শীর্ষ খবর

আ. লীগে পরিবারতন্ত্র চলছে: ফখরুল

আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে ব্যক্তি ও পরিবারকরণ হচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। দেশকে একদলীয় রাষ্ট্রে পরিণত করার সব প্রস্তুতি শেষ হয়েছে বলেও অভিযোগ করেছেন তিনি।
fakhrul_islam_alamgir_2_0_1.jpg
বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। ফাইল ছবি

আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে ব্যক্তি ও পরিবারকরণ হচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। দেশকে একদলীয় রাষ্ট্রে পরিণত করার সব প্রস্তুতি শেষ হয়েছে বলেও অভিযোগ করেছেন তিনি।

আজ শনিবার (৪ জানুয়ারি) জাতীয় প্রেসক্লাবে জিয়া পরিষদ আয়োজিত বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কবির মুরাদের স্মরণ সভায় মির্জা ফখরুল এসব অভিযোগ করেন। কবির মুরাদ জিয়া পরিষদের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যানও ছিলেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, “তারা সংবিধান ধ্বংস করেছে এবং বাংলাদেশকে একদলীয় রাষ্ট্রে পরিণত করার সব আয়োজন করেছে।  এখানে এক ব্যক্তি হয়ে যাচ্ছে, একটি পরিবার হয়ে যাচ্ছে। লক্ষ্য করলে বুঝতে পারবেন মনোনয়ন কাদের দেওয়া হয় এবং  সংগঠনগুলোর দলীয় প্রধান কাদের বানানো হয়।”

সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিএনপির অংশ নেওয়া প্রসঙ্গে মির্জা ফখরুল বলেন, “আমরা নির্বাচনকে আন্দোলনের অংশ হিসেবে নিচ্ছি। সেই কারণে আমরা নির্বাচনে যাচ্ছি। জনগণকে সঙ্গে নিয়ে আমরা এ সরকারকে পরাজিত করবো।”

বিএনপি মহাসচিব বলেন, “আওয়ামী লীগ কথায় কথায় মুক্তিযুদ্ধ বলে। কিন্তু মুক্তিযুদ্ধ তাদের কাছে একটি প্রোডাক্ট। মুক্তিযুদ্ধের সব অর্জন তারা ব্যর্থ করে দিয়েছে।”

সরকার বিচার বিভাগকে করায়ত্ব করে রেখেছে অভিযোগ করে মির্জা ফখরুল বলেন একদলীয় শাসন ব্যবস্থা কায়েম ও সেটিকে প্রতিষ্ঠিত করার লক্ষ্যে সরকার বিচার বিভাগকে ব্যবহার করছে। তিনি বলেন, “ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ সব পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে রাজনৈতিক বিবেচনায় ভাইস চ্যান্সেলর ও শিক্ষক নিয়োগ দেওয়া হচ্ছে।”

‌জিয়া প‌রিষ‌দের সি‌নিয়র ভাইস চেয়ারম্যান এম স‌লিমুল্লাহ খা‌নের সভাপ‌তি‌ত্বে স্মরণ সভায় অন্যদের মধ্যে বিএন‌পির  স্থায়ী ক‌মি‌টির সদস্য আমীর খসরু মাহম‌ুদ চৌধুরী, ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু, বক্তব্য রাখেন।

Comments

The Daily Star  | English

All animal waste cleared in Dhaka south in 10 hrs: DSCC

Dhaka South City Corporation (DSCC) has claimed that 100 percent sacrificial animal waste has been disposed of within approximately 10 hours

1h ago