দালালদের সহায়তায় কিছু মানুষ দেশে ঢুকছে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেন বলেছেন, ভারত জোর করে কাউকে বাংলাদেশে পাঠাচ্ছে না। কিন্তু এখানে আসলে না খেয়ে থাকতে হবে না, এমন ধারণার ফলে কিছু মানুষ দালালদের সহায়তায় এ দেশে আসছেন।
AK Abdul Momen
পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন। ফাইল ছবি

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেন বলেছেন, ভারত জোর করে কাউকে বাংলাদেশে পাঠাচ্ছে না। কিন্তু এখানে আসলে না খেয়ে থাকতে হবে না, এমন ধারণার ফলে কিছু মানুষ দালালদের সহায়তায় এ দেশে আসছেন।

ইউএনবির খবরে বলা হয়, রোববার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এ কথা বলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশি নাগরিক ছাড়া অন্য কেউ যদি বৈধ প্রক্রিয়া না মেনে বাংলাদেশ-ভারত সীমান্ত দিয়ে দেশে প্রবেশ করে তাহলে সরকার তাদের ফেরত পাঠাবে।

ভারতে অবৈধভাবে বসবাসরত কোনো বাংলাদেশি থাকলে তাদের তালিকা দেওয়ার জন্য ভারতকে অনুরোধ করা হয়েছে বলে জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

ভারতের জাতীয় নাগরিকত্ব তালিকা (এনআরসি) নিয়ে করা এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, ভারত এটিকে নিজেদের অভ্যন্তরীণ বিষয় বলে উল্লেখ করেছে এবং কোনোভাবেই এর প্রভাব বাংলাদেশে পড়বে না বলে আশ্বস্ত করেছে।

নয়াদিল্লি সফরে না যাওয়া প্রসঙ্গে আবদুল মোমেন বলেন, বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ক স্বাভাবিক। এ সম্পর্ক প্রভাবিত হবে না। এ সম্পর্ক মধুর।

এর আগে, গত বৃহস্পতিবার এক জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা জানান, শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস এবং বিজয় দিবসের আগে ‘ব্যস্ত সময়সূচি’ থাকায় ড. মোমেনের সফর বাতিল করেছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

ড. মোমেনের শেষ মুহূর্তে নয়াদিল্লি সফর বাতিলের বিষয়ে সব জল্পনা-কল্পনা সরিয়ে বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ককে ‘অত্যন্ত দৃঢ়’বলে অভিহিত করেন।

বৃহস্পতিবার নয়াদিল্লিতে এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানান ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র রাভিস কুমার।

Comments

The Daily Star  | English
Forex reserves rise by $180 million in a week

Forex reserves rise by $180 million in a week

Reserves hit $18.61 billion on May 21, up from $18.43 billion on May 15

2h ago