অনায়াস জয়ে ফাইনালে বাংলাদেশ

মুখোমুখি বাংলাদেশ-ওয়েস্ট ইন্ডিজ

অনায়াস জয়ে ফাইনেল বাংলাদেশ 

ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ৫ উইকেটে হারিয়ে ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালে উঠেছে বাংলাদেশ



মুশফিকের ফিফটি

সৌম্যের পর ফিফটি করেছেন মুশফিকুর রহিম। জয়ের আরও কাছে বাংলাদেশ। 

মিঠুনের বিদায়

মুশফিকের সঙ্গে ৮৩ রানের জুটি গড়ে আউট হয়ে ফিরে গেছেন মোহাম্মদ মিঠুন। ১৯০ রানে ৪ উইকেট পড়েছে বাংলাদেশের। ৫৩ বলে ৪৩ করে ফিরেছেন মিঠুন। 



মুশফিক-মিঠুন জুটিতে জয়ের পথে বাংলাদেশ 


সাকিব আর সৌম্য পর পর আউট হয়ে গেলে চাপে পড়েছিল বাংলাদেশ। কিন্তু সেই চাপ ঠেলে সরিয়ে দলকে আবার পথে এনেছেন মুশফিকুর রহিম ও মোহাম্মদ মিঠুন। দুজনের জুটিতে এসে গেছে ৭০ রান, দল পেরিয়ে গেছে ১৭০ রান। রান রেটের চাপ না থাকায় জয় দেখছে বাংলাদেশ। 

পর পর সাকিব-সৌম্যের বিদায়ে চাপে বাংলাদেশ 

সাকিবের আউট হওয়ার খানিক পরই নার্সকে উইকেট ছুঁড়ে ফিরে গেছেন সৌম্যও। নার্সকে ফ্লিকের মতো করতে গিয়ে ক্যাচ দেন শর্ট মিডউইকেটে। ১০৮ রানে তৃতীয় উইকেট হারায় বাংলাদেশ। সৌম্য আউট হন ৬৭ বলে ৫৪ রান করে। 



নার্সকে উইকেট বিলিয়ে ফিরলেন সাকিব 

খেলছিলেন চনমনে। সৌম্যের সঙ্গে মিলে তরতরিয়ে বাড়ছিল রান। অ্যাশলে নার্সের স্পিনে গোলমাল পাকিয়ে হুট করে থেমে গেছেন সাকিব। ৩৫ বলে তিনি ২৯ রান করে আউট হলে ১০৬ রানে দ্বিতীয় উইকেট হারায় বাংলাদেশ।

সৌম্যের টানা দ্বিতীয় ফিফটি

সহজ লক্ষ্য পেয়েও শুরু করেছিলেন আগ্রসী, পরে পরিস্থিতি বুঝে নিয়েছেন ভালো করে। মারার বল মেরে, রানে বলে তাল মিলিয়ে টানা দ্বিতীয় ফিফটি করেছেন সৌম্য সরকার। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচে করেছিলেন ৭৩ রান। এবার সৌম্য ৫৯ বলে পৌঁছান পঞ্চাশে। ওয়ানডেতে নিজের নবম ফিফটি করতে এই ওপেনার মেরেছেন চার বাউন্ডারি আর দুই ছক্কা।  


আগ্রাসী হতে গিয়ে ফিরলেন তামিম



বরাবরের মতই মন্থর শুরু করেছিলেন তামিম ইকবাল। কিন্তু সৌম্যের মতো আগ্রাসী হতে গিয়ে ফিরতে হয়েছে তাকে। অ্যাশলে নার্সকে এগিয়ে এসে মারতে গিয়ে বোল্ড হয়েছেন ২৩ বলে ২১ রান করে। নবম ওভারে ৫৪ রানে প্রথম উইকেট হারায় বাংলাদেশ। 



সৌম্যের ঝড়ো শুরু

লক্ষ্য মামুলি। তাতে যে তালে খেলার কথা তেমনই শুরু পেয়েছে বাংলাদেশ। এক প্রান্তে মারকাটারি শুরু করেছেন সৌম্য সরকার, বিপরিতে তামিম খেলছেন রয়েসয়ে। প্রথম ৬ ওভার শেষে বাংলাদেশ তুলেছে ৪১ রান। ২২ বলে ২৮ রান নিয়ে ব্যাট করছেন সৌম্য, এই সময়ে ১৫ বলে তামিম করেন ১১। 

বাংলাদেশের লক্ষ্য ২৪৮

আয়ারল্যান্ডে গিয়ে প্রথম ম্যাচে একেবারে বিবর্ণ ছিলেন মোস্তাফিজুর রহমান। তবে দলের উদ্বেগ আর না বাড়িয়ে এক ম্যাচ পরেই জ্বলে উঠেছেন তিনি। সেইসঙ্গে উইকেট তুলেছেন অধিনায়ক মাশরাফি মর্তুজাও। এই দুজনের তোপে শাই হোপের আরেকটি দারুণ ইনিংসের পরও ভুগেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। পুরো ৫০ ওভার খেলে টেনেটুনে করতে পেরেছে ২৪৭ রান। 

৪৩ রানে ৪ উইকেট নিয়ে দলের সেরা বোলার মোস্তাফিজ। অধিনায়ক নিয়েছেন ৬০ রানে ৩ উইকেট। 

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

ওয়েস্ট ইন্ডিজ: ৫০ ওভারে ২৪৭/৯ (হোপ ৮৭, আমব্রিস ২৩, ব্রাভো ৬, চেইস ১৯, কার্টার ৩, হোল্ডার ৬২, অ্যালেন ৭, নার্স ১৪, রিফার ৭, রোচ ৩*, কটরেল ৮*; আবু জায়েদ ০/৫৬, মাশরাফি ৩/৬০, মিরাজ ১/৪১, মুস্তাফিজ ৪/৪৩, সাকিব ১/২৭, সৌম্য ০/১৫)



মোস্তাফিজের চতুর্থ উইকেট

চতুর্থ উইকেট পেয়েছেন ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ৪৯তম ওভারে ২৩৬ রানে নবম উইকেট হারিয়েছে ক্যারিবিয়ানরা।

চেইসকে ফেরালেন মুস্তাফিজ

দুই উইকেট হারানর পর রোস্টন চেজকে নিয়ে দলের হাল ধরেছিলেন আরেক ওপেনার শেই হোপ। তবে বড় ক্ষতি করার আগেই তাকে ফিরিয়েছেন মোস্তাফিজুর রহমান। তার বল ভেতরে ঢোকা বলে ফ্লিক করতে চেয়েছিলেন চেইস। টাইমিংয়ে হেরফের হয়ে গেলে মিডউইকেটে সহজ ক্যাচ তুলে দেন তিনি। আর সে কেচ ধরে নিতে কোন ভুল করেননি মাহমুদউল্লাহ।

দলীয় ৮৯ রানে চেজকে ফেরায় টাইগাররা। ৩৬ বলে দুই চারে ১৯ রান করে ফিরেন এ ক্যারিবিয়ান। নতুন ব্যাটসম্যান হিসেবে মাঠে নেমেছেন জনাথন কার্টার।

ব্রাভোকে ফেরালেন মিরাজ

মাশরাফির করা দশম ওভারে বোলারের মাথার উপর দিয়ে খেলতে গিয়ে শূন্যে বল তুলে দিয়েছিলেন ড্যারেন ব্রাভো। কিন্তু সময় পেয়েও জায়গা মতো যেতে পারেননি মেহেদী হাসান মিরাজ। তবে ব্যক্তিগত ৫ রানে জীবন দেওয়া এ ব্যাটসম্যানকে ফিরিয়েছেন মিরাজই। নিজের তৃতীয় ওভারে ব্রাভোকে এলবিডাব্লিউর ফাঁদে ফেলেন এ অফস্পিনার। অফস্টাম্পের বাইরে পড়ে ভেতরের দিকে ঢোকা বল ঠিকভাবে খেলতে পারেননি এ ক্যারিবিয়ান।

দলীয় ৫৬ রানে পড়ে ক্যারিবিয়ানদের দ্বিতীয় উইকেট। ১৩ বলে ৬ রান করেন ব্রাভো। নতুন ব্যাটসম্যান হিসেবে মাঠে নেমেছেন রোস্টন চেজ।

আমব্রিসকে ফেরালেন মাশরাফি

আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে আগের দিনই দারুণ এক সেঞ্চুরি করেছিলেন সুনীল আমব্রিস। এদিনও বাংলাদেশের বিপক্ষে হাত খুলেই খেলছিলেন। তবে বিপদজনক হওয়ার আগেই তাকে থামালেন মাশরাফি বিন মুর্তজা। তবে এ আউটে দারুণ কৃতিত্ব রয়েছে সৌম্য সরকারের। ঝাঁপিয়ে পড়ে চমৎকার এক ক্যাচ নিয়েছেন তিনি।

দলীয় ৩৭ রানে প্রথম উইকেট পড়ে উইন্ডিজের। ১৯ বলে চারটি চারের সাহায্যে ২৩ রান করেছেন আমব্রিস। নতুন ব্যাটসম্যান হিসেবে মাঠে নেমেছেন ড্যারেন ব্রাভো।

আবু জায়েদের অভিষেক

কোমরে চোট পাওয়া সাইফুদ্দিনকে বিশ্রাম দিয়ে খেলানো হচ্ছে আবু জায়েদকে। ১৫ জনের বিশ্বকাপ স্কোয়াডে থাকা আবু জায়েদের পর থাকছে বাড়তি নজর। ২৩ মের আগে বিশ্বকাপ দলে আইসিসির অনুমতি ছাড়াই বদল করতে পারবে বিসিবি। বিশ্বকাপ স্কোয়াডে জায়গা ধরে রাখার পরীক্ষা তাই জায়েদের সামনে।

বাংলাদেশ একাদশ: তামিম ইকবাল, সৌম্য সরকার, সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম, মোহাম্মদ মিঠুন, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ,  সাব্বির রহমান, মেহেদী হাসান মিরাজ, মাশরাফি মর্তুজা, মোস্তাফিজুর রহমান, আবু জায়েদ চৌধুরী রাহি।

টস হেরে ফিল্ডিংয়ে বাংলাদেশ

ত্রিদেশীয় সিরিজে ওয়েস্ট ইন্ডিজ বিপক্ষে দ্বিতীয় দেখায়  টস হেরে   পেয়েছে  বাংলাদেশ। মোহাম্মদ সাইফুদ্দিনের চোটে অভিষেক হয়েছে পেসার আবু জায়েদ চৌধুরী রাহির।

তিন ম্যাচের দুটি জিতে বোনাস পয়েন্টসহ ৯ পয়েন্ট নিয়ে এরমধ্যে ফাইনাল নিশ্চিত করে ফেলেছে ক্যারিবিয়ানরা। আজ উইন্ডিজকে হারালে ফাইনাল নিশ্চিত হবে বাংলাদেশেরও। গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচের আগে ফাইনাল নিশ্চিত করতে একটি পরিবর্তন ছাড়া প্রথম ম্যাচের দল নিয়েই নেমেছে মাশরাফি মর্তুজার দল।

Comments

The Daily Star  | English
fire incident in dhaka bailey road

Fire Safety in High-Rise: Owners exploit legal loopholes

Many building owners do not comply with fire safety regulations, taking advantage of conflicting legal definitions of high-rise buildings, according to urban experts.

4h ago