তারেকের সিদ্ধান্তে বিএনপির চার জনের শপথ: ফখরুল

বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের পরামর্শ ও দলীয় সিদ্ধান্ত অনুযায়ী নির্বাচিত চার জন আজ শপথ নিয়েছেন বলে জানিয়েছেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।
মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। ফাইল ছবি

বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের পরামর্শ ও দলীয় সিদ্ধান্ত অনুযায়ী নির্বাচিত চার জন আজ শপথ নিয়েছেন বলে জানিয়েছেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

ফখরুল বলেন, দলের নীতি নির্ধারণী ফোরাম ও ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান তাদের শপথ নিতে বলেছেন।

আজ সোমবার সন্ধ্যায় গুলশানে দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার রাজনৈতিক কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এই কথা বলেন ফখরুল। বিকেলে দলের নির্বাচিত চার জন জাতীয় সংসদ ভবনে গিয়ে শপথ নেওয়ার পর নানা জল্পনা কল্পনার মধ্যে সংবাদ সম্মেলন করে বিষয়টি পরিষ্কার করলেন তিনি।

ফখরুল বলেন, ভোটাধিকার ও গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার এবং দেশনেত্রীর মুক্তির দাবিতে সংসদে কথা বলার সীমিত সুযোগকে কাজে লাগিয়ে সংসদ ও রাজপথের সংগ্রামকে যুগপৎভাবে চালিয়ে যাওয়াকে আমরা যুক্তিযুক্ত মনে করছি। জাতীয় রাজনীতির এই সংকটময় জটিল প্রেক্ষিতে খালেদা জিয়ার সুচিকিৎসা, মুক্তি এবং গণতন্ত্র পুনুরুদ্ধারের সংগ্রামের অংশ হিসাবে আমাদের দল সংসদে অংশগ্রহণের সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

সংসদে যাওয়ার এই সিদ্ধান্ত দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান নিয়েছেন জানিয়ে মির্জা ফখরুল বলেন, “আমাদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান মহোদয় রোববার স্থায়ী কমিটির সদস্যদের সঙ্গে আলোচনা করেছেন। ইতিমধ্যে তিনি দলের বিভিন্ন স্তরের নেতৃবৃন্দের পাশাপাশি দেশে যারা রাজনৈতিক সচেতন ব্যক্তি আছে তাদের সঙ্গে কথা বলেছেন। কথার বলার পরে জাতীয় স্থায়ী কমিটির সভায় সিদ্ধান্ত গ্রহনের জন্য তাকে এই বিষয়ে সর্বময় ক্ষমতা অর্পন করা হয়।”

“আমাদের দলের গঠনতন্ত্রের ধারা অনুযায়ী তিনি সেই হিসেবে তার সিদ্ধান্ত জানিয়েছেন এবং তারই প্রেক্ষাপটে আমাদের ৪ জন দলের নেতা যারা নির্বাচিত হয়েছেন তারা শপথ গ্রহন করেছেন,” যোগ করেন ফখরুল।

এর জন্য সরকারের তরফে কোনো চাপ ছিল না বলেও জানান তিনি।

তবে তিনি নিজে সংসদে যোগ দেবেন কি না জানতে চাইলে সাংবাদিকদের বলেন, “অপেক্ষা করুন জানতে পারবেন।”

অন্যদিকে শপথ নেওয়ার পর চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩ আসনের হারুন উর রশিদ সাংবাদিকদের বলেন, পার্টির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নির্দেশেই আমরা শপথ নিতে এসেছি। এই সংসদের বৈধতা দেওয়ার জন্য আমরা সংসদে আসিনি। দেশে আইনের শাসন নেই, সুশাসন নেই, দেশে যে অরাজকতা চলছে এই কথাগুলো জানানোর জন্য আমরা সংসদে এসেছি।

Comments

The Daily Star  | English

Speedy Trial Act set to become permanent law

Bill placed in parliament amid criticism from opposition

1h ago