বেঙ্গালুরুতে ‘পাকিস্তান জিন্দাবাদ’ স্লোগান দেওয়ায় রাষ্ট্রদ্রোহিতার মামলা

ভারতের বেঙ্গালুরুতে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনবিরোধী সমাবেশে ‘পাকিস্তান জিন্দাবাদ’ স্লোগান দেওয়া গ্রেপ্তার করা হয়েছে এক তরুণীকে। তার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহিতার মামলা দায়ের করা হয়েছে।
Pakistan Zindabad
ভারতের বেঙ্গালুরুতে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনবিরোধী সমাবেশে ‘পাকিস্তান জিন্দাবাদ’ বলায় তরুণীকে মঞ্চ থেকে নামিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করছেন আয়োজকরা। ছবি: এনডিটিভি থেকে নেওয়া

ভারতের বেঙ্গালুরুতে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনবিরোধী সমাবেশে ‘পাকিস্তান জিন্দাবাদ’ স্লোগান দেওয়া গ্রেপ্তার করা হয়েছে এক তরুণীকে। তার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহিতার মামলা দায়ের করা হয়েছে।

আজ শুক্রবার ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গতকাল বেঙ্গালুরুতে ‘সংবিধান রক্ষা করুন’ ব্যানারে আয়োজিত প্রতিবাদ সমাবেশে এক তরুণী সমবেত জনতার উদ্দেশে ‘পাকিস্তান জিন্দাবাদ’ স্লোগান দেওয়ার আহ্বান জানান।

হায়দরাবাদের সংসদ সদস্য আসাদউদ্দিন ওয়াইসির উপস্থিতিতেই এ ঘটনা ঘটে।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, তরুণীর মুখে ওই স্লোগান শুনে ছুটে আসেন আসাদউদ্দিন ওয়াইসি ও আরও দুই ব্যক্তি। তারা ওই তরুণীর মুখের সামনে থেকে মাইক্রোফোন সরিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করেন। সেসময় ছুটে আসেন অনুষ্ঠানের আয়োজকরাও।

তরুণীর কাছ থেকে মাইক্রোফোন কেড়ে নিয়ে ওয়াইসি বলেন, “আমরা কোনোভাবেই আমাদের শত্রু দেশ পাকিস্তানকে সমর্থন করি না।”

তিনি আরও বলেন, “আমি এই তরুণীর সঙ্গে একমত নই। তার সঙ্গে আমার বা আমার দলের কোনো সম্পর্ক নেই। আয়োজকদের তাকে এখানে ডাকা উচিত হয়নি। আর আমি যদি এটা আগে থেকে জানতাম তাহলে আমিও এখানে আসতাম না।”

“আমরা ভারতের পক্ষে। আমরা কোনোভাবেই শত্রু দেশকে সমর্থন করি না। আমাদের পুরো আন্দোলন ভারতকে বাঁচানোর জন্যেই,” যোগ করেন সংসদ সদস্য ওয়াইসি।

পুলিশ কর্মকর্তা বি রমেশ গণমাধ্যমকে বলেছেন, “আমরা ঐ তরুণীর বিরুদ্ধে ধারা ১২৪ (এ) (রাষ্ট্রদ্রোহিতা), ১৫৩ (এ) এবং (বি) (বিভিন্ন গোষ্ঠীর মধ্যে উস্কানিমূলক বক্তব্য প্রচার করা) এবং চক্রান্ত করার অভিযোগে মামলা করেছি।”

তরুণীর জামিন আবেদন খারিজ করে তিনদিনের বিচারবিভাগীয় হেফাজতে পাঠানো হয়েছে। আগামী সোমবার একটি স্থানীয় আদালতে তার জামিনের আবেদনের শুনানি হবে বলে জানা গেছে।

উল্লেখ্য, সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন (সিএএ), জাতীয় নাগরিকপঞ্জিকরণ (এনআরসি) এবং জাতীয় জনসংখ্যা নিবন্ধীকরণের (এনপিআর) এর বিরুদ্ধে ভারতজুড়ে প্রতিবাদ সমাবেশ চলছে।

Comments