ভারতের কাছে বাংলাদেশের টানা হারের কারণ ‘আগ্রাসনের অভাব’

সাম্প্রতিক সময়ে জয়ের দ্বারপ্রান্তে গিয়ে ভারতের কাছে হারটা যেন অবধারিতই হয়ে গেছে বাংলাদেশের জন্য। তা সে যে পর্যায়েই হোক না কেন। তবে সাম্প্রতিক সময়ে অনূর্ধ্ব-১৯ দলের দুঃখটা যেন একটু বেশি। অল্প সময়ের ব্যবধানে দুটি ফাইনালে ভারতের কাছে হার। তীরে গিয়ে তরী ডোবানোর মতো পরিস্থিতি। প্রায়ই কেন এমন হচ্ছে? বয়সভিত্তিক দলের অন্যতম নির্বাচক হান্নান সরকার বলছেন, আগ্রাসী মনোভাবে এগিয়ে আছে ভারতই। আর এটাই পার্থক্য গড়ে দিচ্ছে, আগ্রাসনের অভাব থাকায় বারবার হারতে হচ্ছে টাইগারদের।
bangladesh u-19 cricket
ফাইল ছবি

সাম্প্রতিক সময়ে জয়ের দ্বারপ্রান্তে গিয়ে ভারতের কাছে হারটা যেন অবধারিতই হয়ে গেছে বাংলাদেশের জন্য। তা সে যে পর্যায়েই হোক না কেন। তবে সাম্প্রতিক সময়ে অনূর্ধ্ব-১৯ দলের দুঃখটা যেন একটু বেশি। অল্প সময়ের ব্যবধানে দুটি ফাইনালে ভারতের কাছে হার। তীরে গিয়ে তরী ডোবানোর মতো পরিস্থিতি। প্রায়ই কেন এমন হচ্ছে? বয়সভিত্তিক দলের অন্যতম নির্বাচক হান্নান সরকার বলছেন, আগ্রাসী মনোভাবে এগিয়ে আছে ভারতই। আর এটাই পার্থক্য গড়ে দিচ্ছে, আগ্রাসনের অভাব থাকায় বারবার হারতে হচ্ছে টাইগারদের।

আগামীকাল (২২ সেপ্টেম্বর) সোমবার নিউজিল্যান্ডের উদ্দেশ্যে ঢাকা ছাড়বে অনূর্ধ্ব-১৯ দল। এর আগে ভারতের কাছে টানা হারের আক্ষেপ ঝরল হান্নানের কণ্ঠে, 'গত অনূর্ধ্ব-১৯ এশিয়া কাপ যেটা বাংলাদেশে সঙ্গে হলো, সেটাতে ২ রানে হারলাম। ত্রিদেশীয় যে টুর্নামেন্টটা হলো ইংল্যান্ডে, সেখানেও ভারতের কাছে ফাইনালে আমরা হারলাম। সবশেষ এশিয়া কাপের ফাইনালেও হারলাম ৫ রানে। তিনটা নক-আউট ম্যাচে হেরেছি। গ্রুপ পর্বে ইংল্যান্ডে কিন্তু আমরা একটি ম্যাচ জিতেছিলাম। কিন্তু নক-আউট মঞ্চে এসে কেন পারছি না... সিনিয়র (জাতীয়) দলে যেমন হচ্ছে, আমাদের জুনিয়ররাও কিন্তু তেমনই করল।'

আর এর কিছু কারণও উল্লেখ করেছেন এ নির্বাচক, 'আমার কাছে মনে হয়, কিছুটা চাপের পরিস্থিতি তৈরি হয়। কারণ আমরা জানি যে, ভারত খুব আগ্রাসী ক্রিকেট খেলে। ওদের সিনিয়ররা যেমন, আর এই অনূর্ধ্ব-১৯ দলও দেখলাম, ওরাও একই মনোভাব নিয়েই খেলে। সেই জায়গাটায় আমার মনে হয়, আমরা এখনও একটু পিছিয়ে আছি। স্বীকার করতে দ্বিধা নেই যে, আমরা যতটা প্রতিযোগিতামূলক ক্রিকেট খেলি, ভারত তার চেয়ে বেশি খেলে। তাদের যে আগ্রাসী মনোভাবটা সেটা তুলনা করলে আমরা হয়তো একটু পিছিয়ে আছি।'

তবে বিশ্ব ক্রিকেটে টিকে থাকতে হলে এ সমস্যা থেকে দ্রুতই উতরে উঠতে হবে বলেও জানান হান্নান, 'সময়ের সঙ্গে সঙ্গে এটার (আগ্রাসী মনোভাবের) উন্নতি করতেই হবে। কারণ বিশ্বের এক নম্বর দলরা এমন আক্রমণাত্মকই হবে যেটা আমরা অস্ট্রেলিয়াকে দেখি, ভারতকে সবসময়ই দেখে আসছি। আমার মনে হয়, এই জায়গাটায় কিছুটা বাধা রয়েছে। তবে এটা জয় করতে হবে খুব শীঘ্রই।'

ঘাটতি পোষাতে নিজেরা কিছু পদক্ষেপও নিয়েছেন বলেও জানালেন হান্নান, 'আমরা ইংল্যান্ডে খেলে আসলাম। এখন নিউজিল্যান্ডে খেলতে যাচ্ছি। এই যে প্রস্তুতি, এগুলো কিন্তু আত্মবিশ্বাস তৈরি করে। আপনি যখন এ ধরনের কন্ডিশনে ভালো ক্রিকেট খেলতে থাকবেন, তখন নিজের মধ্যে আত্মবিশ্বাসটা বাড়তে থাকে যে, আমরা ভালো দল কিংবা ভালো ক্রিকেট খেলছি। সে জিনিসগুলো যখন আসা শুরু করবে, তখন আত্মবিশ্বাস কিংবা এই যে প্রতিযোগিতামূলক মনোভাবটা সেটা বেড়ে যাবে।'

'আপনি দেখবেন, ভারত কিন্তু সময়ের সঙ্গে সঙ্গে আজ বিশ্ব ক্রিকেট শাসন করছে এ ধরনের পারফরম্যান্সের মাধ্যমেই। আমাদের অনূর্ধ্ব-১৯ দলও যখন এ ধরনের ভালো খেলতে খেলতে উপরের দিকে উঠে আসবে, তাদের সে জায়গায় তখন অনেক উন্নতি হবে। আমি নিশ্চিত, নিউজিল্যান্ড সফরটাও আমরা এভাবেই চিন্তা করছি। আমরা ৫টা ওয়ানডে খেলব। আমি খুবই আশাবাদী যে, সিরিজটা জিতব। এমনকি ফল ৫-০ হলেও আমরা অবাক হব না,' যুবারা উন্নতির পথে রয়েছে দাবি করে এমনটাই বলেছেন হান্নান।

Comments

The Daily Star  | English

Wildlife Trafficking: Bangladesh remains a transit hotspot

Patagonian Mara, a somewhat rabbit-like animal, is found in open and semi-open habitats in Argentina, including in large parts of Patagonia. This herbivorous mammal, which also looks like deer, is never known to be found in this part of the subcontinent.

4h ago