ফেনী নদীর পানি যাবে ত্রিপুরায়

ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে দিয়ে প্রবাহিত ফেনী নদীর পানি প্রত্যাহারের জন্য ভারতকে অনুমতি দিয়েছে বাংলাদেশ। নদীটি থেকে ১ দশমিক ৮২ কিউসেক (ঘনমিটার প্রতি সেকেন্ড) পানি তুলে নিবে ভারত। এই পানি দিয়ে ত্রিপুরার সাবরুম শহরে পানীয় জলের চাহিদা পূরণ হবে।
বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি নয়দিল্লিতে বৈঠক করেন। ছবি: পিআইডি

ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে দিয়ে প্রবাহিত ফেনী নদীর পানি প্রত্যাহারের জন্য ভারতকে অনুমতি দিয়েছে বাংলাদেশ। নদীটি থেকে ১ দশমিক ৮২ কিউসেক (ঘনমিটার প্রতি সেকেন্ড) পানি তুলে নিবে ভারত। এই পানি দিয়ে ত্রিপুরার সাবরুম শহরে পানীয় জলের চাহিদা পূরণ হবে।

ভারতের নয়াদিল্লিতে হায়দরাবাদ হাউজে আজ শনিবার অনুষ্ঠিত হয় ঢাকা-নয়াদিল্লির মধ্য দ্বিপাক্ষিক শীর্ষ বৈঠক। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বৈঠকে নিজ নিজ দেশের পক্ষে প্রতিনিধিত্ব করেন। বৈঠকে সই হওয়া সমঝোতা স্মারকের আওতায় বাংলাদেশের ফেনী নদী থেকে পানি প্রত্যাহার করতে পারবে ভারত।

দুই সরকারপ্রধানের বৈঠক শেষে তাদের উপস্থিতিতেই সাত চুক্তি সই হয়। এ সময় দুই দেশের সরকার প্রধান তিনটি যৌথ প্রকল্পের উদ্বোধন করেন।

এদিকে, শনিবার সকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে দেখা করে প্রতিবেশী বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পর্ককে ‘সর্বোচ্চ গুরুত্ব’ দেওয়ার বিষয়টি পুনর্ব্যাক্ত করেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর।

ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর ‘প্রাণবন্ত কথোপকথন’ হয়েছে।

এসময় পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেন, পররাষ্ট্রমন্ত্রী প্রতিমন্ত্রী এম শাহরিয়ার আলম, ভারতে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাই কমিশনার সৈয়দ মোয়াজ্জেম আলী এবং বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতের হাই কমিশনার রিভা দাশ গাঙ্গুলী উপস্থিত ছিলেন।

 

আরও পড়ুন:

বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পর্ককে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দেয় ভারত: জয়শঙ্কর

বাংলাদেশ-ভারতের ৭ সমঝোতা স্মারক সই, ৩ প্রকল্প উদ্বোধন

Comments

The Daily Star  | English

Loan default now part of business model

Defaulting on loans is progressively becoming part of the business model to stay competitive, said Rehman Sobhan, chairman of the Centre for Policy Dialogue.

54m ago