গুলতেকিন-আফতাব

একসঙ্গে ‘মধুরেণ’ থেকে বিয়ে

২০১৮ সালের একুশে বই মেলায় তাম্রলিপি প্রকাশনা থেকে প্রকাশিত হয়েছিল গুলতেকিন খান এবং আফতাব আহমেদ‘র বই ‘মধুরেণ’। যৌথভাবে প্রকাশিত দুজনের কবিতার বই ’মধুরেণ’। ওই বছর একুশে বই মেলায় দুজনকে একসঙ্গে দেখা গেছে স্টলের সামনে।
Gulketin and Aftab
গুলতেকিন খান এবং আফতাব আহমেদ। ছবি: ফেসবুক থেকে নেওয়া

২০১৮ সালের একুশে বই মেলায় তাম্রলিপি প্রকাশনা থেকে প্রকাশিত হয়েছিল গুলতেকিন খান এবং আফতাব আহমেদ‘র বই ‘মধুরেণ’। যৌথভাবে প্রকাশিত দুজনের কবিতার বই ’মধুরেণ’।  ওই বছর একুশে বই মেলায় দুজনকে একসঙ্গে দেখা গেছে স্টলের সামনে।

জানা গেছে, গুলতেকিন ও আফতাবের ভালোবাসার সূত্রপাত সেখান থেকেই। বিয়ে পর্যন্ত আসতে তারা কিছুটা সময় নিলেন। বইপাড়া হিসেবে খ্যাত বাংলাবাজারে গুলতেকিন খানের নতুন জীবনে প্রবেশ নিয়ে আলোচনা শোনা যেতো প্রায়ই। সম্প্রতি পারিবারিকভাবে তাদের বিয়ে সম্পন্ন হয়।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে একজন প্রকাশক দ্য ডেইলি স্টার অনলাইনকে জানান, দুজনেই প্রথম বিয়ে ও বিচ্ছেদের পর নীরব জীবনযাপন করছিলেন। কবিতার বই ‘মধুরেণ’ যৌথভাবে প্রকাশের মাধ্যমে তারা কাছাকাছি আসেন। তবে, আগামী ডিসেম্বরে বিয়ে হওয়ার কথা ছিলো তাদের। অনেকটা নীরবে কয়েকদিন আগে বিয়ে করেছেন দুজনে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, কবি আফতাব আহমেদ যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব। কবিতার পাশাপাশি তিনি গল্প লিখেন। তিনি একাধিক বইয়ের লেখক।

গুলতেকিন খান গত কয়েকবছর ধরে কবিতার বই প্রকাশ করে আসছেন। ২০১৯ সালেও তার একটি কবিতার বই প্রকাশিত হয়েছে। বইটির নাম ‘বালি ঘুড়ি উল্টে পড়ে’।

উল্লেখ্য, গুলতেকিন খান প্রথম বিয়ে করেছিলেন নন্দিত কথাসাহিত্যিক হুমায়ূন আহমেদকে। সেটা ১৯৭৩ সালে। ২০০৩ সালে তাদের বিচ্ছেদ হয়।

কবি ও অতিরিক্ত সচিব আফতাব আহমেদ অভিনেত্রী আয়শা আকতারের ছেলে।

Comments

The Daily Star  | English

Old, unfit vehicles taking lives

The bus involved in yesterday’s crash that left 14 dead in Faridpur would not have been on the road had the government not given into transport associations’ demand for keeping buses over 20 years old on the road.

2h ago