ডাচ নাইটহুড উপাধিতে সম্মানিত স্যার ফজলে আবেদ

পৃথিবীর সবচেয়ে বড় বেসরকারি সংস্থা ব্র্যাকের প্রতিষ্ঠাতা এবং চেয়ারপার্সন এমিরেটাস স্যার ফজলে হাসান আবেদকে দারিদ্র্য বিমোচনে, বিশেষত নারী ও শিশুদের জীবন-মান উন্নয়নে তাৎপর্যপূর্ণ অবদান রাখার স্বীকৃতিস্বরূপ নেদারল্যান্ডসের নাইটহুড উপাধিতে সম্মানিত করা হয়েছে।
fazle abed
বাংলাদেশে নিযুক্ত ডাচ রাষ্ট্রদূত হ্যারি ভারুইজ (বা থেকে দ্বিতীয়) নেদারল্যান্ডসের রাজা উইলেম-আলেকজান্ডারের পক্ষ থেকে স্যার ফজলে হাসান আবেদের বাসভবনে গিয়ে তার হাতে এই সম্মাননা তুলে দেন। ছবি: ব্র্যাক

পৃথিবীর সবচেয়ে বড় বেসরকারি সংস্থা ব্র্যাকের প্রতিষ্ঠাতা এবং চেয়ারপার্সন এমিরেটাস স্যার ফজলে হাসান আবেদকে দারিদ্র্য বিমোচনে, বিশেষত নারী ও শিশুদের জীবন-মান উন্নয়নে তাৎপর্যপূর্ণ অবদান রাখার স্বীকৃতিস্বরূপ নেদারল্যান্ডসের নাইটহুড উপাধিতে সম্মানিত করা হয়েছে।

বাংলাদেশে নিযুক্ত ডাচ রাষ্ট্রদূত হ্যারি ভারুইজ নেদারল্যান্ডসের রাজা উইলেম-আলেকজান্ডারের পক্ষে স্যার ফজলে হাসান আবেদের বাসভবনে গিয়ে তার হাতে এই সম্মাননা তুলে দেন।

গতকাল (২০ নভেম্বর) রাজধানীতে স্যার ফজলে হাসান আবেদের নিজ বাসভবনে এ উপলক্ষে ছোট একটি আয়োজন করা হয়েছিলো।

স্যার ফজলে হাসান আবেদ এই সম্মাননা গ্রহণ করে বলেন, “অর্ডার অফ অরেঞ্জ-নাসাউ’র অফিসার হতে পারা অপরিসীম সম্মানের।”

‘অফিসার অফ অর্ডার অফ অরেঞ্জ-নাসাউ’ নেদারল্যান্ডের রাজা কর্তৃক প্রদত্ত একটি পুরস্কার। দেশ, সমাজ ও মানুষের উন্নয়নে বিশেষ অবদান রাখার স্বীকৃতি স্বরূপ এই সম্মাননা দেওয়া হয়।

নেদারল্যান্ডসের রাষ্ট্রদূত তার বক্তব্যে বলেন, “স্যার ফজলে হাসান আবেদ সর্বদা মানুষের মানোন্নয়নে সচেষ্ট ছিলেন। ব্র্যাক শুধু বাংলাদেশের নয়, সারা পৃথিবীর দারিদ্র বিমোচনে ভূমিকা রাখছে।”

উল্লেখ্য, স্যার ফজলে হাসান আবেদ ব্রিটিশ নাইটহুড উপাধিতে ভূষিত একমাত্র বাংলাদেশি। এছাড়াও তিনি সারা পৃথিবীর উল্ল্যেখযোগ্য প্রায় সব পুরস্কার অর্জন করেছেন।

Comments

The Daily Star  | English