শঙ্কাই সত্যি হলো, ওয়ার্নারকে 'প্রতারক' বলল ইংলিশ সমর্থকরা

বল টেম্পারিং কেলেঙ্কারির কারণে পাওয়া নিষেধাজ্ঞা থেকে মুক্তি মিলেছে। কিন্তু কট্টর ইংলিশ দর্শকদের রোষানল থেকে বাঁচতে পারলেন না ডেভিড ওয়ার্নার। শঙ্কাকে সত্যি করে অস্ট্রেলিয়ার তারকা ব্যাটসম্যানকে দুয়ো দিয়েছে সমর্থকরা। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ওয়ার্নার ব্যাট হাতে মাঠে পরপরই গ্যালারি থেকে উচ্চস্বরে ভেসে আসে, 'তুমি প্রতারক!'
the barmy army
ফাইল ছবি

বল টেম্পারিং কেলেঙ্কারির কারণে পাওয়া নিষেধাজ্ঞা থেকে মুক্তি মিলেছে। কিন্তু কট্টর ইংলিশ দর্শকদের রোষানল থেকে বাঁচতে পারলেন না ডেভিড ওয়ার্নার। শঙ্কাকে সত্যি করে অস্ট্রেলিয়ার তারকা ব্যাটসম্যানকে দুয়ো দিয়েছে সমর্থকরা। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ওয়ার্নার ব্যাট হাতে মাঠে পরপরই গ্যালারি থেকে উচ্চস্বরে ভেসে আসে, 'তুমি প্রতারক!'

শনিবার (২৫ মে) বিশ্বকাপের অফিসিয়াল প্রস্তুতি ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছে অস্ট্রেলিয়া ও ইংল্যান্ড। সাউদাম্পটনের রোজ বোলে বাংলাদেশ সময় বিকাল সাড়ে তিনটা থেকে গড়িয়েছে মাঠের লড়াই। টসে হেরে অসিরা ব্যাটিংয়ে নামার পর ওপেনার ওয়ার্নারকে লক্ষ্য করে নানা কটু বাক্য ছুঁড়ে দিয়েছেন সমর্থকরা।

এই ম্যাচে অজিদের একাদশে থাকা স্টিভেন স্মিথও একই কারণে পেয়েছিলেন নিষেধাজ্ঞা। স্মিথ-ওয়ার্নারের এক বছরের সাজার মেয়াদ শেষ হয় গেল মার্চে। আর আসন্ন বিশ্বকাপ দিয়েই মাঠে ফিরছেন দুজনে। চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ইংল্যান্ডের মাঠে তাদের ফেরা নিয়ে আগেই উদ্বেগ প্রকাশ করেছিলেন অসি কোচ জাস্টিন ল্যাঙ্গার। স্মিথ-ওয়ার্নারকে ব্যক্তিগতভাবে আক্রমণ করা হতে পারে, এমন শঙ্কা জানিয়েছিলেন তিনি। সেই ভয়ের প্রমাণ মিলল হাতেনাতে।

ইনিংসের গোড়াপত্তন করতে ওয়ার্নার মাঠে ঢোকার সঙ্গে সঙ্গেই গ্যালারিতে শোরগোল ওঠে। তাকে দুয়ো দিতে শুরু করেন মাঠে উপস্থিত দর্শকদের একাংশ। একজন চিৎকার করে বলে ওঠেন, 'প্রতারক ওয়ার্নার মাঠ থেকে বেরিয়ে যাও।'

the barmy army twitter and warner
ছবি : দ্য বার্মি আর্মি টুইটার পেজ

সপ্তাহ দুই আগে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যক্তিগত আক্রমণের শিকার হয়েছিলেন ওয়ার্নার। ইংলিশ ক্রিকেট দলের সমর্থকদের অফিসিয়াল পেজ 'দ্য বার্মি আর্মি' একটি ছবি পোস্ট করে তামাশা করেছিল এই বাঁহাতি মারকুটে ব্যাটসম্যানকে নিয়ে। ছবিতে বেশ কয়েকজন অসি ক্রিকেটারকে বিশ্বকাপের জার্সি পরিহিত দেখা যায়। সবার পোশাকে ইংরেজি হরফে 'অস্ট্রেলিয়া' লেখা ছিল। কিন্তু ওয়ার্নারের পোশাকে লেখা ছিল 'প্রতারক'।

উল্লেখ্য, ২০১৮ সালের মার্চে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে কেপটাউন টেস্টে বল টেম্পারিং করে ধরা পড়েন ক্যামেরন ব্যানক্রফট। দলের নেতৃত্বস্থানীয় খেলোয়াড়দের নির্দেশে এই টেম্পারিং হয়েছিল বলে পরে স্বীকার করে নেন তৎকালীন অধিনায়ক স্মিথ।

টেম্পারিংয়ের প্রমাণ পাওয়ায় আইসিসি স্মিথকে এক টেস্ট নিষিদ্ধ করেছিল, জরিমানায় পার পেয়েছিলেন ব্যানক্রফট। ওয়ার্নার কোনো শাস্তিই পাননি। কিন্তু দেশটির বোর্ড ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া (সিএ) স্মিথ ও ওয়ার্নারকে এক বছরের জন্য নিষিদ্ধ করে। আর ব্যানক্রফট নিষেধাজ্ঞা পান নয় মাসের জন্য।

Comments

The Daily Star  | English

US supports a prosperous, democratic Bangladesh

Says US embassy in Dhaka after its delegation holds a series of meetings with govt officials, opposition and civil groups

1h ago