বুথ ফেরত জরিপ

পশ্চিমবঙ্গে বিজেপির উত্থানের সম্ভাবনা

প্রায় সবগুলো জরিপের ফলাফলেই দেখা যাচ্ছে, পশ্চিমবঙ্গে প্রথমবারের মতো ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি) উল্লেখযোগ্য সংখ্যক আসনে জয় পেতে চলেছে।

ভোট শেষ হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ভারতের শীর্ষস্থানীয় গণমাধ্যমগুলো পরিচালিত বুথ ফেরত সমীক্ষার ফল প্রকাশ হতে শুরু করেছে। আজ রোববার স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ৬টায় ভোট শেষ হয়। আর এর সঙ্গেই তারা এক এক করে সেই ফল প্রকাশ করতে শুরু করে। এতে দেখা যাচ্ছে পশ্চিমবঙ্গে প্রথমবারের মতো ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি) উল্লেখযোগ্য সংখ্যক আসনে জয় পেতে চলেছে। সর্বভারতীয় ক্ষেত্রেও দলটি জোটগতভাবে জয় পেতে চলেছে।

প্রায় সবগুলো জরিপের ফলাফলেই দেখা যাচ্ছে, পশ্চিমবঙ্গের ৪২ আসনের মধ্যে তৃণমূল কংগ্রেসের নেত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় যে সবকটি আসনে জয় পাওয়ার ডাক দিয়েছিলেন সেই সম্ভাবনা নেই। টাইমস নাউ-ভিএমআরের সমীক্ষা অনুযায়ী পশ্চিমবঙ্গের তৃণমূল কংগ্রেস পেতে পারে ২৮টি আসন। ১১টি আসন পেতে পারে বিজেপি। কংগ্রেসের ঝুলিতে যতে পারে দুটি আসন। মাত্র একটি আসন পেতে পারে বামফ্রন্ট।

অন্যদিকে নিয়েলসনের সমীক্ষা বলছে, পশ্চিমবঙ্গে ২৪টি আসন পেতে পারে তৃণমূল। বিজেপি পেতে পারে ১৬টি আসন। কংগ্রেস মোটে দুটি আসন পেতে পারে। বামফ্রন্ট কে তারা এই রাজ্য থেকে কোনও আসান পাওয়ার সম্ভাবনার কথা জানাতে পারেনি।

সি-ভোটারের সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে, ২৯টি আসন পেতে পারে মমতার দল তৃণমূল কংগ্রেস। মোদির বিজেপির ঝুলিতে যেতে পারে ১১ আসন। কংগ্রেস পেতে দুটি আসন।

রাজ্যের প্রেক্ষাপটে এসব সমীক্ষাতে কংগ্রেস আর বামফ্রন্টের খুবই নাজুক পরিস্থিতি স্পষ্ট আভাস দিচ্ছে।

আর একই সঙ্গে তৃণমূল কংগ্রেসের তরফে ৪২ আসনের সবগুলোতেই তারা দখল নেবে বলে দাবি করা হলেও সমীক্ষার আভাস অনুযায়ী তাদের কিন্তু আসন সংখ্যা বাড়ছে না এবার বরং কমছে।

অন্যদিকে বিজেপির আসন বাড়ছে বাংলার মাটিতে। সর্বশেষ তারা দুইটি আসন পেয়েছিল ২০১৪ সালের লোকসভা নির্বাচনে। এবার অবশ্য তাদের ভাগ্যে আরও বেশি আসনের আভাস দিচ্ছে ভারতীয় গণমাধ্যম ও বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সমীক্ষক প্রতিষ্ঠান।

সর্বভারতীয় সম্ভাব্য ফলাফলের চিত্রটা যেমন:

টাইমস নাও-ভিএমআর- এর সমীক্ষা অনুযায়ী বিজেপি নেতৃত্বাধীন এনডিএ ৩০৬ আসন পেতে পারে। কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন ইউপিএ পেতে পারে ১৩২ আসন। অন্যান্যরা পেতে পারে ১০৪ আসন।

জরিপকারী সংস্থা জান কি বাত বলছে, সব মিলিয়ে এনডিএ পেতে পারে ৩০৫টি আসন, ইউপিএ পেতে পারে ১২৪ আসন এবং  অন্যান্যরা পেতে পারে ৮৭টি আসন।

সি-ভোটার এর সমীক্ষা অনুযায়ী এনডিএ-এর ঝুলিতে যেতে পারে ২৮৭ আসন। ১২৮ আসন পেতে পারে ইউপিএ। ১২৭টি আসন পেতে পারে অন্যান্যরা।

নিউজ নেশনের সমীক্ষায় আভাস দিচ্ছে যে,  এনডিএ পেতে পারে ২৮৬ আসন, ইউপিএ ১২২টি আসন ও ১৩৪টি আসন পেতে পারে অন্যান্যরা।

ভারতের লোকসভায় প্রত্যক্ষ ভোটের মোট আসন ৫৪৩টি। সরকার গঠন করতে হলে ২৭২ আসন পেতে হবে রাজনৈতিক দল বা জোটকে। মোটামুটি সবগুলো সমীক্ষা থেকে যা আভাস মিলছে তাতে আবার দ্বিতীয়বারের মতো ক্ষমতায় ফিরতে পারেন নরেন্দ্র মোদি।

এদিকে বিজেপির প্রতিক্রিয়া না পাওয়া গেলেও টুইট করে মমতা এই বুথ ফেরত সমীক্ষাকে অবান্তর বলে দাবি করেছেন এবং মোদি বিরোধী জোটকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে থাকার অনুরোধ করেছেন।

আগামী ২৩ মে জানা যাবে ভারতের চূড়ান্ত গণরায়।

Comments

The Daily Star  | English

Five Transcom officials get bail in property dispute cases

A Dhaka court today granted bail to five officials of Transcom Group in connection with cases filed over property disputes

1h ago