বার্সায় না ফিরলে রিয়ালে যাবেন নেইমার, ভেবেছিলেন মেসি

সবশেষ গ্রীষ্মকালীন দলবদলে প্যারিস সেন্ট জার্মেই (পিএসজি) থেকে নেইমারকে ফেরাতে জোর প্রচেষ্টা চালিয়েছিল বার্সেলোনা। ব্রাজিলিয়ান তারকাকে দলে টানার দৌড়ে ছিল রিয়াল মাদ্রিদ, জুভেন্টাসের মতো বড় বড় ক্লাবও। বিশেষ করে রিয়াল সভাপতি ফ্লোরেন্তিনো পেরেজ বরাবরই নেইমারের প্রতি তার মুগ্ধতার কথা জানিয়ে আসছেন। তাই মেসির আশঙ্কা ছিল, নেইমার যদি ন্যু ক্যাম্পে না ফেরেন, তবে তিনি হয়তো নাম লেখাবেন কাতালানদের চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী রিয়াল শিবিরে।
lio messi
লিওনেল মেসি। ছবি: এএফপি

সবশেষ গ্রীষ্মকালীন দলবদলে প্যারিস সেন্ট জার্মেই (পিএসজি) থেকে নেইমারকে ফেরাতে জোর প্রচেষ্টা চালিয়েছিল বার্সেলোনা। ব্রাজিলিয়ান তারকাকে দলে টানার দৌড়ে ছিল রিয়াল মাদ্রিদ, জুভেন্টাসের মতো বড় বড় ক্লাবও। বিশেষ করে রিয়াল সভাপতি ফ্লোরেন্তিনো পেরেজ বরাবরই নেইমারের প্রতি তার মুগ্ধতার কথা জানিয়ে আসছেন। তাই মেসির আশঙ্কা ছিল, নেইমার যদি ন্যু ক্যাম্পে না ফেরেন, তবে তিনি হয়তো নাম লেখাবেন কাতালানদের চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী রিয়াল শিবিরে।

২০১৭ সালে রেকর্ড ২২২ মিলিয়ন ইউরো ট্রান্সফার ফিতে স্প্যানিশ জায়ান্ট বার্সা ছেড়ে প্যারিসে যান নেইমার। কিন্তু সেখানে গিয়ে মন টিকছে না তার। প্রকাশ্যেই বেশ কয়েকবার তিনি পিএসজি ছাড়তে চাওয়ার ও বার্সায় ফেরার ইচ্ছার কথা জানিয়েছেন। চলতি মৌসুম শুরুর আগে তাকে দলে নিতে উঠেপড়ে লেগেছিল বার্সা। এর পেছনে মেসির আগ্রহও ছিল অন্যতম কারণ। তিনি নেইমারকে ফের সতীর্থ হিসেবে পেতে মুখিয়ে ছিলেন।

ফলে পিএসজির কাছে বেশ কয়েকবার প্রস্তাব পাঠান বার্সা কর্তারা। কিন্তু কোনোটাই ফরাসি ক্লাবটির মনের মতো হয়নি। তাই দলবদলের সময়কালের শেষ দিকে বেশ ভীত হয়ে পড়েছিলেন মেসিরা। তারা ভেবেছিলেন, যদি বার্সার সব প্রস্তাবই প্রত্যাখ্যাত হয়, তবে আরেক স্প্যানিশ পরাশক্তি রিয়াল সুযোগ বুঝে বিশাল অঙ্কের বিনিময়ে নেইমারকে কিনে নিতে পারে। কারণ পিএসজি ছাড়তে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ ছিলেন ২৭ বছর বয়সী ফরোয়ার্ড। এতে করে ক্লাব সভাপতি নাসের আল-খেলাইফি ও সমর্থকদের চক্ষুশূলে পরিণত হয়েছিলেন তিনি। যার রেশ থামেনি এখনও।

neymar
ছবি: এএফপি

বুধবার (৯ অক্টোবর) কাতালান রেডিও স্টেশন আরএসিওয়ানকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ছয়বারের ফিফা বর্ষসেরা তারকা মেসি বলেন, ‘আমি আসলেই ভেবেছিলাম নেইমার যদি এখানে (বার্সেলোনায়) না আসে, তবে সে রিয়াল মাদ্রিদে যাবে। সে আসলেই প্যারিস ছাড়তে চেয়েছিল। নিজের বিভিন্ন কাজে সে তা প্রকাশও করেছিল।’

তিনি যোগ করেন, ‘আমি ভেবেছিলাম ফ্লোরেন্তিনো (পেরেজ) এবং রিয়াল মাদ্রিদ নেইমারকে দলে নেওয়ার জন্য কিছু একটা করবে।’

সব জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে নেইমার অবশ্য থেকে গেছেন পিএসজিতেই। চলতি মৌসুমের শুরুটাও তার হয়েছে দুর্দান্ত। নিয়মিত পাচ্ছেন গোলের দেখা। এখন পর্যন্ত ফরাসি লিগ ওয়ানে পাঁচ ম্যাচ খেলে চার গোল করেছেন তিনি। তবে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে ফের গুঞ্জন রটেছে,  আগামী বছর আবারও নেইমারকে ফেরাতে কোমর বেঁধে নামবে বার্সেলোনা!

Comments

The Daily Star  | English

Record job vacancies hurt govt services

More than a quarter of the 19 lakh posts in the civil administration are now vacant mainly due to the authorities’ reluctance to initiate the recruitment process.

9h ago