ষষ্ঠবারে কপাল খুলল মেসির, গড়লেন ইতিহাস

লুইস হ্যামিল্টনের সঙ্গে যৌথভাবে লিওনেল মেসি জিতলেন বর্ষসেরা ক্রীড়াবিদের পুরস্কার। প্রথম ফুটবলার হিসেবে এই পুরস্কার জিতে ইতিহাসের পাতায় নতুন করে আরও একবার ঠাঁই নিলেন আর্জেন্টাইন তারকা ফরোয়ার্ড।
lionel messi
ছবি: এএফপি

মর্যাদাপূর্ণ লরিয়াস পুরস্কারের জন্য আগেও পাঁচবার মনোনীত হয়েছিলেন লিওনেল মেসি। কিন্তু কোনোবারই জিততে পারেননি। অবশেষে ষষ্ঠবারে এসে কপাল খুলল তার। লুইস হ্যামিল্টনের সঙ্গে যৌথভাবে জিতলেন বর্ষসেরা ক্রীড়াবিদের পুরস্কার। প্রথম ফুটবলার হিসেবে এই পুরস্কার জিতে ইতিহাসের পাতায় নতুন করে আরও একবার ঠাঁই নিলেন আর্জেন্টাইন তারকা ফরোয়ার্ড।

সোমবার রাতে জার্মানির বার্লিনে এক জাঁকজমকপূর্ণ আয়োজনে পুরস্কার বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করা হয়। লরিয়াস পুরস্কারের ২০ বছরের ইতিহাসে এবারই প্রথম যৌথভাবে নির্বাচিত হলো বর্ষসেরা ক্রীড়াবিদ। ফর্মুলা ওয়ান তারকা হ্যামিল্টন ও মেসি, দুজনেই সমানসংখ্যক ভোট পেয়ে ‘বেস্ট স্পোর্টসম্যান অব দ্য ইয়ার’ হন।

গেল বছর বর্ষসেরা ক্রীড়াবিদ হয়েছিলেন সার্বিয়ার টেনিস তারকা নোভাক জোকোভিচ। তার উত্তরসূরি হতে ৩২ বছর বয়সী বার্সেলোনা অধিনায়ক পেছনে ফেলেন টেনিস তারকা রাফায়েল নাদাল, ম্যারাথনার এলিদু কিপচোগে ও কিংবদন্তি গলফার টাইগার উডসের মতো তারকাদের। তবে ছুটিতে থাকায় পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে যেতে পারেননি মেসি।

গেল বছরে স্প্যানিশ ক্লাব বার্সার হয়ে লা লিগার শিরোপা জেতেন মেসি। লিগের সর্বোচ্চ গোলদাতার পুরস্কার পিচিচি ট্রফি জয়ের পাশাপাশি জেতেন ইউরোপিয়ান গোল্ডেন শ্যু। এরপর ফিফা দ্য বেস্ট এবং রেকর্ড ষষ্ঠবারের মতো ব্যালন ডি’অর পুরস্কার নিজের করে নেন মেসি।

তৃতীয়বারের মতো বর্ষসেরা নারী ক্রীড়াবিদ হন সিমোনে বাইলস। এর আগে ২০১৭ ও ২০১৯ সালেও পুরস্কারটি জিতেছিলেন যুক্তরাষ্ট্রের ২২ বছর বয়সী জিমন্যাস্ট।

বর্ষসেরা দল নির্বাচিত হয় দক্ষিণ আফ্রিকার রাগবি দল। গেল বছর জাপানের মাটিতে তৃতীয়বারের মতো বিশ্বকাপ জেতা দলটির সঙ্গে দ্বৈরথে পেরে ওঠেনি ইংলিশ ক্লাব লিভারপুল ও বিশ্বকাপ শিরোপাজয়ী যুক্তরাষ্ট্রের নারী ফুটবল দল।

গেল দুই দশকের ‘বেস্ট স্পোর্টিং মোমেন্ট’-এর পুরস্কার জেতেন ভারতের কিংবদন্তি সাবেক তারকা ব্যাটসম্যান শচীন টেন্ডুলকার। বিভিন্ন ক্যাটাগরির মধ্যে কেবল এই পুরস্কারটিতে সাধারণ দর্শকদের ভোট দেওয়া সুযোগ ছিল। ঘরের মাটিতে ২০১১ বিশ্বকাপ জেতার পর শচীনকে ঘাড়ে তুলে উদযাপন করেছিল ভারতীয় ক্রিকেট দল। ওই মুহূর্তটি এখনও গেঁথে আছে সমর্থকদের হৃদয়ে।

Comments

The Daily Star  | English
Impact of poverty on child marriages in Rasulpur

The child brides of Rasulpur

As Meem tended to the child, a group of girls around her age strolled past the yard.

13h ago