শীর্ষ খবর

৩৪৬ জনের প্রাণহানির পর বোয়িং ৭৩৭ ম্যাক্সের উৎপাদন বন্ধ

যুক্তরাষ্ট্র-ভিত্তিক উড়োজাহাজ নির্মাণ প্রতিষ্ঠান বোয়িং তাদের ৭৩৭ ম্যাক্স মডেলের উড়োজাহাজ উৎপাদন বন্ধের ঘোষণা দিয়েছে।
boeing-737-max-1.jpg
বোয়িংয়ের ৭৩৭ ম্যাক্স মডেলের উড়োজাহাজ। ছবি: সংগৃহীত

যুক্তরাষ্ট্র-ভিত্তিক উড়োজাহাজ নির্মাণ প্রতিষ্ঠান বোয়িং তাদের ৭৩৭ ম্যাক্স মডেলের উড়োজাহাজ উৎপাদন বন্ধের ঘোষণা দিয়েছে।

সিএনএন তাদের প্রতিবেদনে উল্লেখ করেছে, আগামী জানুয়ারি থেকে ৭৩৭ ম্যাক্সের উৎপাদন বন্ধ রাখার পরিকল্পনা করেছে বোয়িং।

খুব কাছাকাছি সময়ে এই মডেলের দুটি উড়োজাহাজ বিধ্বস্ত হয়ে তিনশর অধিক মানুষের প্রাণহানি হওয়ায় বিতর্কের মুখে পরে বোয়িং। কিন্তু, এরপরও এই মডেলের উড়োজাহাজ নির্মাণ অব্যাহত রেখেছিলো সংস্থাটি।

২০১৮ সালের অক্টোবরে এই মডেলের একটি উড়োজাহাজ জাভা সাগরে বিধ্বস্ত হয়। সেটি ছিলো লায়ন এয়ার জেটের মালিকানাধীন। এরপর চলতি বছর মার্চে ইথিওপিয়ান এয়ারলাইন্সের একটি উড়োজাহাজ দেশটির রাজধানী আদ্দিস আবাবার কাছে বিধ্বস্ত হয়। দুটি দুর্ঘটনায় প্রাণহানি হয় ৩৪৬ জনের।

এরপর এই মডেলের উড়োজাহাজ উড্ডয়ন বিশ্বব্যাপী বন্ধ থাকে। বোয়িং আশা করেছিলো চলতি বছরের ডিসেম্বরের মধ্যেই তারা এই মডেলের উড়োজাহাজ পুনরায় উড্ডয়নের জন্য সনদ পাবে, কিন্তু তা সহসা হচ্ছে না।

ফেডারেল এভিয়েশন অ্যাডমিনিস্ট্রেশনের (এফএএ) প্রশাসক স্টিফেন ডিকসন গত সপ্তাহেই জানিয়েছিলেন, চলতি বছরে এই সনদ পাওয়ার প্রক্রিয়া শেষ হওয়ার কোনো সম্ভাবনা নেই।

গত ১৬ ডিসেম্বর এই বোয়িং উড়োজাহাজের উৎপাদন বন্ধ করা হবে বলে প্রাথমিক প্রতিবেদন প্রকাশের পরেই বোয়িংয়ের শেয়ারের দাম চার শতাংশেরও বেশি কমে যায়। এরপর সংস্থাটি আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা দিলে কয়েক ঘণ্টার ব্যবধানে আরও প্রায় এক শতাংশ দরপতন হয়।

বোয়িং জানিয়েছে, তাদের কাছে এই মডেলের প্রায় ৪০০ উড়োজাহাজ প্রস্তুত আছে। চলমান অনিশ্চয়তার কারণে তারা নতুন করে উৎপাদন করার চেয়ে উৎপাদিত উড়োজাহাজগুলো ত্রুটিমুক্ত করে সরবরাহের দিকেই বিশেষ নজর দিচ্ছে।

ঠিক কতোদিন এই উৎপাদন বন্ধ থাকবে তা এখনও নিশ্চিত করে জানাতে পারেনি বোয়িং কর্তৃপক্ষ।

বাজারে আসার পর থেকে প্রতি মাসে বোয়িং ৪২টি করে ৭৩৭ মডেলের উড়োজাহাজ নির্মাণ করছিল।

সম্প্রতি তৈরি হয়ে যাওয়া উড়োজাহাজগুলো তারা হস্তান্তর করতে পারেনি।বোয়িং ইতোমধ্যে জানিয়েছে যে গ্রাউন্ডিংয়ের পর থেকে নির্মিত উড়োজাহাজগুলো সরবরাহ করতে কমপক্ষে ২০২১ সাল পর্যন্ত সময় লাগবে। কারণ, এভিয়েশন কর্তৃপক্ষ তাদের এই মডেলের প্রতিটি উড়োজাহাজ পরিদর্শন করে তবেই সনদ দেবে। তাই এই বাড়তি সময়ের প্রয়োজন।

এক বিবৃতিতে বোয়িং জানিয়েছে, চলমান সমস্যার কারণে কর্মচারীদের চাকরি যাবে না। তারা হয় ৭৩৭ এর সঙ্গে সম্পৃক্ত কাজ করে যাবেন অথবা তাদের অস্থায়ীভাবে অন্যান্য কাজে নিযুক্ত করা হবে।

বোয়িং বিবৃতি দিয়ে জানিয়েছে, “নিরাপদে ৭৩৭ ম্যাক্সকে পুনরায় আকাশে উড়ানোই আমাদের সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার।”

Comments

The Daily Star  | English
Uttara-Motijheel metro rail till 8:00 pm

Metro rail services resume after 1.5 hrs

The suspension of metro rail operations caused immense suffering to commuters this evening

14m ago