খেলা

পাকিস্তানি ক্রিকেটার ছাড়াই এশিয়া একাদশ!

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে এশিয়া একাদশ ও বিশ্ব একাদশের মধ্যে টি-টোয়েন্টি সিরিজ আয়োজন করতে যাচ্ছে বিসিবি। তবে এই সিরিজে এশিয়া একাদশের হয়ে পাকিস্তানি ক্রিকেটারদের খেলা নিয়ে তৈরি হয়েছে অনিশ্চয়তা।
Pakistan Cricket Team
ফাইল ছবি: এএফপি

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে এশিয়া একাদশ ও বিশ্ব একাদশের মধ্যে টি-টোয়েন্টি সিরিজ আয়োজন করতে যাচ্ছে বিসিবি। তবে এই সিরিজে এশিয়া একাদশের হয়ে পাকিস্তানি ক্রিকেটারদের খেলা নিয়ে তৈরি হয়েছে অনিশ্চয়তা।

ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই) যুগ্ম সচিব জয়েস জর্জের বরাত দিয়ে ভারতীয় গণমাধ্যমগুলো জানিয়েছে, এশিয়া একাদশে কোনো পাকিস্তানি ক্রিকেটার থাকছেন না বলে জেনেছেন তারা, ‘এশিয়া একাদশে কোনো পাকিস্তানি ক্রিকেটার নেই বলে অবগত হয়েছি আমরা। দুই দেশের ক্রিকেটারদের একই দলে থাকার প্রশ্নই উঠে না। ভারতের পাঁচ ক্রিকেটার থাকবেন। আর তা ঠিক করবেন সৌরভ গাঙ্গুলি।’

তবে ভারতীয় ক্রিকেটার থাকছে বলেই পাকিস্তানি ক্রিকেটার রাখা হবে না, এমন সিদ্ধান্ত উড়িয়ে দিয়েছেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান। তিনি জানিয়েছেন, বিশেষ ওই সিরিজের জন্য নির্ধারিত সময়ে পাকিস্তান সুপার লিগ (পিএসএল) চলবে। আর এই কারণে না-ও দেখা যেতে পারে কোনো পাকিস্তানিকে, ‘আমাদের সঙ্গে এমন কোনো কথা হয়নি। খেলা হবে বিশ্ব একাদশ ও এশিয়া একাদশের মধ্যে। কাজেই সবারই থাকার সুযোগ আছে।’

পিএসএলের ব্যস্ততার কারণেই এশিয়া একাদশে থাকার ব্যাপারে পাকিস্তানের কাছ থেকে ইতিবাচক সাড়া না পাওয়ার কথা জানান বোর্ড প্রধান, ‘যখন আমরা যোগাযোগ করেছি (এশিয়া একাদশ ও বিশ্ব একাদশের মধ্যে টি-টোয়েন্টি সিরিজ আয়োজনের জন্য), তখন সবাই ইতিবাচক সাড়া দিয়েছে। কেবল পাকিস্তান জানিয়েছে যে ওই সময়টা পিএসএলের সঙ্গে সাংঘর্ষিক হয়। ওরা তারিখ বদলাতে বলেছিল। আমরা বলেছি, এটা সম্ভব না।’

২০২০ সালের ১৭ মার্চ জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী পালিত হবে। এই উপলক্ষে বিসিবি নিয়েছে ব্যাপক কর্মসূচি। সরকারের পক্ষ থেকে ১৮ থেকে ২২ মার্চের মধ্যে এশিয়া একাদশ ও বিশ্ব একাদশের সিরিজ আয়োজন করতে সময় বেঁধে দেওয়া হয়েছে। সে অনুযায়ী, মিরপুর শেরে বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে হবে ম্যাচ দুটি।

এই সিরিজের ম্যাচ বেড়ে যেতে পারে আরেকটি এবং তা হতে পারে ভারতে। গুজরাটের আহমেদাবাদে লক্ষাধিক দর্শক ধারণ ক্ষমতার নতুন স্টেডিয়ামে সিরিজের শেষ ম্যাচ হতে পারে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষেই, ‘এটা তারা (বিসিসিআই) প্রস্তাব করেছে। এটা সত্য। ওই স্টেডিয়াম যদি এই সময়ের মধ্যে তৈরি হয়ে যায়, তাহলে বঙ্গবন্ধুর নামেই একটা ম্যাচ ওই জায়গায় খেলাতে প্রস্তুত তারা।’

Comments