দ্রুত বিচার আইনের মেয়াদ বাড়ছে ৫ বছর

দ্রুত বিচার আইনের মেয়াদ আরও পাঁচ বছর বৃদ্ধি করা হচ্ছে। তেজগাঁওয়ে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে মন্ত্রিসভার বৈঠকে আইন-শৃঙ্খলা বিঘ্নকারী অপরাধ (দ্রুত বিচার) আইনটির সংশোধনী খসড়ার অনুমোদন দেওয়া হয়। আইনটির মেয়াদ বেড়ে ২০২৪ সাল করা হচ্ছে।
govt logo

দ্রুত বিচার আইনের মেয়াদ আরও পাঁচ বছর বৃদ্ধি করা হচ্ছে। তেজগাঁওয়ে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে মন্ত্রিসভার বৈঠকে আইন-শৃঙ্খলা বিঘ্নকারী অপরাধ (দ্রুত বিচার) আইনটির সংশোধনী খসড়ার অনুমোদন দেওয়া হয়। আইনটির মেয়াদ বেড়ে ২০২৪ সাল করা হচ্ছে।

মন্ত্রিসভার বৈঠকে সিদ্ধান্ত সম্পর্কে জানাতে গিয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব শফিউল আলম আইনটির মেয়াদ বৃদ্ধির কারণ সম্পর্কে বলেন, অনেকগুলো স্পর্শকাতর মামলা বিচারাধীন রয়েছে। এই মামলাগুলোর দ্রুত বিচার সম্পন্ন করতে এই আইনের দরকার।

আইন শৃঙ্খলা বিঘ্নকারী অপরাধ, চাঁদাবাজি, ভাঙচুর, টেন্ডারবাজির মতো অপরাধের দ্রুত বিচারের জন্য ২০০২ সালে এই আইন করেছিল তৎকালীন বিএনপি সরকার। প্রথমে দুই বছর আইনটি কার্যকর রাখার কথা বলা হলেও বিভিন্ন সময় এর মেয়াদ বাড়ানো হয়েছে। সরকার পরিবর্তন হলেও এই আইনের ক্ষেত্রে বিশেষ কোনো পরিবর্তন আসেনি।

২০১৪ সালে এই আইনটির সর্বশেষ সংশোধন করা হয়েছিল। তখন এর মেয়াদ ২০১৯ সালের ৭ এপ্রিল পর্যন্ত বৃদ্ধি করা হয়। নতুন সংশোধনী পাসের মাধ্যমে এর মেয়াদ আরও পাঁচ বছর বাড়বে।

সহিংসতার ঘটনায় বিচারের ক্ষেত্রে আইনি দীর্ঘসূত্রিতা এড়ানোর জন্য এই আইনের যৌক্তিকতার কথা বলা হলেও বাস্তবে আইনটির প্রয়োগ নিয়ে ভিন্নমত রয়েছে। বার বার সংশোধনী এনে আইনটির মেয়াদ বাড়ানো নিয়েও আপত্তি রয়েছে সুশীল সমাজের প্রতিনিধিদের মধ্যে।

Comments

The Daily Star  | English
Bangladesh lacking in remittance earning compared to four South Asian countries

Remittance hits eight-month high

In February, migrants sent home $2.16 billion, up 39% year-on-year

1h ago