স্মিথ-ওয়ার্নারের ফেরার ম্যাচে আফগানদের নিয়ে সতর্ক অসিরা

২০১৮ সালের ২৮ জানুয়ারি। পার্থে পাঁচ ম্যাচ সিরিজের শেষ ওয়ানডেতে ইংল্যান্ডের মুখোমুখি হয়েছিল অস্ট্রেলিয়া। ওই ম্যাচে একসঙ্গে খেলেছিলেন স্টিভেন স্মিথ ও ডেভিড ওয়ার্নার। এরপর কালো অধ্যায়। মার্চে কেপটাউন টেস্টে বল টেম্পারিং কেলেঙ্কারিতে জড়িয়ে পুরো এক বছর আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে নির্বাসনে কাটান স্মিথ ও ওয়ার্নার।
smith and warner
ছবি: ক্রিকইনফো থেকে নেওয়া

২০১৮ সালের ২৮ জানুয়ারি। পার্থে পাঁচ ম্যাচ সিরিজের শেষ ওয়ানডেতে ইংল্যান্ডের মুখোমুখি হয়েছিল অস্ট্রেলিয়া। ওই ম্যাচে একসঙ্গে খেলেছিলেন স্টিভেন স্মিথ ও ডেভিড ওয়ার্নার। এরপর কালো অধ্যায়। মার্চে কেপটাউন টেস্টে বল টেম্পারিং কেলেঙ্কারিতে জড়িয়ে পুরো এক বছর আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে নির্বাসনে কাটান স্মিথ ও ওয়ার্নার।

সেই শাস্তির মেয়াদ শেষে অসি জার্সিতে ফিরেছেন দুজনে। তারা খেলেছেন বিশ্বকাপের আগে প্রস্তুতি ম্যাচগুলোতে। কোনোটাই অবশ্য অফিসিয়াল ওয়ানডে হিসেবে স্বীকৃতি পায়নি। তাই আজ (১ জুন) আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়েই অস্ট্রেলিয়া জাতীয় দলে নিজেদের নতুন যাত্রা শুরু করবেন দুজনে। দীর্ঘ ১৫ মাস পর ওয়ানডে খেলতে যাচ্ছেন তারা। স্মিথের একাদশে থাকাটা নিশ্চিতই ছিল। চোটে থাকা ওয়ার্নারকে নিয়ে ছিল শঙ্কা। তবে ফিটনেস পরীক্ষায় উতরে গেছেন তিনি।

বর্তমান বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়া ও মাত্র দ্বিতীয়বারের মতো বিশ্বকাপ খেলতে যাওয়া আফগানদের মধ্যকার ম্যাচের ভেন্যু ব্রিস্টল কাউন্টি গ্রাউন্ড। ম্যাচ শুরু বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টায়। শক্তির বিচারে দুদলের বিস্তর ব্যবধান হলেও আফগানদের হালকাভাবে নিচ্ছেন না অসি অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চ।

ম্যাচের আগের দিন (৩১ মে) সংবাদ সম্মেলনে তিনি জানান, ‘আফগানিস্তান বিশ্ব মানের দল হিসেবে নিজেদের প্রতিষ্ঠিত করার প্রক্রিয়ার মধ্যে আছে। বিশ্বের সেরা কিছু বোলার তাদের দলে আছে। ব্যাটিংটাও ক্রমশ উন্নতি করছে। এই ধরনের দলের মুখোমুখি হওয়ার ক্ষেত্রে আপনি আগেভাগে কিছু বলতে পারেন না। তারা খুবই বিপজ্জনক। বিশ্বজুড়ে বিভিন্ন ঘরোয়া লিগগুলোতে তাদের খেলোয়াড়রা শক্তিশালী পারফরম্যান্স উপহার দিয়ে আসছে।’

সবশেষ ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে (আইপিএল) সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক ছিলেন ওয়ার্নার। ৬৯.২ গড়ে ৬৯২ রান করেছিলেন তিনি। স্মিথের আইপিএল ততটা ভালো না কাটলেও প্রস্তুতি ম্যাচে রানের বন্যা বইয়ে দিয়েছেন সাবেক এই অসি অধিনায়ক। অস্ট্রেলিয়ার ছয়টি প্রস্তুতি ম্যাচে ১৩১.৩৩ গড়ে রান তুলেছেন তিনি।

রানের মধ্যে থাকলেও স্মিথ-ওয়ার্নারকে নিয়ে শঙ্কা অন্যখানে। ইংলিশ দর্শকদের সামনে ব্যাটিং করাটা সহজ হবে না তাদের জন্য। প্রস্তুতি ম্যাচগুলোতে তার প্রমাণ মিলেছে। তাদের দুজনকে পুরোটা সময় দুয়ো দিয়েছেন ইংলিশ সমর্থকরা। নানা বিদ্রুপ উড়ে এসেছে গ্যালারি থেকে। তবে স্মিথ জানিয়েছেন, এসব গায়ে মাখছেন না তিনি। মাঠের খেলাতেই মনোযোগ তার।

ওয়ানডেতে এখন পর্যন্ত দুবার মুখোমুখি হয়েছে অস্ট্রেলিয়া ও আফগানিস্তান। দুটি ম্যাচই জিতেছে অসিরা। গেল বিশ্বকাপে মুখোমুখি হয়েছিল দুদল। ওই ম্যাচে ওয়ার্নার খেলেছিলেন ১৭৮ রানের মহাকাব্যিক ইনিংস। স্মিথ করেছিলেন ৯৫ রান। অসিরা জিতেছিল ২৭৫ রানে।

সম্ভাব্য একাদশ:

অস্ট্রেলিয়া:

অ্যারন ফিঞ্চ (অধিনায়ক), ডেভিড ওয়ার্নার, উসমান খাজা/শন মার্শ, স্টিভেন স্মিথ, গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, মার্কাস স্টয়িনিস, অ্যালেক্স ক্যারে (উইকেটরক্ষক), প্যাট কামিন্স, নাথান কোল্টার-নাইল, মিচেল স্টার্ক, অ্যাডাম জাম্পা।

আফগানিস্তান:

মোহাম্মদ শাহজাদ (উইকেটরক্ষক), হজরতউল্লাহ জাজাই, রহমত শাহ, আসগর আফগান, মোহাম্মদ নবি, গুলবাদিন নাইব (অধিনায়ক), নাজিবউল্লাহ জাদরান, রশিদ খান, মুজিব উর রহমান, হামিদ হাসান, দৌলত জাদরান।

Comments

The Daily Star  | English

International Mother Language Day: Languages we may lose soon

Mang Pu Mro, 78, from Kranchipara of Bandarban’s Alikadam upazila, is among the last seven speakers, all of whom are elderly, of Rengmitcha language.

13h ago