বার্সেলোনা শিবিরে আবার চোটের হানা, মাঠের বাইরে দেম্বেলে

মৌসুমের শুরু থেকেই একের পর এক চোট সমস্যায় বেশ বিপাকে পড়েছে বার্সেলোনা। লিওনেল মেসি-লুইস সুয়ারেজের পর চোটের কারণে ছিটকে গেছেন ফরোয়ার্ড ওসমান দেম্বেলেও।
ousmane dembele
ওসমান দেম্বেলে। ছবি: এএফপি

মৌসুমের শুরু থেকেই একের পর এক চোট সমস্যায় বেশ বিপাকে পড়েছে বার্সেলোনা। লিওনেল মেসি-লুইস সুয়ারেজের পর চোটের কারণে ছিটকে গেছেন ফরোয়ার্ড ওসমান দেম্বেলেও।

সোমবার (১৯ অগাস্ট) বার্সার পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, হ্যামস্ট্রিংয়ের চোটে পড়েছেন দেম্বেলে। ফলে আগামী পাঁচ সপ্তাহ মাঠের বাইরে থাকতে হবে এই ফরাসিকে।

চোটের সঙ্গে দেম্বেলের সখ্যতা বেশ পুরনো। ২০১৭ সালে বার্সায় যোগ দেওয়ার পর থেকেই চোটের সঙ্গে লড়াই করছেন তিনি। বড় ধরনের হ্যামস্ট্রিংয়ের চোটে শুরুতেই তিন মাসের জন্য ছিটকে গিয়েছিলেন তিনি। সেরে উঠে দলে ফেরার পর মাংসপেশির নানা রকমের সমস্যায় আবার এক মাসের জন্য চলে যান মাঠের বাইরে।

গেল মৌসুমের শুরুতে বার্সার মূল একাদশের অন্যতম সদস্য হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে পেরেছিলেন দেম্বেলে। কিন্তু দ্বিতীয়ভাগে তিন-তিনবার চোটে পড়েন তিনি। প্রথমে গোড়ালিতে, এরপর পায়ের মাংসপেশিতে এবং সবশেষে হ্যামস্ট্রিংয়ের চোট।

তবে দেম্বেলে চোটে পড়েছিলেন গত শুক্রবারই, অ্যাথলেটিক বিলবাওয়ের বিপক্ষে ম্যাচে। তবে প্রাথমিকভাবে এ চোটকে গুরুতর ভাবেনি বার্সেলোনা। তবে আগের দিন নিশ্চিত হওয়া গেছে, চোট কাটাতে কমপক্ষে পাঁচ সপ্তাহ লাগবে। নিঃসন্দেহে ক্লাবটির জন্য এটা বড় ধাক্কা।

ন্যু ক্যাম্পে যোগ দেওয়ার পর এ নিয়ে ষষ্ঠবার চোটে পড়েছেন দেম্বেলে। সবমিলিয়ে ২৫৩ দিন তিনি ছিলেন মাঠের বাইরে। মোট ৫৪টি ম্যাচ মিস করেছেন এ তারকা। এ সময়ে বার্সেলোনা ম্যাচ খেলেছে ১২০টি। অর্থাৎ ১২০ মিলিয়ন ইউরো খরচ করে আনা খেলোয়াড়টি খেলতে পেরেছেন কেবল ৫৫ শতাংশ ম্যাচ।

এদিকে, মৌসুম শুরুর আগেই কাফ মাসলে চোট পেয়েছিলেন বার্সেলোনার প্রাণভোমরা মেসি। যে কারণে প্রাক-মৌসুম প্রস্তুতির অংশ হিসেবে দলের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রে যেতে পারেননি আর্জেন্টাইন তারকা। তিনি কবে মাঠে ফিরবেন সেটা এখনও নিশ্চিত নয়। এরপর লা লিগার প্রথম ম্যাচে অ্যাথলেটিক বিলবাওয়ের বিপক্ষে একই ধরনের চোট পান উরুগুইয়ান স্ট্রাইকার সুয়ারেজ। তার সেরে উঠতে সময় লাগবে তিন থেকে চার সপ্তাহ।

মেসি-সুয়ারেজ-দেম্বেলে চোটে থাকায় আক্রমণভাগ নিয়ে বলা চলে বিপদেই রয়েছে কাতালানরা। ফিলিপে কৌতিনহোও এরই মধ্যে ধারে বায়ার্ন মিউনিখে যোগ দিয়েছেন। ফলে ক্লাবটির ফরোয়ার্ডদের মধ্যে কেবল নতুন যোগ দেওয়া আতোঁয়ান গ্রিজম্যানই ফিট আছেন।

লিগের শুরুটা মোটেও বার্সার মনমতো হয়নি। বিলবাওয়ের মাঠে লিগের বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা হেরেছে ১-০ গোলে। আগামী রবিবার রাতে (২৬ অগাস্ট) তারা ঘরের মাঠ ন্যু ক্যাম্পে মুখোমুখি হবে রিয়াল বেতিসের।

Comments

The Daily Star  | English

Economy with deep scars limps along

Business and industrial activities resumed yesterday amid a semblance of normalcy after a spasm of violence, internet outage and a curfew that left deep wounds in almost all corners of the economy.

6h ago