রাজধানীর সবুজবাগে আনসার আল-ইসলামের ৫ জঙ্গি গ্রেপ্তার

রাজধানীর সবুজবাগ এলাকা থেকে জঙ্গি সংগঠন আনসার আল-ইসলাম’র পাঁচ সদস্যকে আটক করেছে কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্রান্স ন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি)।
Ansar Al-Islam
ছবি: সংগৃহীত

রাজধানীর সবুজবাগ এলাকা থেকে জঙ্গি সংগঠন আনসার আল-ইসলাম’র পাঁচ সদস্যকে আটক করেছে কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্রান্স ন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি)।

আজ দুপুর ১২টায় ডিএমপির মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের যুগ্ম কমিশনার ইলিয়াস শরীফ জানান, গ্রেপ্তার পাঁচ জঙ্গি ইসকন মন্দিরে হামলার পরিকল্পনাকারী। গতকাল বিকালে সবুজবাগ বালুর মাঠ এলাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তার ব্যক্তিরা হলেন— মো. নিজাম উদ্দিন, মো. রায়হান ভূঁইয়া, মো. হানিফ উদ্দিন সুমন, শেখ ইফতেখারুল ইসলাম ওরফে আরিফ ও মুফতি মুসলিম উদ্দিন ওরফে মুসলিম।

ইলিয়াস শরীফ বলেন, “গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এসময় তাদের কাছে পাওয়া ৩টি চাপাতি, ৩টি ব্যাগ ও ৪টি মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়েছে। নিজাম উদ্দিন চট্টগ্রামের একটি মাদরাসায় চাকরি করেন। রায়হান মালয়েশিয়া থেকে কিছুদিন আগে দেশে আসেন, হানিফ চট্টগ্রামের একটি শিপ ব্রেকিং ইয়ার্ডয়ে চাকরি করেন, ইফতেখারুল ইসলাম ময়মনসিংহ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ভেটেরিনারি মেডিসিনের ওপর পড়ালেখা করেছেন এবং মুসলিম উদ্দিন ফরিদপুরের বোয়ালমারীতে একটি মাদরাসায় চাকরি করেন।”

“গত বছরের নভেম্বর মাসে আনসার আল-ইসলামের নেতা আবু কায়সার ওরফে রনির নির্দেশে জঙ্গিরা ইসকন মন্দির ও ইসকনের অন্যান্য স্থাপনায় হামলার পরিকল্পনা করে। ওই পরিকল্পনায় জড়িত তিনজনকে আগেই গ্রেপ্তার করা হয়। তাদেরই অনুসারী গ্রেপ্তার পাঁচজন। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা জানিয়েছেন, নাশকতামূলক কর্মকাণ্ডের উদ্দেশ্যে প্রশিক্ষণ নিতে দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে এসে তারা সবুজবাগে একত্রিত হয়েছিলেন। তাদের যোগাযোগ হতো অনলাইন অ্যাপ টেলিগ্রাম ও ক্রিপ্টোকারেন্সির মাধ্যমে। সাংগঠনিক কর্মকাণ্ড পরিচালনায় অনলাইন মাধ্যমে তারা অর্থ সংগ্রহ করতেন”, বলেন ইলিয়াস শরীফ।

Comments

The Daily Star  | English