লিথিয়াম আয়ন ব্যাটারি উন্নয়নে রসায়নে এবারের নোবেল

লিথিয়াম আয়ন ব্যাটারির উন্নয়নে গবেষণার জন্য তিন জন বিজ্ঞানীকে এবার রসায়নে নোবেল পুরস্কার দেওয়া হয়েছে। এঁরা হলেন জন বি গুডএনাফ, এম স্ট্যানলি হুইটিংগাম, আকিরা ইয়োশিনো।
ছবি: এএফপি

লিথিয়াম আয়ন ব্যাটারির উন্নয়নে গবেষণার জন্য তিন জন বিজ্ঞানীকে এবার রসায়নে নোবেল পুরস্কার দেওয়া হয়েছে। এঁরা হলেন জন বি গুডএনাফ, এম স্ট্যানলি হুইটিংগাম, আকিরা ইয়োশিনো।

৯৭ বছর বয়সী মার্কিন বিজ্ঞানী জন বি গুডএনাফ নোবেলের ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি বয়সে এ পুরস্কার পেলেন। এম স্ট্যানলি হুইটিংগাম ব্রিটেনের ও আকিরা ইয়োশিনো জাপানের নাগরিক।

এক টুইটে স্টকহোমের নোবেল কমিটি জানিয়েছে, আমাদের জীবনে লিথিয়াম-আয়ন ব্যাটারি বৈপ্লবিক পরিবর্তন এনেছে। এই ব্যাটারি এখন মোবাইল থেকে শুরু করে ল্যাপটপ এবং গাড়িতে পর্যন্ত ব্যবহৃত হচ্ছে।

হুইটিংগাম ১৯৭০ এর দশকে প্রথম ব্যবহারযোগ্য লিথিয়াম ব্যাটারির উন্নয়ন ঘটান। এরপর গুডএনাফ ওই ব্যাটারির ক্ষমতাকে দ্বিগুণ করে তোলেন। এরপর আকিরা ইয়োশিনো ওই ব্যাটারি থেকে খাঁটি লিথিয়াম দূর করে লিথিয়াম আয়ন প্রযুক্তির উন্নয়ন ঘটনা। এই প্রযুক্তি খাঁটি লিথিয়াম থেকে বেশি নিরাপদ। এর ফলেই প্রাত্যহিক জীবনে এই ব্যাটারি ব্যবহার সহজ হয়েছে।

নোবেল কমিটি থেকে জানানো হয়েছে, পুরস্কারের ৯০ লাখ সুইডিশ ক্রোনার ভাগ করে নেবেন জন বি গুডএনাফ, এম স্ট্যানলি হুইটিংগাম, আকিরা ইয়োশিনো।

Comments

The Daily Star  | English

Medium of education should be mother language: PM

Prime Minister Sheikh Hasina today said that the medium for education in educational institutions should be everyone's mother tongue.

2h ago