বহুদিন পর সড়কপথে ঈদযাত্রা স্বস্তিদায়ক হচ্ছে: কাদের

এবার সড়কপথে ঈদযাত্রা স্বস্তিদায়ক হচ্ছে দাবি করে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, “ইতিহাসে এমন স্বস্তিদায়ক ঈদ যাত্রা হয়নি।” তবে একই সঙ্গে পরিবহন খাতে নৈরাজ্য থাকার কথাও স্বীকার করলেন তিনিও।
obaidul qader
আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। ফাইল ছবি

এবার সড়কপথে ঈদযাত্রা স্বস্তিদায়ক হচ্ছে দাবি করে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, “ইতিহাসে এমন স্বস্তিদায়ক ঈদ যাত্রা হয়নি।” তবে একই সঙ্গে পরিবহন খাতে নৈরাজ্য থাকার কথাও স্বীকার করলেন তিনিও।

ওবায়দুল কাদের আজ সোমবার সচিবালয়ে মন্ত্রণালয়ের সভা কক্ষে সমসাময়িক বিষয় নিয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে একথা বলেন।

শুধু ঈদ নয়, সারা বছর সড়ক এরকম স্বস্তিদায়ক থাকবে উল্লেখ করে কাদের বলেন, এখন গণপরিবহনে ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম যেতে মাত্র চার ঘণ্টা সময় লাগছে। আর ব্যক্তিগত পরিবহনে গেলে লাগে মাত্র সাড়ে তিন ঘণ্টা।

ঢাকা ও ঢাকার বাইরে অতিরিক্ত বাস ভাড়া নেওয়া বিষয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, “আমি নিজে দুটি টার্মিনাল পরিদর্শন করেছি। যাত্রীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত ভাড়া নেওয়ার অভিযোগ আছে। বাস মালিকরা বলছেন, ফেরার পথে খালি আসতে হয় বলেই অতিরিক্ত ভাড়া নেওয়া হচ্ছে। তাই, বাস মালিকদের বলেছি, সংযমী হোন।”

পরিবহন খাতে শৃঙ্খলার অভাবের কথা স্বীকার করে তিনি বলেন, “সড়ক ও পরিবহন খাতে শৃঙ্খলা নেই। এখন আমাদের সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ এ খাতে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনা। এটা করতে পারলে শৃঙ্খলাসহ যোগাযোগ ব্যবস্থা ভালো হবে।”

ওবায়দুল কাদের বলেন, ঢাকায় যানজট, জনজট ও জলজট এ তিন মিলে একাকার। এই জট নিরসনে শিগগিরই পদক্ষেপ নিতে হবে। এবিষয়ে ঈদের পর ডিটিসিএ এর সভা হবে। সেখানে দুই সিটির মেয়রও থাকবে। বছরের পর বছর ধরে ঢাকা শহরে বিশৃঙ্খলা চলছে। এখানে আমাদেরও কিছু পরিকল্পনা আছে। দিস্তার পর দিস্তা কাগজ আমরা পরিকল্পনায় নষ্ট করেছি। কোনো লাভ হয়নি। এখন আমরা ঢাকা সিটির যানজট নিয়ন্ত্রণের ব্যবস্থা নেবো।

কাদের জানান, ২০২১ সালের মধ্যে মেট্রোরেল পুরোপুরি চালু হবে। শুধুমাত্র অবকাঠামোগত পরিবর্তনের মাধ্যমে যানজট নিরসন সম্ভব নয়। এজন্য শৃঙ্খলা আনাসহ মানুষের মানসিকতার পরিবর্তন প্রয়োজন। ২০৩০ সালের মধ্যে সরকারের পরিকল্পনা অনুযায়ী ছয়টি প্রকল্প বাস্তবায়ন করতে পারলে আশা করছি ঢাকা থেকে পুরোপুরি যানজট নিরসন সম্ভব হবে।

Comments

The Daily Star  | English

1.6m marooned in Sylhet flood

Eid has not brought joy to many in Sylhet region as homes of more than 1.6 million people were flooded and nearly 30,000 were forced to move to shelter centres.

2h ago