কতটুক মজা করি ড্রেসিংরুমে এসে দেখতে পারেন: মাহমুদউল্লাহ

বিশ্বকাপে ভালো করতে পারেননি, চূড়ান্ত খারাপ কেটেছে শ্রীলঙ্কা সফর। মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের সময়টা এমনিতেই খারাপ যাচ্ছিলো। তারমধ্যে বিশ্বকাপ চলাকালীন সাকিব আল হাসানের সঙ্গে তার মনোমালিন্যের খবর বেরিয়েছে কিছু গণমাধ্যমে। সব মিলিয়ে বেশ কিছুদিন গণমাধ্যমকেও এড়িয়ে চলছিল তিনি। ঘরের মাঠে নতুন সিরিজ শুরুর আগে অবশেষে কথা বলেছেন তিনি, উড়িয়ে দিয়েছেন নেতিবাচক সব কিছুই।
Mahmudullah
মাহমুদউল্লাহ। ফাইল ছবি

বিশ্বকাপে ভালো করতে পারেননি, চূড়ান্ত খারাপ কেটেছে শ্রীলঙ্কা সফর। মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের সময়টা এমনিতেই খারাপ যাচ্ছিলো। তারমধ্যে বিশ্বকাপ চলাকালীন সাকিব আল হাসানের সঙ্গে তার মনোমালিন্যের খবর বেরিয়েছে কিছু গণমাধ্যমে। সব মিলিয়ে বেশ কিছুদিন গণমাধ্যমকেও এড়িয়ে চলছিল তিনি। ঘরের মাঠে নতুন সিরিজ শুরুর আগে অবশেষে কথা বলেছেন তিনি, উড়িয়ে দিয়েছেন নেতিবাচক সব কিছুই।

রোববার আফগানিস্তানের বিপক্ষে টেস্ট ও ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজের জন্য কন্ডিশনিং ক্যাম্প শুরু করেছেন ৩৫ জনের স্কোয়াড। মাহমুদউল্লাহ অবশ্য নিজ তাগিদে আগেই শুরু করেছিলেন নিজের অনুশীলন।

প্রথম দিনের অনুশীলন শেষে সংবাদ মাধ্যমের সামনে হাজির হয়ে জানালেন তাকে ঘিরে কিছু খবর ভুলভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে, ‘কিছু কিছু জিনিস যেভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে ওভাবে সম্ভবত জিনিসটা হয়নি বা উপস্থাপনটা ভিন্নভাবে হতে পারত। আমি শুধু এতটুকুই বলতে চাই, আমার মনে হয় না সঙ্গে কোনো টিম মেটের সঙ্গে গণ্ডগোল বা কোনো কিছু আছে। আমরা খুব ভাল বন্ধু।’

বাংলাদেশ দলের সবাই সবার সঙ্গে কতটা ঘনিষ্ঠ তা বারবার করে বোঝাতে চাইলেন তিনি,  ‘ড্রেসিংরুমে চাইলে আপনারা আসতে পারেন আমরা কীভাবে একজন আরেকজনের সঙ্গে কথা বলি। একজন আরেকজনের সঙ্গে কতটুক মজা করি, কত ভালোভাবে সময় কাটাই। আপনাদের স্বাগত জানাই চাইলে এসে দেখতে পারেন। আমি শতভাগ চেষ্টা করে যাচ্ছি আমি যেন সবার সঙ্গে ভালভাবে থাকতে পারি এবং দলের জন্য ভাল খেলতে পারি। সবসময় এ কথাটা বলি এবং আজও এটি বললাম, ভবিষ্যতেও বলব যদি সবকিছু ঠিক থাকে।’

বিশ্বকাপের পুরো সময়টায় গণমাধ্যমের সামনে হাজির হতে দেখা যায়নি তাকে। এর কারণ হিসেবে বাংলাদেশের সিনিয়র এই ক্রিকেটার বললেন তিনি অপেক্ষায় ছিলেন ভালো কোন পারফরম্যান্সের,  ‘না না। আমি মিডিয়ার বাইরে ছিলাম না। সঠিক সময়ের জন্য অপেক্ষা করছিলাম। যেন আমি ভাল কিছু করে আপনাদের সামনে আসতে পারি এটার জন্য অপেক্ষা করছিলাম। এর মধ্যে গত সিরিজটা আমার ভালো হয়নি। আমার মনে হয় বিশ্বকাপটা মোটামুটি ভালই খেলেছি। শেষ সিরিজটা খারাপ গিয়েছে।’  

Comments

The Daily Star  | English

Dhaka footpaths, a money-spinner for extortionists

On the footpath next to the General Post Office in the capital, Sohel Howlader sells children’s clothes from a small table.

7h ago