খেলা

সেই বলবয়ের উচ্ছ্বসিত প্রশংসায় মরিনহো

দুই গোলে পিছিয়ে পড়ার পর দ্বিতীয়ার্ধের পঞ্চম মিনিটে হ্যারি কেইনের গোলে সমতায় ফেরে টটেনহ্যাম হটস্পার্স। সে গোলের এসিস্ট করেন লুকাস মৌরা। কাগজে কলমে তারই নাম। কিন্তু সে গোলের মুল এসিস্ট করেছেন আসলে একজন বলবয়। কারণ প্রতিপক্ষের খেলোয়াড়রা সতর্ক হওয়ার আগে তড়িৎগতিতে বলটা সের্জি আরিয়ারকে দিলেই দ্রুত আক্রমণে যেতে পারে দলটি। আর ম্যাচ শেষে তাই সে বলবয়ের উচ্ছ্বসিত প্রশংসাই করেছেন কোন হোসে মরিনহো।
ছবি: এএফপি

দুই গোলে পিছিয়ে পড়ার পর দ্বিতীয়ার্ধের পঞ্চম মিনিটে হ্যারি কেইনের গোলে সমতায় ফেরে টটেনহ্যাম হটস্পার্স। সে গোলের এসিস্ট করেন লুকাস মৌরা। কাগজে কলমে তারই নাম। কিন্তু সে গোলের মুল এসিস্ট করেছেন আসলে একজন বলবয়। কারণ প্রতিপক্ষের খেলোয়াড়রা সতর্ক হওয়ার আগে তড়িৎগতিতে বলটা সের্জি আরিয়ারকে দিলেই দ্রুত আক্রমণে যেতে পারে দলটি। আর ম্যাচ শেষে তাই সে বলবয়ের উচ্ছ্বসিত প্রশংসাই করেছেন কোন হোসে মরিনহো।

আর দলের এমন পরিস্থিতিতে এমন গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখায় সঙ্গে সঙ্গেই সেই বলবয়কে বুকে জড়িয়ে ধরেছিলেন মরিনহো। পরে সংবাদ সম্মেলনে তার প্রশংসায় ভাসান স্পেশাল ওয়ান খ্যাত এ কোচ, 'আমি সবসময় মেধাবী বলবয়দের পছন্দ করি। শৈশবে আমিও ভালো একজন বলবয় ছিলাম। এই বাচ্চাটি অসাধারণ মেধাবী। সে ম্যাচটা পড়েছে এবং বুঝতে পেরেছে।  এবং সে শেষ পর্যন্ত দলের জন্য গুরুত্বপূর্ণ একটি এসিস্ট করে।'

সেই বলবয়কে শুধু বুকে জড়িয়ে জড়িয়ে ভালোবাসা প্রকাশ করেই শান্ত হননি মরিনহো, পরে ম্যাচ শেষে দলের সঙ্গে তাকে ড্রেসিং রুমে সকলের সঙ্গে জয় উদযাপন করতে নিতে চেয়েছিলেন, 'সে শুধু স্ট্যান্ড, লাইট আর স্কার্ফ দেখছিল না, সে ম্যাচের মধ্যে ছিল এবং আমাদের সঙ্গে ভালোভাবেই খেলেছে। আমি তাকে পরে দলের সঙ্গে ড্রেসিং রুমে জয় উদযাপনের জন্য আনতে চেষ্টা করেছিলাম। কিন্তু সে সেখান থেকে চলে যায়।'

ঘরের মাঠে এদিন শুরুতেই পিছিয়ে পড়ে টটেনহ্যাম হটস্পার্স। তাও দুই গোলের ব্যবধানে। এমন ম্যাচে ফিরতে হলে ভাগ্যকে সঙ্গে চাই দলটির। তা পেয়ে যায়ও তারা। প্রতিপক্ষের হাস্যকর এক ভুলে ব্যবধান কমায়। আর সে বলবয়ের বুদ্ধিমত্তায় সমতায় ফেরে দলটি। এরপর আর পিছে তাকাতে হয়নি তাদের। পরে আরও দুটি গোল করে জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ে তারা। ৪-২ গোলের রোমাঞ্চকর জয় দিয়েই ফের চ্যাম্পিয়ন্স লিগ পর্ব শুরু করেন মরিনহো।

Comments