ম্যাচ বাতিল, যৌথ চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ ও লাওস

বৃষ্টি নেই। মাঠও প্রায় ঠিকঠাক। উপস্থিত প্রায় হাজার পাঁচেক দর্শক। কিন্তু ম্যাচ বাতিল ঘোষণা করল বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে)। তাতে জয় হলো 'ফণী'রই। কারণ এ ঘূর্ণিঝড় আঘাত হানতে পারে এমন শঙ্কায় ম্যাচটি মাঠে গড়ানোর সাহস দেখায়নি তারা। বঙ্গমাতা অনূর্ধ্ব-১৯ আন্তর্জাতিক গোল্ডকাপের বাংলাদেশ ও লাওসকে যৌথ চ্যাম্পিয়ন ঘোষণা করা হয়েছে। সংবাদ সম্মেলনে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সহ-সভাপতি আব্দুস সালাম মুর্শিদি।
ছবি: ফিরোজ আহমেদ

বৃষ্টি নেই। মাঠও প্রায় ঠিকঠাক। উপস্থিত প্রায় হাজার পাঁচেক দর্শক। কিন্তু ম্যাচ বাতিল ঘোষণা করল বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে)। তাতে জয় হলো 'ফণী'রই। কারণ এ ঘূর্ণিঝড় আঘাত হানতে পারে এমন শঙ্কায় ম্যাচটি মাঠে গড়ানোর সাহস দেখায়নি তারা। বঙ্গমাতা অনূর্ধ্ব-১৯ আন্তর্জাতিক গোল্ডকাপের বাংলাদেশ ও লাওসকে যৌথ চ্যাম্পিয়ন ঘোষণা করা হয়েছে। সংবাদ সম্মেলনে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সহ-সভাপতি আব্দুস সালাম মুর্শিদি।

৪৩ বছরের ইতিহাসে সবচেয়ে শক্তিশালী সামুদ্রিক ঘূর্ণিঝড় ‘ফণী’-র কারণে ফাইনাল মাঠে গড়াবে কি না, এ নিয়ে শুরু থেকেই ছিল বড় শঙ্কা। বিকেল পৌনে চারটা থেকে শুরু হয় বৃষ্টি। টানা ২৫ মিনিট ভারি বর্ষণের পর থামলেও ঝিরি ঝিরি বৃষ্টি চলছিল নিয়মিতই। তবে মজার ব্যাপার ম্যাচ শুরু হওয়ার সময় সন্ধা ৬টায় আগেই বৃষ্টি সম্পূর্ণ থেমে যায়। কিন্তু তারপরও ম্যাচ গড়াল না মাঠে।

অবশ্য এর মধ্যে ‘ফণী’-র অগ্রভাগ বাংলাদেশের সীমানায় প্রবেশ করেছে ইতোমধ্যে। মূল আঘাত আসবে মধ্যরাতে। বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামের পানি নিষ্কাসন ব্যবস্থা এমনতেই ভালো নয়। হালকা বৃষ্টিতেই মাঠের বিভিন্ন জায়গায় জমে যায় পানি। এদিনও কয়েক জায়গায় পানি জমে। এ পানি সরানোর জন্য অবশ্য কোন ব্যাবস্থাই নেইনি বাফুফে। এমনকি জ্বালানো হয়নি ফ্ল্যাড লাইটও।

সংবাদ সম্মেলনে বাফুফে সহ-সভাপতি বললেন, ‘ভয়াবহ ঘূর্ণিঝড় ফণীর কারণে দেশের সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনা করে ম্যাচটি বাতিল করা হয়েছে। এবং দুই দলকে যৌথ চ্যাম্পিয়ন করা হয়েছে। দুই দলকে প্রাইজ মানি ভাগ করে দেওয়া হবে ২০ হাজার ডলার করে। চ্যাম্পিয়ন ২৫ হাজার ও রানার্সআপ ১৫ হাজার যোগ করে তার অর্ধেকটা দেওয়া হবে।’

সেমিফাইনালে মঙ্গোলিয়াকে ৩-০ গোলের ব্যবধানে হারিয়ে ফাইনালে ওঠে বাংলাদেশের মেয়েরা। অন্যদিকে লাওস বিধ্বস্ত করে কিরগিজস্তানকে। ৭-১ গোলে উড়িয়ে দিয়েই ফাইনালের টিকেট কাটে দলটি। শুধু তাই নয়, গ্রুপ পর্বে মঙ্গোলিয়াকে ৫টি এবং তাজিকিস্তানকে ৬টি গোল দিয়েছিল তারা। অন্যদিকে এসব দলকে হারাতে ঘাম ছুটে গিয়েছিল বাংলাদেশের। তাই প্রশ্ন উঠেছে অনেকই।

Comments

The Daily Star  | English

No electricity at JU halls, protesters fear police crackdown

Electricity supply was cut off at Jahangirnagar University halls this night spreading fear of a crackdown among students

1h ago