‘প্রথম ভালোবাসা তো ভোলা যায় না’

সাদিয়া ইসলাম মৌ বাংলাদেশের অন্যতম সেরা মডেল। এখনও পর্যন্ত নারী মডেলদের মধ্যে তাকে কেউ ছাড়িয়ে যেতে পারেননি। সেই সঙ্গে এদেশের অন্যতম জনপ্রিয় একজন নৃত্যশিল্পী। নাটকে কাজ করেন খুবই কম। তবে, নৃত্যশিল্পী হিসেবে তিনি বেশি সরব। নাচের প্রতি তার ভালোবাসা অনেক বছর ধরে। নাচ দিয়ে এ বছর লন্ডনে পেয়েছেন একটি পুরস্কারও। সেসব নিয়ে কথা বলেছেন দ্য ডেইলি স্টারের সঙ্গে।
Mou-1.jpg
সাদিয়া ইসলাম মৌ। ছবি: শেখ মেহেদী মোর্শেদ/স্টার

সাদিয়া ইসলাম মৌ বাংলাদেশের অন্যতম সেরা মডেল। এখনও পর্যন্ত নারী মডেলদের মধ্যে তাকে কেউ ছাড়িয়ে যেতে পারেননি। সেই সঙ্গে এদেশের অন্যতম  জনপ্রিয় একজন নৃত্যশিল্পী। নাটকে কাজ করেন খুবই কম। তবে, নৃত্যশিল্পী হিসেবে তিনি বেশি সরব। নাচের প্রতি তার ভালোবাসা অনেক বছর ধরে। নাচ দিয়ে  এ বছর লন্ডনে পেয়েছেন একটি পুরস্কারও। সেসব নিয়ে কথা বলেছেন দ্য ডেইলি স্টারের সঙ্গে।

এ বছর আন্তর্জাতিক নৃত্য দিবসে আপনি লন্ডনে ছিলেন একটি সম্মাননা নিতে, সে বিষয়ে জানতে চাই?

ঠিকই বলেছেন, এবারের ‘ইন্টারন্যাশনাল ডান্স ডে’-তে লন্ডনে ছিলাম। নৃত্যশিল্পী সোহেল আহমেদ এবং রাধারমণ সোসাইটি আমন্ত্রণ জানায়। রাধারমণ সোসাইটির কাছে এবং সোহেল আহমেদের কাছে এজন্য কৃতজ্ঞ। আমাদের নৃত্যগুরু রাহিজা খানম ঝুনুকে সম্মাননা জানানো হয়। গুরুর পক্ষে আমরা কয়েকজন সম্মাননা গ্রহণ করি। এই নৃত্যগুরুকে আমরা অনেকেই আম্মা ডাকতাম। এটি আমার জন্য বড় বিষয়।

Mou-2.jpg
সাদিয়া ইসলাম মৌ। ছবি: শেখ মেহেদী মোর্শেদ/স্টার

আপনি নিজেও তো লন্ডনে নাচের ওপর পুরস্কার পেয়েছেন?

সেটা পেয়েছি। ওই অনুষ্ঠানের দুদিন পর। লন্ডনের বড় একটি পুরস্কার। মেয়র ছিলেন উপস্থিত। কাউন্সিলর ফজলুর রহমান ছিলেন। নৃত্যশিল্পী হিসেবে আমাকে সম্মানিত করেছেন। আমি কৃতজ্ঞ। আগে এই পুরস্কার রুনা লায়লা পেয়েছেন। পুরস্কারটির নাম:  ডিএজিইএনএইচএফএম। আমি অনার্রড। বিশেষ করে যারা পুরস্কার দিয়েছেন, তাদের প্রতি কৃতজ্ঞ এবং সোহেল আহমেদের প্রতিও।

নাচের প্রতি আপনার এতো ভালোবাসা, এর মুল কারণটা কী বলবেন?

দেখুন, সবাই আমাকে মডেল বা অভিনেত্রী হিসেবে চেনেন, কেউ কেউ বলেনও মডেল মৌ। এসব তো অনেক পরে থেকে করছি। আমি নাচের সঙ্গে জড়িত সেই  সাড়ে তিনবছর বয়স থেকে। এটি আমার মায়ের জন্য। নাচ আমার প্রথম ভালোবাসা। প্রথম ভালোবাসা তো ভোলা যায় না, তেমনি নাচও ভুলতে পারবো না।

Mou-3.jpg
সাদিয়া ইসলাম মৌ। ছবি: শেখ মেহেদী মোর্শেদ/স্টার

কোন কাজটি করতে বেশি স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেন?

নাচ করতেই বেশি স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করি। অন্য কোনো কাজে এতোটা স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করি না। নাচ আমার সাধনা। এতোটা বছর ধরে নাচ নিয়ে আছি ভালোবাসা আছে বলেই। নাচের জন্য সবরকম দরদ আমার আছে। কাজেই নাচের মতো ভালোলাগা আর কিছুতে নেই। যার জন্য নাচ ছাড়তে পারিনি। কখনোই পারবো না।

নাচ নিয়ে স্বপ্ন বা ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা?

এখনও নাচটা করতে পারছি। যখন মঞ্চে কাজ করতে পারবো না, তখন মঞ্চের পেছনে কাজ করবো। ডিরেকশনের কাজ করবো। এটা স্বপ্ন। প্রোডাকশন করবো নাচের। নাচ নিয়ে অনেক বড় বড় স্বপ্ন দেখি। সেই স্বপ্ন নিয়েই একজন নৃত্যশিল্পী হিসেবে বেঁচে আছি।

অনেকদিন নাটকে দেখা যায় না, নাটক কি একেবারেই করছেন না?

বিটিভির নিজস্ব প্রযোজনার একটি নাটকে কাজ করছিলাম ছয় বা সাত মাস আগে। গত রোযার ঈদে আরিফ খানের পরিচালনায় একটি এক ঘণ্টার নাটক করেছিলাম। কিছুদিন আগে একটি শর্টফিল্ম করেছি। নাটক পছন্দ হলেই করা হয় এবং সেটা বেছে বেছে। আসলে নাচই আমার সব। সামনে কিছু নাচ করা হবে।

Comments

The Daily Star  | English

New School Curriculum: Implementation limps along

One and a half years after it was launched, implementation of the new curriculum at schools is still in a shambles as the authorities are yet to finalise a method of evaluating the students.

3h ago