দুই চ্যাম্পিয়ন একই গ্রুপে, কঠিন গ্রুপে বাংলাদেশ লিগের চ্যাম্পিয়নরা

বন্দরনগরী চট্টগ্রামে শুরু হতে যাচ্ছে শেখ কামাল আন্তর্জাতিক ক্লাব কাপের তৃতীয় আসর। আগামী ১৯ অক্টোবর থেকে শুরু হবে এ টুর্নামেন্ট। এবার পাঁচটি দেশের মোট আটটি ক্লাব অংশ নিচ্ছে এ টুর্নামেন্টে। এর আগে রাজধানীর একটি অভিজাত হোটেলে জমকালো অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে আয়োজিত টুর্নামেন্টের ড্র। তাতে আগের দুই আসরের চ্যাম্পিয়ন চট্টগ্রাম আবাহনী ও মালদ্বীপের টিসি স্পোর্টস পড়েছে একই গ্রুপে। বাংলাদেশ লিগ চ্যাম্পিয়ন বসুন্ধরা কিংস ও ঢাকা আবাহনী লিমিটেড পড়েছে কিছুটা কঠিন গ্রুপে।
ছবি: ফিরোজ আহমেদ

বন্দরনগরী চট্টগ্রামে শুরু হতে যাচ্ছে শেখ কামাল আন্তর্জাতিক ক্লাব কাপের তৃতীয় আসর। আগামী ১৯ অক্টোবর থেকে শুরু হবে এ টুর্নামেন্ট। এবার পাঁচটি দেশের মোট আটটি ক্লাব অংশ নিচ্ছে এ টুর্নামেন্টে। এর আগে রাজধানীর একটি অভিজাত হোটেলে জমকালো অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে আয়োজিত টুর্নামেন্টের ড্র। তাতে আগের দুই আসরের চ্যাম্পিয়ন চট্টগ্রাম আবাহনী ও মালদ্বীপের টিসি স্পোর্টস পড়েছে একই গ্রুপে। বাংলাদেশ লিগ চ্যাম্পিয়ন বসুন্ধরা কিংস ও ঢাকা আবাহনী লিমিটেড পড়েছে কিছুটা কঠিন গ্রুপে।

ড্রয়ে আটটি ক্লাবকে দুই গ্রুপে বিভক্ত করা হয়। চট্টগ্রাম আবাহনীর গ্রুপে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন টিসি স্পোর্টস ছাড়া রয়েছে ভারতের মোহনবাগান ও লাওসের ইয়াং এলিফ্যান্টস। গ্রু ‘এ’তে মোকাবেলা করবে এ চারটি দল। দুই চ্যাম্পিয়ন এক গ্রুপে পড়লেও গ্রুপ কিছুটা সহজ। অন্যদিকে বেশ কঠিন গ্রুপে পড়েছে ঢাকা আবাহনী। এই গ্রুপে তাদের প্রতিপক্ষ বাংলাদেশ লিগ চ্যাম্পিয়ন বসুন্ধরা কিংস। গ্রুপ ‘বি’তে তাদের বাকী দুই প্রতিপক্ষ মালয়েশিয়ার লিগা সুপারে পঞ্ছম হওয়া টেরেঙ্গানু এফসি ও ভারতের আই লিগ চ্যাম্পিয়ন চেন্নাই সিটি এফসি।

জাঁকজমকপূর্ণ অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে টুর্নামেন্টের ড্র পর্ব অনুষ্ঠিত হয়। শুরুতে লেজার শো, এরপর দেখানো হয় টুর্নামেন্ট নিয়ে একটি ডকুমেন্টারি। ফ্যাশন শো'য়ের মাধ্যমে তুলে ধরা হয় ক্লাবগুলোর পরিচিত। সবশেষে ড্র। আর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রামের মেয়র আ জ ম নাসির, চট্টগ্রাম আবাহনী ক্লাবের মহাসচিব হুইপ শামসুল হক চৌধুরী, যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের সচিব ও বাফুফের সাবেক সাধারণ সম্পাদক হারুন উর রশিদ, ক্লাবের চেয়ারম্যান এম এ লতিফ, টুর্নামেন্টের প্রধান সমন্বয়ক ও ক্লাবের সহ-সভাপতি তরফদার রুহুল আমিন, বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সভাপতি কাজী সালাউদ্দীন, বর্তমান সাধারণ সম্পাদক আবু নাইম সোহাগ, ফিফার কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য মাহফুজা আক্তার কিরণসহ অংশগ্রহণকারী ক্লাবগুলোর কর্মকর্তারা।

টুর্নামেন্টের সব দলই অংশগ্রহণ ফি বাবদ ১০ হাজার ইউএস ডলার করে পাবে। এছাড়া প্রতি খেলায় ম্যাচ ফি বাবদ পাবে এক হাজার ডলার করে। আর চ্যাম্পিয়ন দল পাবে ৫০ হাজার ডলার। ২৫ হাজার ডলার দেওয়া হবে রানার্সআপ দলকে। পাশাপাশি রয়েছে সেরা খেলোয়াড়, সর্বোচ্চ গোলদাতার পুরস্কারও।

এ নিয়ে তৃতীয় বারের মতো আয়োজিত হচ্ছে শেখ কামাল ক্লাব কাপ। প্রথম আসরটি অনুষ্ঠিত হয়েছিল ২০১৫ সালে। প্রতি দুই বছর পর পর আয়োজিত এ আসরের শেষ টুর্নামেন্টটি মাঠে গড়িয়েছিল ২০১৭ সালে। সেবার চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল মালদ্বীপের টিসি স্পোর্টস। প্রথম আসরে অবশ্য শিরোপা রেখে দিয়েছিল ঘরের দল চট্টগ্রাম আবাহনী।

আর এ আসরকে সামনে রেখে এর মধ্যেই চট্টগ্রামের এম এ আজিজ স্টেডিয়ামকে আন্তর্জাতিক ম্যাচ অনুষ্ঠানের জন্য পরিপূর্ণভাবে তৈরি করা হচ্ছে। ফ্লাডলাইট, মাঠ ও গ্যালারিসহ সবখানেই চলছে ব্যাপক সংস্কার কাজ।

Comments

The Daily Star  | English
Inflation edges up despite monetary tightening. Why?

Inflation edges up despite monetary tightening. Why?

Bangladesh's annual average inflation crept up to 9.59% last month, way above the central bank's revised target of 7.5% for the financial year ending in June

2h ago