শীর্ষ খবর

বিমানবন্দরে গ্রেপ্তার শীর্ষ সন্ত্রাসীর বাড়িতে মিলল একে-২২ এলজি

চট্টগ্রামের বায়েজিদ বোস্তামি এলাকায় সন্ত্রাসী সারোয়ার ওরফে বাবলার বাড়িতে অভিযান চালিয়ে একটি একে-২২ রাইফেল জব্দ করেছে পুলিশ। বাড়িটি থেকে ৩০টি বুলেট, একটি এলজি ও এর চারটি কার্ট্রিজও পাওয়া গেছে।

চট্টগ্রামের বায়েজিদ বোস্তামি এলাকার শীর্ষ সন্ত্রাসী সারোয়ার ওরফে বাবলার বাড়িতে অভিযান চালিয়ে একটি একে-২২ রাইফেল জব্দ করেছে পুলিশ। বাড়িটি থেকে ৩০টি বুলেট, একটি এলজি ও এর চারটি কার্ট্রিজও পাওয়া গেছে।

কাতার থেকে আসার পর শনিবার ঢাকায় শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে সারোয়ারকে গ্রেপ্তার করে ইমিগ্রেশন পুলিশ। সে আরেক শীর্ষ সন্ত্রাসী নুরুন্নবি ওরফে ম্যাক্সনের ঘনিষ্ঠ সহযোগী। নুরুন্নবি শিবিরের ক্যাডার হিসেবে পরিচিত। ২০১১ সালেও পাঁচটি আগ্নেয়াস্ত্রসহ এই দুজনকে গ্রেপ্তার করেছিল পুলিশ। তখনও জব্দ করা পাঁচটি আগ্নেয়াস্ত্রের মধ্যে একটি একে-২২ ছিল।

চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের সহকারী কমিশনার পরিত্রাণ তালুকদার জানান, ইমিগ্রেশন পুলিশের হাতে গ্রেপ্তার হওয়ার পর শনিবার সারোয়ারকে চট্টগ্রামে নিয়ে আসা হয়। স্বীকারোক্তি অনুযায়ী বায়েজিদ বোস্তামির খন্দকিয়া পাড়ায় তার বাড়িতে অভিযান চালিয়ে অস্ত্র ও গুলি জব্দ করা হয়।

ওই পুলিশ কর্মকর্তা জানান, সারোয়ার তিন বছর আগে কাতারে পালিয়ে গিয়েছিল। সেখানে মারামারির একটি ঘটনায় এক মাসের কারাদণ্ড হয় তার। সাজার মেয়াদ শেষে তাকে বাংলাদেশে ফেরত পাঠানো হয়। এর পরই ঢাকায় বিমানবন্দর থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে ইমিগ্রেশন পুলিশ।

পুলিশ জানায়, হত্যা, চাঁদাবাজির মাধ্যমে চট্টগ্রামে ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করেছিল শিবির ক্যাডার ম্যাক্সন ও সারোয়ার। বিদেশে বসেই তারা স্থানীয় সন্ত্রাসীদের মাধ্যমে চাঁদাবাজি চালিয়ে যাচ্ছিল।

Comments