সক্ষমতার চেয়ে ঢাকা মেডিকেলে ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা বেশি

ডেঙ্গু রোগীদের নিয়ে হিমশিম খাচ্ছে দেশের সবচেয়ে বড় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল (ঢামেক)। রাজধানীতে ডেঙ্গু জ্বরের প্রাদুর্ভাবের ফলে প্রতিদিনই বাড়ছে রোগীর সংখ্যা। সক্ষমতার চেয়ে বেশি রোগী ভর্তি হওয়ায় বাড়তি রোগীদের সেবা দিতে বেশ বেগ পেতে হচ্ছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে।
DMCH
২৮ জুলাই ২০১৯, ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বিছানা ও মেঝেতে ডেঙ্গু রোগীদের ভিড়। ছবি: পিনাকী রায়

ডেঙ্গু রোগীদের নিয়ে হিমশিম খাচ্ছে দেশের সবচেয়ে বড় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল (ঢামেক)। রাজধানীতে ডেঙ্গু জ্বরের প্রাদুর্ভাবের ফলে প্রতিদিনই বাড়ছে রোগীর সংখ্যা। সক্ষমতার চেয়ে বেশি রোগী ভর্তি হওয়ায় বাড়তি রোগীদের সেবা দিতে বেশ বেগ পেতে হচ্ছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে।

ঢামেক পরিদর্শনকালে আমাদের জ্যেষ্ঠ সংবাদদাতা বলেন, অধিকাংশ ডেঙ্গু রোগীকে হাসপাতালের বারান্দা ও সিঁড়িতে চিকিৎসাসেবা নিতে দেখা যাচ্ছে।

হাসপাতালের জরুরি বিভাগে কর্মরত ব্যক্তিরা আমাদের সংবাদদাতাকে জানান, তাদের সক্ষমতা রয়েছে ২০০ জনকে চিকিৎসাসেবা দেওয়ার। কিন্তু, রোগীর সংখ্যা এর চেয়ে অনেক বেশি।

ঢামেকের নবমতলায় ডেঙ্গু রোগীদের জন্যে বিশেষ ব্যবস্থা রাখা হলেও সেখানে প্রতিটি বিছানায় ভর্তি রয়েছেন ডেঙ্গু রোগী। সেই তলার বারান্দায় এমনকী, প্রবেশপথে শুয়ে রোগীদের ডেঙ্গু চিকিৎসার সেবা নিতে দেখা যায়।

DMCH
২৮ জুলাই ২০১৯, ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের নবমতলার প্রবেশপথে চিকিৎসা নিচ্ছেন ডেঙ্গু রোগীরা। ছবি: পিনাকী রায়

এ বছর রেকর্ড সংখ্যক ডেঙ্গু রোগী রাজধানীর বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সূত্র মতে, গত ২৭ জুলাই পর্যন্ত অন্তত ১০ হাজার ৫২৮ জন মশাবাহিত রোগে আক্রান্ত হয়েছেন। গত বছর সেই সংখ্যা ছিলো ১০ হাজার ১৪৮ জন।

গত ১৮ বছরে ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা ১০ হাজারের বেশি হয়েছে মাত্র দুবার। এর আগে ২০০২ সালে রোগীর সংখ্যা ছিলো ৬ হাজার ২৩২ জন।

রাজধানীর বিভিন্ন হাসপাতালের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষরা জানান যে ডেঙ্গু রোগে আক্রান্ত হয়ে এখন পর্যন্ত অন্তত ৩০ জনের মৃত্যু হয়েছে। তবে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের দাবি, ডেঙ্গু জ্বরে মৃতের সংখ্যা আট।

আরো পড়ুন:

ডেঙ্গু বিষয়ে অধ্যাপক ডা. এবিএম আব্দুল্লাহ’র পরামর্শ

ঢাকায় ৪ মাসে এডিস মশা বেড়েছে ৬ গুণ

Comments

The Daily Star  | English
62% young women not in employment, education

62% young women not in employment, education

Three out of five young women in Bangladesh were considered NEETs (not in employment, education, or training) in 2022, a waste of the workforce in a country looking to thrive riding on the demographic dividend, official figures showed.

10h ago