জাতীয় লিগের সঙ্গে ওয়ালটন থাকছে আরও তিন বছর

দেশের সবচেয়ে বড় প্রথম শ্রেণীর আসর জাতীয় ক্রিকেট লিগের কয়েক বছর থেকেই যুক্ত ছিল পণ্য প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান ওয়ালটন। চলতি মৌসুমে চুক্তি শেষ হলেও নতুন করে তাদের সঙ্গে আরও তিন বছরের চুক্তি নবায়ন করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।

দেশের সবচেয়ে বড় প্রথম শ্রেণীর আসর জাতীয় ক্রিকেট লিগের কয়েক বছর থেকেই যুক্ত ছিল পণ্য প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান ওয়ালটন। চলতি মৌসুমে চুক্তি শেষ হলেও নতুন করে তাদের সঙ্গে আরও তিন বছরের চুক্তি নবায়ন করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।

সোমবার মিরপুর শেরে বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে জাতীয় ক্রিকেট লিগের টাইটেল স্পন্সর ঘোষণা করা হয়। ইলেকট্রিক্যাল, ইলেকট্রনিকস, অটোমোবাইল, হোম অ্যাপ্লায়েন্স ও টেলিকমিউনিকেশন পণ্য প্রস্তুতকারী ওয়ালটন এবারও একমাত্র দরপত্র দিয়ে টুর্নামেন্টের সত্ত্ব কিনে নিয়েছে।

জাতীয় লিগের ২১, ২২ ও ২৩তম আসরের  জন্য দরপত্র আহ্বান করেছিল বিসিবি।  দেশের ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থার দরপত্রের আহ্বানে কেবল সাড়া দেয় ওয়ালটন। স্বভাবতই তাদের স্পন্সরশীপ পাওয়া ছিল অনুমিতই।

সংবাদ সম্মেলনে বিসিবি প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দিন চৌধুরী অবশ্য জানান ওয়ালটনের সঙ্গে তাদের পোক্ত সম্পর্কের কারণেই অন্য কারো কথা ভাবেননি তারা, ‘ওয়ালটন গ্রুপ বাংলাদেশ ক্রিকেটের ডাকে বরাবরই সাড়া দিয়ে থাকে। দেশের বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় সব সময় তারা পৃষ্ঠপোষকতায় এগিয়ে আসে।  শুধু ঘরোয়া ক্রিকেটে নয়, আন্তর্জাতিক বিভিন্ন সিরিজে ওয়ালটনের স্পন্সরশীপ দেখা যায় সব সময়। আমরা আশা করবো বিসিবির সঙ্গে ওয়ালটন গ্রুপের যে সম্পর্ক তা সামনেও বজায় থাকবে।’

প্রতিষ্ঠানটির নির্বাহী পরিচালক উদয় হাকিম জানান তারা কেবল প্রচারের জন্যই নয়, ক্রিকেটে সম্পৃক্ত থাকেন দায়বদ্ধতা থেকেই,  ‘আন্তর্জাতিক সিরিজে পৃষ্ঠপোষকতায় অনেক প্রতিষ্ঠান এগিয়ে আসে। সেখানে সবাই মাইলেজের চিন্তা করে।  কিন্তু ঘরোয়া ক্রিকেটে কাউকেই দেখা যায় না। এক্ষেত্রে ওয়ালটন গ্রুপ ব্যতিক্রম।  আমরা ঘরোয়া ক্রিকেট প্রোমোট করতে চাই।  কারণ ঘরোয়া ক্রিকেটে যদি প্রতিদ্বন্দ্বিতা দেখা যায়, ঘরোয়া ক্রিকেট যদি মানসম্পন্ন হয় তাহলে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে বাংলাদেশ ভালো করবো।  পাশাপাশি আমাদের সামাজিক দায়বদ্ধতাও আছে।  এ বছর সহ পরবর্তী দুই বছরের জন্য জাতীয় ক্রিকেট লিগের স্পন্সর ওয়ালটন। এজন্য বিসিবিকে ধন্যবাদ। দীর্ঘমেয়াদী চুক্তি করার পেছনে প্রথম কারণ বাংলাদেশের ক্রিকেটের উন্নতির সূচক উর্ধ্বমুখী। আমরা চাই এ ধারা অব্যাহত থাকুক।’

১০ অক্টোবর থেকে দেশের চার ভেন্যুতে শুরু হচ্ছে দুই স্তরের জাতীয় লিগ। জাতীয় দলের খেলা না থাকায় এই বছর প্রায় সব তারকা ক্রিকেটারকেই খেলতে দেখা যাবে এই আসরে।

Comments

The Daily Star  | English

44 lives lost to Bailey Road blaze

33 died at DMCH, 10 at the burn institute, and one at Central Police Hospital

6h ago