ফেরি চলাচল ব্যাহত, আরিচায় ট্রাকের দীর্ঘ সারি

নদীতে প্রবল স্রোত এবং রাজবাড়ির দৌলতদিয়া ঘাটের কাছে নদী ভাঙনের কারণে পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌপথে ফেরি চলাচল মারাত্মকভাবে ব্যাহত হচ্ছে।
৪ অক্টোবর ২০১৯, পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌপথে ফেরি চলাচল ব্যাহত হওয়ায় আরিচাঘাটের কাছে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের ওপর পণ্যবাহী ট্রাকগুলো আটকে রেখেছে পুলিশ। ছবি: স্টার

নদীতে প্রবল স্রোত এবং রাজবাড়ির দৌলতদিয়া ঘাটের কাছে নদী ভাঙনের কারণে পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌপথে ফেরি চলাচল মারাত্মকভাবে ব্যাহত হচ্ছে।

ঘাট এলাকায় যানজট এড়াতে এবং যাত্রীদের চলাচল স্বাভাবিক রাখতে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে পার করা হচ্ছে যাত্রীবাহী বাস, প্রাইভেট কার ও মাইক্রোবাসগুলিকে। একারণে পাটুরিয়া ও দৌলতদিয়া- উভয় ঘাটে আটকা পড়েছে শত শত পণ্যবাহী ট্রাক।

আজ (৪ অক্টোবর) সকাল ১১টা পর্যন্ত পাটুরিয়াঘাটের অদূরে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের ওপর প্রায় চার কিলোমিটার এলাকাজুড়ে আটকে রাখা হয়েছে পণ্যবাহী ট্রাক। দিনের পর দিন আটকা পড়ে থাকায় ভোগান্তিতে পড়েছেন এসব ট্রাকের চালক ও সহযোগীরা।

মহাসড়কে আটকে থাকা ট্রাকচালক এবং সহযোগীরা দ্য ডেইলি স্টারকে জানান, গত তিনদিন ধরে তারা এই এলাকায় আটকে রয়েছেন। সেখানে কোনো ধরণের হোটেল কিংবা টয়লেট না থাকায় নানা সমস্যায় পড়েছেন তারা। অনেকেই বলেছেন, তাদের হাতে থাকা প্রায় সব টাকাই শেষ হয়ে গেছে। আরো দু-একদিন আটকা থাকলে তারা কী খাবেন তা নিয়ে চিন্তিত আছেন।

কেউ কেউ বলছেন, তাদের ট্রাকগুলোকে মহাসড়কের উপর দাঁড় করিয়ে না রেখে আরিচায় অবস্থিত বিআইডব্লিউটিএর ট্রাক টার্মিনালে রাখা হলে দুর্ভোগ কিছুটা কমতো। ওই এলাকার বাসিন্দারাও ব্যক্ত করেন এমন অভিমত।

পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌপথে ফেরি চলাচল ব্যাহত হওয়ায়, আরিচায় বিকল্প ফেরিঘাট চালু করার দাবি জানান অনেকেই।

ট্রাকচালক মো. আব্দুল মালেক বলেন, তিনি ২ অক্টোবর রাতে পণ্যবোঝাই করে কুষ্টিয়া যাওয়ার উদ্দেশ্যে ঢাকা ছেড়ে আসেন। প্রথমে তাকে ধামরাইবাথুলী লোড কন্ট্রোল স্টেশনে আটকা রাখে পুলিশ। সেখান থেকে ছেড়ে আসার পর ৩ অক্টোবর সকালে মানিকগঞ্জের শিবালয় উপজেলার মহদেবপুর এলাকায় তাকে দ্বিতীয় দফায় আটকে রাখা হয়। দুপুরে উথলী সংযোগ মোড়ে আসলে পুলিশ তাকে পাটুরিয়াঘাটের দিকে যেতে না দিয়ে আরিচার দিকে পাঠিয়ে দেয়। কবে তিনি ফেরিতে উঠতে পারবেন তা বলতে পারছেন না।

ট্রাকচালক সোহেল মিয়া বলেন, তিনি ৩ অক্টোবর রাত সাড়ে ৮টার দিকে উথলী সংযোগ মোড়ে আসলে পুলিশ তার ট্রাকটি পাটুরিয়া যাওয়ার পথে আটকে দেয় এবং আরিচার দিকে পাঠিয়ে দেয়। আজ সকালে আরিচাঘাটের কাছে এসে মহাসড়কের উপর সারিবদ্ধভাবে অপেক্ষায় থাকতে হয় তাকে। পয়ঃনিষ্কাশন ও খাবারের অভাবে ভীষণ অসুবিধা হচ্ছে জানান তিনি আরো বলেন, “কখন যে আমাদের এ ভোগান্তি শেষ হবে তা বলতে পারছি না।”

ট্রাক হেলপার সানোয়ার হোসেন বলেন, নারায়ণগঞ্জ থেকে পণ্যবোঝাই করে তার ট্রাক ২ অক্টোবর রাতে উথলী সংযোগ মোড়ে আসলে পুলিশ তা আটকে দেয়।

এ পরিস্থিতিতে আরিচায় বিকল্প ফেরিঘাট চালুর দাবি জানান এসব ভুক্তভোগী ট্রাক শ্রমিকরা।

Comments

The Daily Star  | English

International Mother Language Day: Languages we may lose soon

Mang Pru Marma, 78, from Kranchipara of Bandarban’s Alikadam upazila, is among the last seven speakers, all of whom are elderly, of Rengmitcha language.

7h ago