শীর্ষ খবর

মহামারীর চেয়েও সড়কে মৃত্যু বেশি: সুলতানা কামাল

দেশে যেকোনো মহামারীর তুলনায় প্রতিদিন সড়কে বেশি মানুষ মারা যান বলে মন্তব্য করেছেন বিশিষ্ট মানবাধিকারকর্মী অ্যাডভোকেট সুলতানা কামাল।
১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ঢাকায় জাতীয় প্রেসক্লাবে বাংলাদেশ যাত্রী কল্যাণ সমিতি ‘যাত্রী অধিকার দিবস ঘোষণা ও আলোচনা সভা’র আয়োজন করে। ছবি: স্টার

দেশে যেকোনো মহামারীর তুলনায় প্রতিদিন সড়কে বেশি মানুষ মারা যান বলে মন্তব্য করেছেন বিশিষ্ট মানবাধিকারকর্মী অ্যাডভোকেট সুলতানা কামাল।

আজ (১৩ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবে বাংলাদেশ যাত্রী কল্যাণ সমিতি আয়োজিত ‘যাত্রী অধিকার দিবস ঘোষণা ও আলোচনা সভা’য় তিনি এ মন্তব্য করেন।

সুশাসন, জবাবদিহিতা ও প্রশাসন, পরিবহন মালিক-শ্রমিকদের দায়বদ্ধতার অভাবে এসব দুর্ঘটনা ঘটছে বলেও মন্তব্য করেন টিআইবির চেয়ারপারসন সুলতানা কামাল।

তিনি বলেন, “প্রতিদিনই সড়ক দুর্ঘটনায় অনেক মানুষ মারা যাচ্ছেন। পরিস্থিতি এমন দাঁড়িয়েছে যে কেউ বাইরে গেলে পরিবারের সদস্যরা শঙ্কায় থাকেন যে তিনি ঘরে ফিরবেন কী না।”

তার মতে, “সরকার কাউকে নিয়ন্ত্রণ করে না। এমনকী, পরিবহন মালিকরাও কাউকে নিয়ন্ত্রণ করে না।”

ট্রিপের ওপর ভিত্তি করে বাস না চালানোর পরামর্শও দেন তিনি। এছাড়াও, ফিটনেসবিহীন গাড়ি বন্ধ ও ট্রাফিক আইনের যথাযথ প্রয়োগের দাবিও জানান সুলতানা কামাল।

অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন সংসদ সদস্য ও বাংলাদেশ যাত্রী কল্যাণ সমিতির উপদেষ্টা পরিষদের সভাপতি মইনুদ্দিন খান বাদল।

তিনি বলেন, “সড়কে সাধারণ মানুষের চেয়ে ভিআইপিরা বেশি আইন ভাঙেন। যারা আইন প্রণয়ন করেন তারাই আইন ভাঙেন। এটি খুবই হতাশাজনক।”

তার মতে, বাংলাদেশের মতো আর কোনো দেশে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর চলাচলের সময় রাস্তা বন্ধ রাখা হয় না।

“প্রধানমন্ত্রী যেহেতু ব্যস্ত থাকেন তাই তিনি হেলিকপ্টার ব্যবহার করতে পারেন। তিনি কেনো রাস্তা বন্ধ রেখে জনসাধারণের দুর্ভোগ বাড়িয়ে দিবেন?” প্রশ্ন বাদলের।

Comments