খেলা

ক্লাব বিশ্বকাপে লিভারপুল চ্যাম্পিয়ন

নির্ধারিত সময়ে মীমাংসা এলো না, খেলা তাই গড়াল অতিরিক্ত সময়ে। সেখানে ব্রাজিলিয়ান ক্লাব ফ্লামেঙ্গোর হন্তারক এক ব্রাজিলীয়! লিভারপুলের ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড রবার্তো ফিরমিনোই যে আনলেন জয়সূচক গোল! প্রথমবারের মতো ফিফা বিশ্ব ক্লাব ফুটবলের শিরোপা উঠে গেল ইংলিশ জায়ান্টদের হাতে।
ছবি: এএফপি

নির্ধারিত সময়ে মীমাংসা এলো না, খেলা তাই গড়াল অতিরিক্ত সময়ে। সেখানে ব্রাজিলিয়ান ক্লাব ফ্লামেঙ্গোর হন্তারক এক ব্রাজিলীয়! লিভারপুলের ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড রবার্তো ফিরমিনোই যে আনলেন জয়সূচক গোল! প্রথমবারের মতো ফিফা বিশ্ব ক্লাব ফুটবলের শিরোপা উঠে গেল ইংলিশ জায়ান্টদের হাতে।

শনিবার রাতে কাতারের দোহায় অতিরিক্ত সময়ের ওই এক গোলেই জিতেছে অল রেডরা। ফলে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের পর দ্বিতীয় ইংলিশ ক্লাব হিসেবে বিশ্ব ক্লাব কাপের শিরোপা জিতল ইয়ুর্গেন ক্লপের শিষ্যরা।

এর আগে ২০০৫ সালে ব্রাজিলেরই আরেক ক্লাব সাও পাওলোর কাছে ফাইনালে হারতে হয়েছিল লিভারপুলকে।

এই ম্যাচে অনুমিতভাবেই ফেভারিট ছিল লিভারপুল। শুরু থেকে সে মেজাজ ছিল তাদের খেলায়। প্রথম কয়েক মিনিট আক্রমণও করেছে বেশি। তবে ফ্লামেঙ্গও দ্রুতই গুছিয়ে নেয়। তারাও বাড়ায় আক্রমণের ধার।

কিন্তু কাঙ্ক্ষিত গোলের দেখাই মিলছিল না। ৫৪তম মিনিটে অবশ্য এগিয়ে যেতে পারত ফ্লামেঙ্গো। লিভারপুলকে বাঁচান আরেক ব্রাজিলিয়ান। গোলরক্ষক অ্যালিসন দারুণ দক্ষতায় আটকে দেন প্রায় নিশ্চিত গোল।

৭৭তম মিনিটে বল জালে জড়িয়ে উদযাপন শুরুই করে দিচ্ছিলেন মোহামেদ সালাহ। কিন্তু অফসাইডের কারণে বাতিল হয় গোলটি।

৯০ মিনিটের নির্ধারিত সময়ে আর কেউই সেভাবে সুযোগ তৈরি করতে পারেনি। অতিরিক্ত সময়ের নবম মিনিটে লিভারপুলের জন্য আসে কাঙ্ক্ষিত মুহূর্ত। সাদিও মানের পাসে বল জালে জড়িয়ে সতীর্থ ও ভক্ত-সমর্থকদের নিয়ে আনন্দে মাতেন ফিরমিনো।

Comments

The Daily Star  | English