‘বন্যা নিয়ে আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই’

পানিসম্পদ উপমন্ত্রী এ কে এম এনামুল হক শামীম বলেছেন, বন্যা ও নদী ভাঙনের ক্ষয়ক্ষতি মোকাবিলায় সরকারের আগাম প্রস্তুতি রয়েছে। এজন্য আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই।
পানিসম্পদ উপমন্ত্রী এ কে এম এনামুল হক শামীম শনিবার বিকেলে মানিকগঞ্জের শিবালয় ও ঘিওর উপজেলার দুটি প্রাইমারি স্কুল এবং ভাঙন কবলিত এলাকা পরিদর্শন করেন। ছবি: স্টার

পানিসম্পদ উপমন্ত্রী এ কে এম এনামুল হক শামীম বলেছেন, বন্যা ও নদী ভাঙনের ক্ষয়ক্ষতি মোকাবিলায় সরকারের আগাম প্রস্তুতি রয়েছে। এজন্য আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই।

তিনি শনিবার বিকেলে মানিকগঞ্জের শিবালয় ও ঘিওর উপজেলার দুটি প্রাইমারি স্কুল এবং ভাঙন কবলিত এলাকা পরিদর্শনকালে এই কথা বলেন।

উপমন্ত্রী বলেন, দেশের ৬৫০টি জায়গা নদী ভাঙন কবলিত। এর মধ্যে ৬৫টি জায়গা ঝুঁকিপূর্ণ এবং ২৬টি জায়গা অতি ঝুঁকিপূর্ণ। সেগুলো সনাক্ত করে ইতিমধ্যে কাজ শুরু হয়েছে। শিক্ষা ও ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান রক্ষায় গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে সর্বোচ্চ। তিনি বলেন, বর্ষার পর ঝুঁকিপূর্ণ জায়গাগুলোতে স্থায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে সরকার এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ঐক্যবদ্ধ হয়ে বন্যা ও ভাঙন কবলিত মানুষের পাশে রয়েছে।

উপমন্ত্রী আরও বলেন, ভাঙনরোধে আমরা আগাম ব্যবস্থার জন্য জিও ব্যাগ প্রস্তুত করেছিলাম সেগুলো এখন ব্যবহার করছি। আমাদের পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা আছে স্কুল-কলেজ, মসজিদ-মাদ্রাসা-মন্দিরকে সর্বচ্চ গুরুত্ব দিয়ে রক্ষা করার ব্যবস্থা করতে হবে।

ভাঙনকবলিত এলাকা পরিদর্শনকালে মন্ত্রীর সঙ্গে ছিলেন, পানি উন্নয়ন বোর্ডের মহাপরিচালক মাহফুজুর রহমান, প্রধান প্রকৌশলী অখিল কুমার বিশ্বাস, ঢাকা সার্কেলের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী মো. আবদুল মতিন সরকার, মানিকগঞ্জের নির্বাহী প্রকৌশলী মাহবুবে মাওলা মেহেদী হাসান, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান গোলাম মহীউদ্দীন, পুলিশ সুপার রিফাত রহমান শামীম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক বাবুল মিয়া, শিবালয় উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান রেজাউর রহমান খান জানু এবং জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান আব্দুল কুদ্দুস।

Comments