তরুণ দিয়াজ নৈপুণ্যে কোপার শেষ ষোলোয় রিয়াল

বদলী খেলোয়াড় হিসেবে নেমে ম্যাচের চিত্র বদলে দেন তরুণ ব্রাহিম দিয়াজ। একটি গোল করেছেন। আরও দুটি হতে পারতো তার নামের পাশে। একটি ঠেকাতে গিয়ে শেষ মুহূর্তে নিজেদের জালেই বল ঢুকিয়ে দেন গনগোরা। আর একটি বারপোস্টে লেগে ফিরে আসে। তার নৈপুণ্যেই তৃতীয় সারির দল ইউনিয়নিস্তাস দে সালামানকাকে ৩-১ গোলের ব্যবধানে হারিয়ে কোপা দেল রের শেষ ষোলোয় উঠেছে রিয়াল মাদ্রিদ।
ছবি: এএফপি

বদলী খেলোয়াড় হিসেবে নেমে ম্যাচের চিত্র বদলে দেন তরুণ ব্রাহিম দিয়াজ। একটি গোল করেছেন। আরও দুটি হতে পারতো তার নামের পাশে। একটি ঠেকাতে গিয়ে শেষ মুহূর্তে নিজেদের জালেই বল ঢুকিয়ে দেন গনগোরা। আর একটি বারপোস্টে লেগে ফিরে আসে। তার নৈপুণ্যেই তৃতীয় সারির দল ইউনিয়নিস্তাস দে সালামানকাকে ৩-১ গোলের ব্যবধানে হারিয়ে কোপা দেল রের শেষ ষোলোয় উঠেছে রিয়াল মাদ্রিদ।

এদিন ম্যাচের ১৮তম মিনিটে এক ডিফেন্ডারের ভুলে গোল খেয়ে বসে স্বাগতিকরা। প্রায় ৪০ গজ দ্যর থেকে লক্ষ্যে শট নিয়েছিলেন হামেস রদ্রিগেজ। এক খেলোয়াড় বল বিপদমুক্ত করতে ব্যর্থ হলে ডি-বক্সেই ফাঁকায় বল পেয়ে যান গ্যারেথ বেল। বুক দিয়ে বল নামিয়ে শট নেন এ ওয়েলস তারকা। এক খেলোয়াড়ের পায়ে লেগে দিক বদলে বল জালে জড়ালে এগিয়ে যায় রিয়াল।

১৯তম মিনিটে সমতায় ফিরতে পারতো ইউনিয়নিস্তাস। হুয়ান গনগোরার দূরপাল্লার শট ঝাঁপিয়ে পড়ে ঠেকিয়ে দেন রিয়াল গোলরক্ষক আরিওলা। ৩৭তম মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করতে পারতো রিয়াল। কাসেমিরোর সঙ্গে দেওয়া নেওয়া করে কোণাকোণি দারুণ এক ভলি করেছিলেন হামেস। কিন্তু বারপোস্টে লেগে তা বেরিয়ে যায়।

৪৮তম মিনিটে গোলমুখে জটলা থেকে গোলরক্ষককে একা পেয়ে গিয়েছিলেন করিম বেনজেমা। কিন্তু তার শট ঠেকিয়ে দেন গোলরক্ষক ব্রাইস পেরেইরো। ৫৭তম মিনিটে মার্সেলোর ভুলে গোল খেয়ে বসে রিয়াল। নিজেদের অর্ধে সতীর্থকে ঠিক ভাবে দিতে না পারলে বল ধরে ফেলেন আলভারো রোমেরো। বল নিয়ে ডি-বক্সে ঢুকে অসাধারণ এক শটে লক্ষ্যভেদ করতে কোন ভুল করেননি এ ফরোয়ার্ড।

অবশ্য ফের এগিয়ে যেতে তিন মিনিটের বেশি সময় নেয়নি রিয়াল। বেনজেমার বাড়ানো বলে কাটব্যাক করেন মার্সেলো। আলতো টোকায় বল জালে দিকে ঠেলে দেন ব্রাহিম দিয়াজ। তবে শেষ মুহূর্তে বল ঠেকাতে গিয়ে নিজেদের জালেই বল পাঠিয়ে দেন স্প্যানিশ ডিফেন্ডার গনগোরা। ৭৮তম মিনিটে ফের সমতায় ফিরতে পারতো ইউনিয়নিস্তাস। কর্নার থেকে ছোট ডি-বক্সে একেবারে ফাঁকায় শট নিয়েছিলেন কার্লোস দি লা নাভা। কিন্তু তার শট অবিশ্বাস্য দক্ষতায় ধরে ফেলেন আরিওলা।

৮৪তম মিনিটে ব্যবধান আরও বাড়াতে পারতো রিয়াল। কিন্তু দিয়াজের দূরপাল্লার শট বারপোস্টে লেগে ফিরে আসে। তবে ম্যাচের যোগ করা সময়ের দ্বিতীয় মিনিটে তরুণ স্প্যানিশ ফরোয়ার্ড দিয়াজকে আর হতাশ হতে হয়নি। ডান প্রান্ত থেকে তিন ডিফেন্ডারকে কাটিয়ে দারুণ এক কোণাকোণি শটে লক্ষ্যভেদ করেন এ স্প্যানিশ তরুণ। ফলে জয় নিশ্চিত হয়ে যায় রিয়ালের।

Comments

The Daily Star  | English

Pahela Baishakh being celebrated

Pahela Baishakh, the first day of Bengali New Year-1431, is being celebrated across the country today with festivity, upholding the rich cultural values and rituals of the Bangalees

1h ago