মেয়াদে ও ২০২৪ সালের মধ্যে দীর্ঘমেয়াদী সুপারিশগুলো বাস্তবায়ন করতে বলা হয়েছে।

Comments

The Daily Star  | English

Inadequate Fire Safety Measures: 3 out of 4 city markets risky

Three in four markets and shopping arcades in Dhaka city lack proper fire safety measures, according to a Fire Service and Civil Defence inspection report.

2h ago