খেলা

১৫৯ দিন পর মাঠে মাশরাফি

৫ জুলাই থেকে ১২ ডিসেম্বর। মাঝে পেরিয়ে গেছে ১৫৯ দিন। দেশের ক্রিকেটে ঘটেছে বড় বড় ঘটনা। তবে ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা ছিলেন অনেকটা আড়ালে।লর্ডসে পাকিস্তানের বিপক্ষে বিশ্বকাপে নিজেদের শেষ ম্যাচে নেমেছিলেন তিনি। মাঠের ক্রিকেটে ওই শেষবার দেখা গিয়েছিল তাকে। বিশ্বকাপের পর শ্রীলঙ্কা সফরে যেতে পারেননি চোটের কারণে। এরপর আর ওয়ানডে ছিল না বাংলাদেশের। ক্রিকেট থেকেও অনেকটাই দূরে সরে মাশরাফি ব্যস্ত ছিলেন রাজনীতির মাঠে। বিশ্বকাপের পারফম্যান্স, অবসর নিয়ে বিতর্কের জেরে নিজেকে গুটিয়েও রেখেছিলেন এই সময়ে।
Mashrafe Mortaza

৫ জুলাই থেকে ১২ ডিসেম্বর। মাঝে পেরিয়ে গেছে ১৫৯ দিন। দেশের ক্রিকেটে ঘটেছে বড় বড় ঘটনা। তবে ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা ছিলেন অনেকটা আড়ালে।লর্ডসে পাকিস্তানের বিপক্ষে বিশ্বকাপে নিজেদের শেষ ম্যাচে নেমেছিলেন তিনি। মাঠের ক্রিকেটে ওই শেষবার দেখা গিয়েছিল তাকে। বিশ্বকাপের পর শ্রীলঙ্কা সফরে যেতে পারেননি চোটের কারণে। এরপর আর ওয়ানডে ছিল না বাংলাদেশের। ক্রিকেট থেকেও অনেকটাই দূরে সরে মাশরাফি ব্যস্ত ছিলেন রাজনীতির মাঠে। বিশ্বকাপের পারফম্যান্স, অবসর নিয়ে বিতর্কের জেরে নিজেকে গুটিয়েও রেখেছিলেন এই সময়ে।

বিশ্বকাপের পর বিপিএল। লম্বা বিরতির পর আবার মাশরাফি ফিরলেন মাঠের ক্রিকেটে। বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের ম্যাচে ঢাকা প্লাটুনের হয়ে টস করেছেন বিপিএলের সফলতম অধিনায়ক। রাজশাহী রয়্যালসের  আন্দ্রে রাসেলের সঙ্গে টস হেরে তার দল পেয়েছে ব্যাটিং। মাঝের এই সময়টায় মাশরাফি কোন পর্যায়েই কোন ম্যাচ খেলেননি, এমনকি অধিকাংশ সময় অনুশীলনেও ছিলেন অনুপস্থিত।

তার নেতৃত্বে অনেক স্বপ্ন নিয়ে বিশ্বকাপে গিয়েছিল বাংলাদেশ দল। দারুণ শুরুর পর টুর্নামেন্টের শেষ দিকে খেই হারায় বাংলাদেশ। হ্যামস্ট্রিংয়ে চোট নিয়ে অনেকটা জোর করে খেলা চালিয়ে যাওয়া মাশরাফিও ছিলেন বিবর্ণ। দলের হার আর বিবর্ণ মাশরাফি বিশ্বকাপের পর পড়েছিলেন তুমুল সমালোচনায়। গুঞ্জন উঠেছিল তার অবসরের। কিন্তু অবসর নিয়েও নিশ্চুপ থেকেছেন তিনি।

বরাবরই গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলায় ইতিবাচক এই সময়ে ক্রিকেট নিয়ে কোন মন্তব্যও করেননি। গত সেপ্টেম্বরে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে তার জন্য বিদায়ী একটি ওয়ানডে আয়োজনের চিন্তা করেছিল বিসিবি, তাতেও সায় দেননি তিনি। কেবল তার জন্য ম্যাচ আয়োজনে খরচ না করে হাইপারফরম্যান্স ইউনিটে টাকা খরচ করার কথা বলেছিলেন তিনি। গত পাঁচ মাসে ক্রিকেট নিয়ে ওই একটাই কথা ছিল তার।

এই সময়ে বাংলাদেশের ক্রিকেটে ঘটেছে বেশ বড় কিছু ঘটনা। ভারত সফরের ঠিক আগে এগারো দাবিদাওয়া নিয়ে ধর্মঘটে গিয়েছিলেন ক্রিকেটাররা। সেই ধর্মঘটে ক্রিকেটারদের কেউ মাশরাফিকে সম্পৃক্ত করেননি। ফেসবুকে এই আক্ষেপ জানালেও ক্রিকেটারদের দাবিতে সমর্থন জানিয়েছিলেন তিনি।

ধর্মঘটের পর পর দেশের ক্রিকেট খায় বিশাল ধাক্কা। তিন তিনবার জুয়াড়ির প্রস্তাব গোপন করে সব ধরণের ক্রিকেট থেকে নিষিদ্ধ হন সাকিব আল হাসান। সাকিব নিষিদ্ধের পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এই অলরাউন্ডার পাশে দাঁড়িয়েছিলেন মাশরাফি।

এই সময়ে ভারত সফরে গিয়ে একটি টি-টোয়েন্টি জিতলেও টেস্ট সিরিজে চূড়ান্ত বেহাল দশা হয় বাংলাদেশের। দলে নেতৃত্বের সংকট প্রকট হয়ে দেখা দেয়। 

এবার বিপিএলের প্লেয়ার্স ড্রাফটে শুরুর দিকে মাশরাফিকে দলে নিতে আগ্রহ দেখায়নি কোন দল। অষ্টম রাউন্ডে গিয়ে ‘এ’ প্লাস ক্যাটাগরির মাশরাফিকে দলে নেয় ঢাকা প্লাটুন। আগের ছয় আসরের মধ্যে চারবার অধিনায়ক হিসেবে শিরোপা জেতা মাশরাফিকে পরে দলটি তোলে দেয় অধিনায়কত্বের ভার।

নতুন আদলের বিপিএলে পঞ্চম কোন দলের হয়ে শিরোপা জেতার মিশনে নামলেন মাশরাফি। বিপিএলের ইতিহাসে আর কোন অধিনায়কের একাধিক শিরোপা জেতারও নজির নেই। 

বিশ্বকাপের পর নানান ঘটনায় বদলে যাওয়া প্রেক্ষাপটে আরেকটি শুরু হলো তার। এবার বিপিএলে তিনি কেমন করেন তা দেখতে মুখিয়ে থাকবে কোটি চোখ।

Comments