বিমানের বহরে যুক্ত হলো ৫ম বোয়িং ৭৩৭-৮০০

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের বহরে আজ (১৬ মে) যুক্ত হয়েছে ৫ম বোয়িং ৭৩৭-৮০০। এর ফলে বিমানের বহরে উড়োজাহাজের মোট সংখ্যা হয়েছে ১৪।
biman bangladesh
ছবি: সংগৃহীত

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের বহরে আজ (১৬ মে) যুক্ত হয়েছে ৫ম বোয়িং ৭৩৭-৮০০। এর ফলে বিমানের বহরে উড়োজাহাজের মোট সংখ্যা হয়েছে ১৪।

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের মহাব্যবস্থাপক (জনসংযোগ) শাকিল মেরাজ জানান, কুয়েতের উড়োজাহাজ লিজদাতা প্রতিষ্ঠান আলাফকো হতে সংগৃহীত বোয়িং ৭৩৭-৮০০ মডেলের উড়োজাহাজটি আজ ভোর রাত ৩টা ২৫ মিনিটে ঢাকায় হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করে।

বিমানের বহরে এখন রয়েছে চারটি নিজস্ব ক্রয়কৃত নতুন বোয়িং ৭৭৭-৩০০ ইআর, দুটি নিজস্ব ক্রয়কৃত নতুন বোয়িং ৭৮৭ ড্রিমলাইনার, দুটি নিজস্ব ক্রয়কৃত নতুন বোয়িং ৭৩৭-৮০০, লিজে সংগৃহীত তিনটি বোয়িং ৭৩৭-৮০০ এবং তিনটি ড্যাশ-৮ কিউ ৪০০ উড়োজাহাজ।

মেরাজ জানান, আগামী জুনে বিমানের বহরে যুক্ত হবে ৬ষ্ঠ বোয়িং ৭৩৭-৮০০ উড়োজাহাজ। এছাড়া আগামী জুলাই ও সেপ্টেম্বর মাসে বিমান বহরে সংযোজিত হবে নিজস্ব ক্রয়কৃত সর্বশেষ দুটি বোয়িং ৭৮৭ ড্রিমলাইনার।

বিমান তার রুট ও নেটওয়ার্ক সম্প্রসারণের উদ্যোগ গ্রহণ করেছে জানিয়ে তিনি বলেন, “একের পর এক উড়োজাহাজ সংযোজনের মধ্য দিয়ে বহর শক্তিশালী করছে বিমান। এরই অংশ হিসেবে ১৩ মে ২০১৯ বিমান চালু করেছে ঢাকা-দিল্লি সরাসরি ফ্লাইট। আগামী জুলাই থেকে চালু হতে যাচ্ছে বিমানের গুয়াংজু ফ্লাইট। জেদ্দা, দাম্মাম এবং রিয়াদের পাশাপাশি সৌদি আরবে বিমানের ৪র্থ গন্তব্য মদিনায় আগামী অক্টোবর থেকে সরাসরি ফ্লাইট পরিচালনা শুরু করবে জাতীয় পতাকাবাহী সংস্থাটি।”

“এছাড়াও যাত্রী চাহিদা বেড়ে যাওয়ায় আগামী জুলাই থেকে কয়েকটি আন্তর্জাতিক ও অভ্যন্তরীণ রুটে ফ্লাইট বৃদ্ধি করার পরিকল্পনা করেছে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স” উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, “বিমান এখন ১৬টি আন্তর্জাতিক ও অভ্যন্তরীণ সবকটি রুটে নিয়মিত ফ্লাইট পরিচালনা করছে। গত অর্থবছরে বিমান রেকর্ড সংখ্যক ২৬ লাখ যাত্রী পরিবহন করেছে।”

Comments