ফণীর আঘাতে চাঁদপুরে অর্ধশত ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত

গভীর রাতে চাঁদপুরের রাজরাজেশ্বর ইউনিয়নের তিনটি গ্রামে ঘূর্ণিঝড় ফণীর আঘাতে অর্ধশত বাড়িঘর বিধ্বস্ত হয়েছে। এ সময় কমপক্ষে পাঁচজন আহত হন। আহত ব্যক্তিদের তাৎক্ষণিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।
Chandpur Photo
৪ মে ২০১৯, ঘূর্ণিঝড় ফণীর আঘাতে চাঁদপুরে অর্ধশত বাড়িঘর বিধ্বস্ত হয়েছে। ছবি: স্টার/আলম পলাশ

গভীর রাতে চাঁদপুরের রাজরাজেশ্বর ইউনিয়নের তিনটি গ্রামে ঘূর্ণিঝড় ফণীর আঘাতে অর্ধশত বাড়িঘর বিধ্বস্ত হয়েছে। এ সময় কমপক্ষে পাঁচজন আহত হন। আহত ব্যক্তিদের তাৎক্ষণিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

এলাকাবাসী জানায়, সেখান কোনো আশ্রয় কেন্দ্র না থাকায় এই ভয়াবহ ঘূর্ণিঝড়ের সময় যে যার বাড়িতে অবস্থান করছিলেন।

প্রত্যক্ষদর্শীর বরাত দিয়ে ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) চেয়ারম্যান হজরত আলী ব্যাপারী জানান, আজ (৪ মে) শনিবার ভোররাত পৌনে চারটার দিকে ওই ইউনিয়নের শিলারচর, খাসকান্দি, মান্দের বাজার গ্রামের ওপর দিয়ে ঘূর্ণিঝড় ফণীর প্রভাবে ঝোড়ো বাতাস বয়ে যায়। এ সময় মানুষের ঘরবাড়ি, গাছপালা উড়ে যায়।

তিনি বলেন, আনুমানিক ৫০টি ঘর পুরোপুরি আর ৬টি ঘর আংশিক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

চাঁদপুর সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) কানিজ ফাতেমা জানান, তারা মোবাইলে ক্ষতিগ্রস্ত ব্যক্তিদের সঙ্গে কথা বলেছেন। ক্ষতিগ্রস্ত ব্যক্তিদের তালিকা তৈরি করতে ইউপির চেয়ারম্যানকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

হাইমচরের ইউএনও ফেরদৌসী বেগম জানান, গভীর রাতের ঘূর্ণিঝড়ে হাইমচর ইউনিয়নে ১০ থেকে ১২টি ঘর আংশিক ক্ষতিগ্রস্ত হয়। তবে উপজেলায় বিভিন্ন এলাকায় ফসলেও ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

Comments

The Daily Star  | English