যেভাবে ১০ দিনে হাসপাতাল বানালো চীন

করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের চিকিৎসা দিতে মাত্র ১০ দিনে হওশেনশান হাসপাতালের নির্মাণ কাজ শেষ করেছে চীন। ৩৬৬,০০০ বর্গ ফুট জমির ওপর নির্মিত হাসপাতালের দুই তলায় মোট ২,৫০০ রোগীকে সেবা দেওয়া হবে।
Huoshenshan Hospital in Wuhan.jpg
উহানে মাত্র ১০ দিনে হওশেনশান হাসপাতালের নির্মাণ কাজ শেষ করেছে চীন। ছবি: রয়টার্স

করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের চিকিৎসা দিতে মাত্র ১০ দিনে হওশেনশান হাসপাতালের নির্মাণ কাজ শেষ করেছে চীন। ৩৬৬,০০০ বর্গ ফুট জমির ওপর নির্মিত হাসপাতালের দুই তলায় মোট ২,৫০০ রোগীকে সেবা দেওয়া হবে।

দেশটির রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম জানায়, গত শনিবার সকালে হাসপাতালের নির্মাণ কাজ শেষ হয়েছে। হাসপাতালটি নির্মাণে একশ’ যন্ত্র ব্যবহার করে এক হাজারের বেশি শ্রমিক নিরবচ্ছিন্নভাবে কাজ করেছেন।

সোমবার হওশেনশান হাসপাতালে প্রথম রোগী ভর্তি নেওয়া হয়। কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, কয়েকদিনের মধ্যে দ্বিতীয় তলায় সেবা দেওয়া হবে।

এই হাসপাতালের চিকিৎসা সেবায় নিয়োজিত থাকবেন এক হাজার ৪০০ সামরিক চিকিৎসক।

দেশটির রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম আরও জানায়, ২০০৩ সালে চীনে সার্সভাইরাস ছড়িয়ে পড়লে বেইজিংয়ের জন্য হাসপাতালের নকশা তৈরি করা হয়েছিল। সেই নকশা অনুযায়ী হাসপাতালটি নির্মাণ করা হয়েছে। তবে পরিচয় গোপন রাখার শর্তে প্রকল্প সংশ্লিষ্ট এক কর্মকর্তা সিএনএনকে বলেন, হাসপাতালটি নির্মাণ করার সময় ওই নকশা অনুসরণ করা হয়নি।

তিনি বলেন, আমরা আমাদের মতো করে নির্মাণ কাজ করেছি। সরাসরি নকশা অনুসরণ করা হয়নি।

কর্তৃপক্ষ জানায়, প্রকৌশলীরা নিশ্চিত করেছেন ‘আইসোলেটেড ওয়ার্ডে’ পর্যাপ্ত বাতাস আসবে কিন্তু বাতাস বাইরে যাবে না। ফলে ভাইরাস ছড়াবে না। তবে অনেকেই হাসপাতালের সার্বিক ব্যবস্থাপনা এবং সুরক্ষা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন।

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে চীনে এখন পর্যন্ত ৭২২ জন মারা গেছেন এবং মোট আক্রান্ত হয়েছেন ৩৪ হাজার ৫৪৬ জন। এর মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন ৮৬ জন। এদের মধ্যে ৮১ জন হুবেই প্রদেশের এবং বাকি পাঁচজন অন্য প্রদেশের বাসিন্দা। এছাড়া নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৩ হাজার ৩৯৯ জন।

Comments

The Daily Star  | English

Sundarbans cushions blow

Cyclone Remal battered the coastal region at wind speeds that might have reached 130kmph, and lost much of its strength while sweeping over the Sundarbans, Met officials said. 

3h ago