ব্যাটসম্যানদের নিয়ে স্বস্তি, মোস্তাফিজকে নিয়ে চিন্তা

অনেক দিন পর ছন্দে ফিরেছেন তামিম ইকবাল। ইমরুল কায়েস, মোহাম্মদ মিঠুনরা খেলেছেন বড় ইনিংস। লিটন দাসের ব্যাট থকে আসছে রান, তরুণ মোহাম্মদ নাঈম শেখও চিনিয়েছেন নিজেকে। তবে বঙ্গবন্ধু বিপিএলে আলোর মধ্যে অন্ধকার হয়ে আছেন বাংলাদেশের বোলাররা। বিশেষ করে বিবর্ণ মোস্তাফিজুর রহমান বোর্ড প্রধানকেও ফেলেছেন চিন্তায়।
Mustafizur Rahman
ছবি: ফিরোজ আহমেদ

অনেক দিন পর ছন্দে ফিরেছেন তামিম ইকবাল। ইমরুল কায়েস, মোহাম্মদ মিঠুনরা খেলেছেন বড় ইনিংস। লিটন দাসের ব্যাট থকে আসছে রান, তরুণ মোহাম্মদ নাঈম শেখও চিনিয়েছেন নিজেকে। তবে বঙ্গবন্ধু বিপিএলে আলোর মধ্যে অন্ধকার হয়ে আছেন বাংলাদেশের বোলাররা। বিশেষ করে বিবর্ণ মোস্তাফিজুর রহমান বোর্ড প্রধানকেও ফেলেছেন চিন্তায়।

এবারের বিপিএলের প্রথম ম্যাচেই ৪৮ বলে ৮৪ রান করেন মিঠুন। ওই ম্যাচে ফিফটি করে ম্যাচ জেতান ইমরুল কায়েস। দুই ম্যাচেই ব্যাটে ঝলক দেখিয়ে রান পান লিটন দাস। বড় ইনিংস না এলেও সৌম্য সরকারের ব্যাটেও দেখা গেছে ছন্দ। রান পেয়েছেন তামিমও। কুমিল্লা ওয়ারিয়র্সের বিপক্ষে ঢাকা প্লাটুনের তামিম করেন ৫৩ বলে ৭৪ রান। পরের ম্যাচে একই দলের হয়ে ৪২ বলে ৬২ রান করেন এনামুল হক বিজয়।

শনিবার (১৪ ডিসেম্বর) বিপিএলের প্রথম ধাপ শেষে স্থানীয় ব্যাটসম্যানদের নিয়ে তাই বোর্ড প্রধান নাজমুল হাসান পাপনের মুখে ঝরেছে স্বস্তি, ‘স্থানীয়রা ভালো করছে। আমাদের মূল ফোকাস ছিল স্থানীয় খেলোয়াড় । বাইরের তারা তো রান করবেই। সেই সঙ্গে যেন স্থানীয়রাও করে। এবার দেখছি যে কয়টা খেলা হয়েছে, নাঈম ভালো খেলেছে, তামিম ছন্দে ফিরেছে। লিটন দাস, সৌম্য এরাও কিন্তু ভালো খেলেছে। মিঠুন ভালো একটা ইনিংস খেলেছে। আমাদের স্থানীয় খেলোয়াড় যারা আছে, তারা ভালো করছে।’

বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানরা ভালো করলেও বোলারদের কাছ থেকে আসেনি বলার মতো কিছু। বিশেষ করে পেস বোলাররা বেশ নিষ্প্রভ। মোস্তাফিজ আছেন একেবারে সাদামাটা। প্রথম ম্যাচে দাসুন শানাকার হাতে টানা চার ছয় খেয়েছেন। পরের ম্যাচেও দেখা যায়নি সেরা ছন্দ। মোস্তাফিজের ফর্ম নিয়ে তাই চিন্তায় বিসিবি প্রধানও, ‘এই রাউন্ড দেখে এখনও বুঝতে পারছি না। তবে একটু তো চিন্তার বিষয় আছেই। আমাদের সেরা পেসার নিশ্চয়ই মোস্তাফিজ। ওকে নিয়ে চিন্তার মধ্যে আছি। এটা অস্বীকার করার উপায় নেই।’

এদিনই বিপিএলের ঢাকা পর্বের প্রথম ধাপের ম্যাচ শেষ। এরপর খেলা যাবে চট্টগ্রামে। সেখানকার উইকেটে পেসাররা কি করেন তা দেখার জন্য মুখিয়ে আছে টিম ম্যানেজমেন্ট।

Comments