রোহিতের ডাবল সেঞ্চুরির পর দক্ষিণ আফ্রিকার বেহাল দশা

টেস্ট ওপেনার হিসেবে নিজের ক্যারিয়ারটা যে দাপটের সঙ্গে শুরু করেছেন রোহিত শর্মা। তাতে কেবলই মিলছে সাফল্য। ওপেনার হিসেবে যে চার ইনিংস ব্যাট করলেন এখন পর্যন্ত তার তিনটাতেই ছাড়ালেন সেঞ্চুরি। এবার সেঞ্চুরি ছাড়িয়ে টেস্টে পেলেন নিজের প্রথম ডাবল সেঞ্চুরির দেখাও। রোহিতের চওড়া ব্যাটে চূড়ায় উঠা ভারত পরে বল হাতে নিয়েই কাঁপিয়ে দিয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকাকে।
Rohit Sharma
ছবি: এএফপি

টেস্ট ওপেনার হিসেবে নিজের ক্যারিয়ারটা যে দাপটের সঙ্গে শুরু করেছেন রোহিত শর্মা। তাতে কেবলই মিলছে সাফল্য। ওপেনার হিসেবে যে চার ইনিংস ব্যাট করলেন এখন পর্যন্ত তার তিনটাতেই ছাড়ালেন সেঞ্চুরি। এবার সেঞ্চুরি ছাড়িয়ে টেস্টে পেলেন নিজের প্রথম ডাবল সেঞ্চুরির দেখাও। রোহিতের চওড়া ব্যাটে চূড়ায় উঠা ভারত পরে বল হাতে নিয়েই কাঁপিয়ে দিয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকাকে।

রাঁচিতে তৃতীয় ও শেষ টেস্টেও কপাল ফেরাতে পারেনি দক্ষিণ আফ্রিকা। ভারতের ৪৯৭ রানের জবাবে ব্যাট করতে গিয়ে ৯ রানেই দুই ওপেনারকে হারিয়ে নাস্তানাবুদ দশা তাদের।

আগের দিনের ৩ উইকেটে ২২৪ রান বাড়িয়ে ৩০৬ রানে গিয়ে বিচ্ছিন্ন হন আজিঙ্কা রাহানে-রোহিত শর্মা। ১১৫ রান করা রাহানে জর্জ লিন্ডলের বাঁহাতি স্পিনে কাবু হলে ভাঙে দুজনের ২৬৭ রানের জুটি।

ততক্ষণে ডাবল সেঞ্চুরির সম্ভাবনা জাগিয়ে গেলেছেন রোহিত। রবীন্দ্র জাদেজাকে নিয়ে সে পথেই অনায়াসে এগিয়ে তুলে নেন ডাবল সেঞ্চুরি। ২৫৫ বলে ২৮ চার আর হাফ ডজন ছক্কায় ২১২ রান করে কাগিসো রাবাদার শিকার হন রোহিত।

এরপর কেবল দ্রুত রান বাড়িয়ে ইনিংস ঘোষণার চেষ্টায় খেলেছে ভারত। উমেশ যাদব ১০ বলে ৩১ করলে কাজটা হয় সহজ। অবশ্য ইনিংস ঘোষণার আগেই ভারত গুটিয়েছে ৪৯৭ রানে।

তাতে বোধহয় সুবিধার চেয়ে অসুবিধাই বেশি হয়েছে প্রোটিয়াদের। কারণ শেষ বিকেলের আলোয় ক্লান্ত শরীরে ব্যাট করতে নামতে হয়েছে তাদের। ফলাফল টপাটপ উইকেট পতন। একদম দ্বিতীয় বলেই মোহাম্মদ শামিকে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দেন ডিন এলগার। পরের ওভারে কুইন্টেন ডি কককে একইভাবে আউট করেন উমেশ যাদব।

জুবায়ের হামজাকে নিয়ে তৃতীয় দিনের খেলা শুরু করবেন অধিনায়ক ফাফ ডু প্লেসি।

 

Comments