শেষ বলে রোহিতের ছক্কায় সুপার ওভারে ভারতের নাটকীয় জয়

রোহিত শর্মার ঝড় ফিফটিতে চ্যালেঞ্জিং পূঁজি পেয়েছিল ভারত। অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসনের ব্যাটে সেই রান পেরিয়ে অনায়াসে জেতার পথে ছিল নিউজিল্যান্ড। শেষ ওভারে নাটকের পর উইলিয়াসন হন সেঞ্চুরি বঞ্চিত, ম্যাচ হয়ে যায় টাই। পরে সুপার ওভারেও উইলিয়ামস নেমে ঝড় তুলেছিলেন, পালটা ঝড়ে জবাব দিয়ে ম্যাচ কেড়ে নেন সেই রোহিতই।

রোহিত শর্মার ঝড় ফিফটিতে চ্যালেঞ্জিং পূঁজি পেয়েছিল ভারত। অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসনের ব্যাটে সেই রান পেরিয়ে অনায়াসে জেতার পথে ছিল নিউজিল্যান্ড। শেষ ওভারে নাটকের পর উইলিয়াসন হন সেঞ্চুরি বঞ্চিত, ম্যাচ হয়ে যায় টাই। পরে সুপার ওভারেও উইলিয়ামস নেমে ঝড় তুলেছিলেন, পালটা ঝড়ে জবাব দিয়ে ম্যাচ কেড়ে নেন সেই রোহিতই। 

বুধবার হ্যামিল্টনে তৃতীয় টি-টোয়েন্টিতে সুপার ওভারের রোমাঞ্চে নিউজিল্যান্ডকে হারিয়েছে ভারত। পাঁচ ম্যাচের সিরিজ নিশ্চিত করেছে ৩-০ তে। ভারতে করা ১৭৯ রানের জবাবে উইলিয়ামসনের ৯৫ রানে নিউজিল্যান্ডও করে ১৭৯। পরে সুপার ওভারে নিউজিল্যান্ডের দেওয়া ১৮ রানের লক্ষ্য শেষ বলে ছক্কায় পুরো করে ফেলেন রোহিত। 

অথচ ম্যাচটা সুপার ওভারে যাওয়ার কোন আভাসই ছিল না। বরং দুই-এক বল আগেই জেতার অবস্থায় ছিল কিউইরা।  শেষ ওভারে জেতার জন্য নিউজিল্যান্ডের দরকার ছিল ৯ রান। সেঞ্চুরি পেতে উইলিয়ামসনের ৫ রান। মোহাম্মদ শামির প্রথম বলেই ছক্কা মেরে দেন রস টেইলর। পরের বলে সিঙ্গেল নিলে স্ট্রাইক পান উইলিয়ামসন। জিততে দরকার ৪ বলে মাত্র ২ রান। উইলিয়মস আপার কাট করতে গিয়ে উইকেটের পেছনে দিয়ে দিলেন ক্যাচ। ম্যাচ গেল বদলে। পরের তিন বল থেকে এলো আর ১ রান, আউট হলেন রস টেইলরও। ম্যাচ হয়ে গেল টাই। 

সুপার ওভারের প্রথম দুই বলে দুই সিঙ্গেল, তৃতীয় বলে ছক্কা, চতুর্থ বলে চার মারেন উইলিয়ামসন। পঞ্চম বলে এক রানের পর শেষ বলে মার্টিন গাপটিল পেটান আরেক চার। ওভারে আসে ১৭ রান। 

ওই রান তাড়ায় নেমে লোকেশ রাহুল-রোহিত শর্মা প্রথম চার বলে নেন ৮ রান। শেষ দুই বলে দরকার দাঁড়ায় ১০ রান। টিম সাউদিকে টানা দুই ছক্কা মেরে উল্লাসে মাতেন রোহিত।

এর আগে ম্যাচে বার কয়েক বদলেছে রঙ। কখনো ম্যাচ হেলেছে নিউজিল্যান্ডের দিকে, কখনো ভারতকে দেখা গেছে এগিয়ে। 

১৮০ রানের লক্ষ্য পেয়ে দারুণ শুরু পায় নিউজিল্যান্ড। ওপেনার মার্টিন গাপটিল ছিলেন তেতে। পাওয়ার প্লে কাজে লাগিয়ে দ্রুত রান বাড়ান কিউই ওপেনাররা। ২১ বলে ৩১ করা গাপটিলকে ফিরিয়ে জুটি ভাঙেন শার্দুল ঠাকুর। ১৬ বলে ১৪ করে  কলিন মনরো ফিরে যান রবীন্দ্র জাদেজার স্পিনে। ৫২ রানে ২ উইকেট হারায় স্বাগতিকরা। 

তিনে নেমে অধিনায়ক উইলিয়ামস নেন পুরো দায়িত্বের ভার। চারে নামা মিচেল স্যান্টনার আর কলিন ডি গ্র্যান্ডহোমকে এক পাশে রেখেই ছুটতে থাকেন তিনি। কিন্তু  স্যান্টনার ৯, গ্র্যান্ডহোম ফেরেন ৫ রান করে ফিরলে ম্যাচ ফেরে ভারত। একপাশে উইকেট গেলেও রানের চাকা পড়তে দেননি অধিনায়ক। একা হাতে নাটাই ধরে দলকে রাখেন পথে। 

নিজে সেঞ্চুরি আর দলকে জেতানোর দিকেই নিয়ে যাচ্ছিলেন তিনি। শেষ দিকে নেমে কাজটা সহজ করে দিচ্ছিলেন রস টেইলরু।  কিন্তু শেষ ওভারের নাটকে তালগোল পাকিয়ে যায় সব। ৪৮ বলে ৮ চার, ৬ ছক্কায় ৯৫ রানে প্রথম দফায় শেষ হয় উইলিয়ামসনের ইনিংস। 

টস হেরে ব্যাটিং পেয়ে ভারতের শুরুটাও হয়েছিল উড়ন্ত। রোহিত শর্মা আর লোকেশ রাহুল ওভারপ্রতি ১০ করে আনতে থাকেন। রাহুল ১৯ বলে ২৭ করে ফিরলে দুজনের জুটি ভাঙে নবম ওভারে। ততক্ষণে স্কোরবোর্ডে জমা ৮৯ রান। 

এক ওভার পর থামেন রোহিত। ততক্ষণে তিনি তুলে নিয়েছেন ফিফটি। ৪০ বলে করে ফেলেছেন ৬৫ রান। এরপর অধিনায়ক বিরাট কোহলি ২৭ বলে ৩৮, শ্রেয়াস আইয়ারে আউট হন ১৬ বলে ১৭ করে। মানিষ পান্ডে ৬ বলে ১৪ আর রবীন্দ্র জাদেজা ৫ বলে ১০ করলে ভারত পায় শক্ত পূঁজি। 

 

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

ভারত: ২০ ওভারে ১৭৯/৫ ( রোহিত ৬৫, রাহুল ২৭, দুভে ৩, কোহলি ৩৮, শ্রেয়াস ১৭, মানিষ ১৪*, জাদেজ ১০ ; সাউদি ০/৩৯, বেনেট ৩/৫৪, স্কট ০/১০, স্যান্টনার ১/৩৭, সোধি ০/২৩, গ্র্যান্ডহোম ১/১৩)

নিউজিল্যান্ড:  ২০ ওভারে   ১৭৯/৬  (গাপটিল ৩১ , মনরো ১৪,  উইলিয়ামসন ৯৫ , স্যান্টনার ৯, গ্র্যান্ডহোম ৫, টেইলর ১৭, সেইফার্ট ০*; শার্দুল ২/২১, শামি ২/৩২ , বোমরাহ ০/৪৫ , চেহেল ১/৩৬ , জাদেজা ১/২৩, দুভে ০/১৪ )

সুপার ওভার



নিউজিল্যান্ড- ১৭

ভারত -   ২০

ফল: ভারত সুপার ওভারে জয়ী।



ম্যাচ সেরা: রোহিত শর্মা।

সিরিজ- পাঁচ ম্যাচ সিরিজ দুই ম্যাচ হাতে রেখেই ভারত ৩-০ তে জয়ী।

Comments

The Daily Star  | English

Cyclone Remal makes landfall

The eye of the cyclonic storm is scheduled to cross Bangladesh between 12:00-1:00am after which the cyclone is expected to weaken

26m ago