অ্যাগারের হ্যাটট্রিকে নাজেহাল দক্ষিণ আফ্রিকা

ব্যাট হাতে ক্যামিও ইনিংস খেলার পর বল হাতেও জ্বলে উঠলেন অ্যাশটন অ্যাগার। করলেন হ্যাটট্রিক। ক্যারিয়ারসেরা নৈপুণ্যে সবমিলিয়ে নিলেন ৫ উইকেট। এই স্পিন অলরাউন্ডারের ঘূর্ণি জাদুর সামনে অসহায় দক্ষিণ আফ্রিকা গুটিয়ে গেল টি-টোয়েন্টিতে নিজেদের সর্বনিম্ন রানে। পেল সবচেয়ে বড় হারের তেতো স্বাদ।
ashton agar
অ্যাশটন অ্যাগার। ছবি: আইসিসি

ব্যাট হাতে ক্যামিও ইনিংস খেলার পর বল হাতেও জ্বলে উঠলেন অ্যাশটন অ্যাগার। করলেন হ্যাটট্রিক। ক্যারিয়ারসেরা নৈপুণ্যে সবমিলিয়ে নিলেন ৫ উইকেট। এই স্পিন অলরাউন্ডারের ঘূর্ণি জাদুর সামনে অসহায় দক্ষিণ আফ্রিকা গুটিয়ে গেল টি-টোয়েন্টিতে নিজেদের সর্বনিম্ন রানে। পেল সবচেয়ে বড় হারের তেতো স্বাদ।

শুক্রবার রাতে জোহানেসবার্গে তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টিতে ১০৭ রানের বিশাল ব্যবধানে হেরেছে স্বাগতিক দক্ষিণ আফ্রিকা। টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চ ও স্টিভেন স্মিথের গড়ে দেওয়া ভিতকে কাজে লাগিয়ে ৬ উইকেটে ১৯৬ রান তোলে অস্ট্রেলিয়া। জবাবে ৩৩ বল বাকি থাকতে মাত্র ৮৯ রানে অলআউট হয় প্রোটিয়ারা।

ইনিংসের অষ্টম ওভারে আক্রমণে আসা অ্যাগার চতুর্থ বলে ফ্যাফ ডু প্লেসিকে ফিরিয়ে শুরু করেন তাণ্ডব। এর পরের দুই ডেলিভারিতে আন্দিল ফেলুকওয়ায়ো ও ডেল স্টেইনকে বিদায় করে দ্বিতীয় অস্ট্রেলিয়ান হিসেবে টি-টোয়েন্টিতে হ্যাটট্রিক করার কীর্তি গড়েন তিনি। আগের হ্যাটট্রিকটি করেছিলেন সাবেক তারকা পেসার ব্রেট লি।

পরে আরও একবার হ্যাটট্রিকের সম্ভাবনা জাগান ম্যাচসেরার পুরস্কার জেতা অ্যাগার! দ্বাদশ ওভারের শেষ বলে পিট ভ্যান বিলিয়নকে শিকার করার পর চতুর্দশ ওভারের প্রথম বলে লুঙ্গি এনগিডিকে আউট করে ৫ উইকেট পেয়ে যান তিনি। তাবরাইজ শামসি পরের বলটিতে কোনোক্রমে বেঁচে গেলে এক ইনিংসে দুই হ্যাটট্রিক করার অসাধারণ রেকর্ডবঞ্চিত হন অ্যাগার। সবমিলিয়ে ৪ ওভারে ৫ উইকেট নিতে তার খরচা ২৪ রান।

টি-টোয়েন্টিতে দক্ষিণ আফ্রিকার আগের সর্বনিম্ন স্কোর ছিল ৯৮। ২০১৮ সালে কলম্বোয় শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে এই রানে অলআউট হয়েছিল দলটি। ক্ষুদ্রতম সংস্করণের ক্রিকেটে এই প্রথম একশর বেশি রানের ব্যবধানে হেরেছে প্রোটিয়ারা। এর আগে দুবার তারা হেরেছিল ৯৫ রানের ব্যবধানে, ২০০৬ সালে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে এবং ২০১৩ সালে পাকিস্তানের বিপক্ষে।

পোর্ট এলিজাবেথে আগামীকাল রবিবার সিরিজের দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে মুখোমুখি হবে দল দুটি। ম্যাচ শুরু বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টায়।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

অস্ট্রেলিয়া: ২০ ওভারে ১৯৬/৬ (ওয়ার্নার ৪, ফিঞ্চ ৪২, স্মিথ ৪৫, ওয়েড ১৮, মার্শ ১৯, কেয়ারি ২৭, অ্যাগার ২০*, স্টার্ক ৭*; স্টেইন ২/৩১, এনগিডি ১/৩৭, রাবাদা ০/৪৫, ফেলুকওয়ায়ো ১/৩৫, শামসি ২/৩১, স্মাটস ০/১৫)

দক্ষিণ আফ্রিকা: ১৪.৩ ওভারে ৮৯ (ডি কক ২, ভ্যান ডার ডাসেন ৬, ডু প্লেসি ২৪, স্মাটস ৭, মিলার ২, ভ্যান বিলিয়ন ১৬, ফেলুকওয়ায়ো ০, স্টেইন ০, রাবাদা ২২, এনগিডি ১, শামসি ২*; স্টার্ক ১/২৩, রিচার্ডসন ০/২০, কামিন্স ২/১৩, জ্যাম্পা ২/৯, অ্যাগার ৫/২৪)

ফল: অস্ট্রেলিয়া ১০৭ রানে জয়ী।

ম্যাচসেরা: অ্যাশটন অ্যাগার।

Comments

The Daily Star  | English

Getting the price right for telecom consumers

In a price-sensitive market like Bangladesh, the price of telecom services quite often makes the headlines

51m ago