ইইউ পার্লামেন্টের সিএএ-বিরোধী প্রস্তাব অযৌক্তিক: লোকসভা স্পিকার

ভারতের সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন (সিএএ) বিরোধী প্রস্তাব পেশ হওয়ায় ইউরোপীয় ইউনিয়নকে (ইইউ) চিঠি লিখেছেন লোকসভার স্পিকার ওম বিড়লা।
om-birla.jpg
লোকসভার স্পিকার ওম বিড়লা। ছবি: সংগৃহীত

ভারতের সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন (সিএএ) বিরোধী প্রস্তাব পেশ হওয়ায় ইউরোপীয় ইউনিয়নকে (ইইউ) চিঠি লিখেছেন লোকসভার স্পিকার ওম বিড়লা।

এই প্রস্তাব একটি ‘অস্বাস্থ্যকর নজির’ স্থাপন করবে উল্লেখ করে তিনি লিখেছেন, “একটি আইনসভার পক্ষে অন্যের ওপর রায় চাপিয়ে দেওয়া অনুচিত, এটি এমন এক অভ্যাস যাকে স্বার্থের কারণে অপব্যবহার করা যায়।”

এনডিটিভিরি প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সিএএ প্রসঙ্গে ওম বিড়লা লিখেছেন, “নাগরিকত্ব আইন সংসদের উভয় সভায় যথাযথভাবে বিবেচনা করেই পাস করা হয়েছে।”

ইইউ পার্লামেন্ট সভাপতিকে সম্বোধন করে ওই চিঠিতে লেখা হয়েছে, “এই আইনটিতে আমাদের প্রতিবেশী দেশগুলিতে যারা ধর্মীয় নিপীড়নের শিকার হয়েছেন, তাদের সহজ উপায়ে নাগরিকত্ব দানের বিধান রয়েছে। এটি কারও কাছ থেকে নাগরিকত্ব ছিনিয়ে নেওয়ার লক্ষ্যে পাস করা হয়নি।”

এর আগে, ইইউ’র ৭৫১ জন সদস্যের মধ্যে ৬২৬ জন সিএএ এবং জম্মু ও কাশ্মীর প্রসঙ্গে ছয়টি বিরোধী প্রস্তাব পেশ করেন। আগামী মার্চে ভারত-ইইউ শীর্ষ সম্মেলনে যোগ দিতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ব্রাসেলস যাওয়ার প্রাক্কালে এ ধরণের প্রস্তাব পেশ করা হয়েছে।

দেড় শতাধিক আইন প্রণেতা ইউরোপীয় ইউনিয়নকে ভারতের সঙ্গে যেকোনো বাণিজ্য চুক্তির করার সময় ‘কার্যকারণ এবং স্থগিতকরণ ব্যবস্থার সঙ্গে একটি শক্তিশালী মানবাধিকার ধারা’র ওপর জোর দেওয়ার দাবি জানিয়েছিলেন।

আগামী সপ্তাহে ব্রাসেলসে শুরু হওয়া ইউরোপীয় পার্লামেন্টের পূর্ণাঙ্গ অধিবেশনে এই প্রস্তাবগুলি উপস্থাপন করা হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

ইতিমধ্যে সিএএ এবং জম্মু ও কাশ্মীরের পরিস্থিতি বিচারে বিশ্ব গণতান্ত্রিক সূচকে ভারতকে ১০ সূচক নামিয়ে দিয়েছে ইকোনমিস্ট ইন্টেলিজেন্স ইউনিট।

যদিও ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে বলা হয়েছে, এটি সম্পূর্ণরূপে ‘ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয়’। ভারতীয় সংসদের উভয় কক্ষে ‘যথাযথ প্রক্রিয়া অবলম্বন করে এবং পুরোপুরি গণতান্ত্রিক উপায়ে’ সিএএ গৃহীত হয়েছে।

এ মাসের শুরুর দিকে বিদেশি কূটনীতিকদের জম্মু ও কাশ্মীর সফর স্থগিত করে দেয় ইউরোপীয় ইউনিয়ন। এর কারণ হিসেবে জানানো হয় যে, রাষ্ট্রদূতরা ওই অঞ্চলে ‘নিয়ন্ত্রণমূলক সফর’ চান না।

আরও পড়ুন:

ইউরোপীয় পার্লামেন্টে সিএএ বিরোধী প্রস্তাব, ভারত বলছে ‘অভ্যন্তরীণ বিষয়’

Comments

The Daily Star  | English

Hiring begins with bribery

UN independent experts say Bangladeshi workers pay up to 8 times for migration alone due to corruption of Malaysia ministries, Bangladesh mission and syndicates

30m ago